র‌্যাব মহাপরিচালক : নাশকতার তথ্য নেই তবুও সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছি

আগের সংবাদ

বাংলাদেশের গর্ব, বিশ্বের বিস্ময় : জাতীয়-আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে যেভাবে ডানা মেলল স্বপ্নের পদ্মা

পরের সংবাদ

বর্ণিল সাজে মহাসড়ক : শিবচরে পদ্মা সেতুর আদলে মঞ্চ

প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ২৪, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ ডেস্ক : আর মাত্র একদিন বাকি। আগামীকাল শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন স্বপ্নের পদ্মা সেতু। উদ্বোধনের পর ওপারে শিবচরে জনসভায় বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী শেখা হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিদের পাশাপাশি বিদেশি অতিথিদেরও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এবং জনসভাকে কেন্দ্র মাদারীপুরের পাশাপাশি সারাদেশে বিশেষ করে দক্ষিণাঞ্চলে বইছে আনন্দের বন্যা। রাজধানী ঢাকা থেকে পদ্মার পাড়ে যাওয়ার সব সড়ক-মহাসড়ক সেজেছে বর্ণিল সাজে। ব্যানার, ফেস্টুন পোস্টারে ভরে গেছে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের চারপাশ। মাদারীপুরসহ আশপাশের জেলার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন। আমাদের প্রতিনিধি মিঠুন রায় (শিবচর-মাদারীপুর), মোহাম্মদ সেলিম (মুন্সীগঞ্জ) এবং অধীর রাজবংশী (শ্রীনগর-মুন্সীগঞ্জ) থেকে জানিয়েছেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রস্তুতির এসব তথ্য।
পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে মাদারীপুরের শিবচর সেজেছে বর্ণিল সাজে। বাংলাবাজার ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী ঘাট এলাকায় পদ্মা সেতুর আদলেই তৈরি হয়েছে জনসভার মঞ্চ। সমাবেশ সফল করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। উৎসবমুখর পরিবেশ সর্বত্র। জনসভায় ১০ লাখ মানুষের সমাগমকে কেন্দ্র করে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ঐতিহাসিক জনসভার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন মূল সমন্বয়কারী চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী।
সরজমিন দেখা যায়, স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনকে ঘিরে মাদারীপুরের শিবচরে সাজ সাজ রব। ব্যানার-ফ্যাস্টুনে ছেয়ে গেছে চারপাশ। পদ্মা সেতুর এক্সপ্রেস হাইওয়ে সেজেছে বর্ণিল সাজে। জনসভা মঞ্চের সামনে বসানো হয়েছে নৌকা। উদ্বোধনের আগেই প্রস্তুত করতে দিন-রাত কাজ করছেন শ্রমিকরা।
পদ্মা সেতুর টোলপ্লাজা থেকে কাওড়াকান্দি পুরনো ফেরিঘাটের চারপাশের ৮ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে আধুনিক শব্দযন্ত্রসহ বসানো হয়েছে ৭ শতাধিক মাইক। লঞ্চের যাত্রী নামানোর জন্য নতুন করে বসানো হয়েছে ১৫টি পল্টুন। স্থাপন করা হয়েছে ৩টি মেডিকেল ক্যাম্প। জনসভাস্থল, নৌপথ ও স্থলপথে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
শিবচর উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সেলিম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরীর নেতৃত্বে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। মাদারীপুর পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল বলেন, এসএসএফর সঙ্গে সমন্বয় করে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছি। সবাইকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে জনসভায় অংশ নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী।
বিলবোর্ডে সুসজ্জিত ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক : পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টারে সুসজ্জিত ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক। মুন্সীগঞ্জ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে এসব বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার করেছেন। এছাড়া ঢাকার কেরানীগঞ্জের আব্দুল্লাহপুর থেকে ধলেশ্বরী টোলপ্লাজা কুচিয়ামোড়া নিমতলা পর্যন্ত বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার এখন শোভা পাচ্ছে।
এদিকে স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনকে ঘিরে সভাস্থলে যেতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের প্রায় ২০ হাজার নেতাকর্মী সভাস্থলে যাবে।
প্রচার কেন্দ্রে রূপ নিয়েছে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেস ওয়ের দুই প্রান্ত : স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করে আগামীকাল সকাল ১০টায় মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্ত থেকে গাড়িতে করে সেতুর উপর দিয়ে শরীয়তপুরের জাজিরাপ্রান্তে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ কারণে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্ত সংলগ্ন উপজেলাগুলোতে বইছে সাজ সাজ রব। ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে দিয়েই মন্ত্রী, এমপিসহ সরকারি দলের কেন্দ্রীয় নেতারা অনুষ্ঠানস্থলে আসবেন। এই কারণে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেস ওয়ের দুই প্রান্ত ও এর সঙ্গে সংযোগ সড়কের কেন্দ্রস্থলকে ধরে নেয়া হয়েছে প্রচার প্রচারণার কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে।
ষোলঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মো. আজিজুল ইসলাম বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে মানুষের আনন্দ-উল্লাস ততই বাড়ছে। শ্রীনগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ওয়াহিদুর রহমান জিঠু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের ফসল পদ্মা সেতুকে ঘিরে শ্রীনগরের আনাচে কানাচে আজ উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণব কুমার ঘোষ বলেন, পদ্মা সেতুর উত্তর প্রান্তে শ্রীনগর উপজেলা সবচেয়ে কাছে। সেতুকে কেন্দ্র করে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেস ওয়ের সুফল পাচ্ছে শ্রীনগর উপজেলাবাসী। এ কারণে সেতুর উদ্বোধনকে ঘিরে এই অঞ্চলের মানুষের উচ্ছ¡াস উপচে পড়ছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়