অধ্যাপক সাইদা হত্যা : গ্রেপ্তার আনারুলের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

আগের সংবাদ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আওয়ামী লীগের সংলাপ : নির্বাচন কমিশন গঠনে ৪ প্রস্তাব

পরের সংবাদ

মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর : ফেনীতে এক বছরে সাড়ে ৪ কোটি টাকার মাদক জব্দ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৭, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৭, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি : ফেনীর সীমান্ত উপজেলাগুলোতে মাদকের বিস্তারে নারী ও শিশুদের ব্যবহার বাড়ছে। মাদক ব্যবসায়ীরা ইয়াবার আমদানি, সরবরাহ ও বেচাকেনার জন্য নিরাপদ হিসেবে নারী-শিশুদের বেছে নিচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে পুরুষরা ব্যর্থ হওয়ায় ভাড়া করা নারী ও শিশুদের নামাচ্ছে এ ব্যবসায়। কিছু দিন ধরে নারীরা ইয়াবার বিশেষ ধরনের থলে পেটের মধ্যে বহন করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। শিশুদের স্কুল ব্যাগে করেও পাচার করা হচ্ছে ইয়াবার চালান। মাদকের এমন বিস্তারের মধ্যে গত বছর সাড়ে চার কোটি টাকার মাদক জব্দ ও ১৬৮ জন মাদক বিক্রেতা আটক করেছে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।
মাদক প্রতিরোধে জেলার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে মাদক নিয়ন্ত্রণ দপ্তর। এ বিষয়ে ফেনীর মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল হামিদ বলেন, গত বছর মাদকবিরোধী ১ হাজার ৪৬১টি অভিযান চালায় অধিদপ্তর। এসব অভিযানে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকার মাদক জব্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৬ হাজার পিস ইয়াবা, ২০৯ বোতল ফেনসিডিল, ৩৬ কেজি গাঁজা, ৯৭ লিটার মদ, ৬৮ ক্যান বিয়ার, ২০০ গ্রাম আইস, ১ হাজার ২৯০ লিটার মিথাইল, ১০ বোতল এস্কফ, ৩ কেজি মুলি ও ৫০ বোতল বিদেশি মদ। ১৭৫টি মামলায় ১৬৮ জন মাদক বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
তবে দপ্তরের জনবল সংকটের কথাও বলেন তিনি। এসব সংকট দূর করলে এবং প্রয়োজনীয় সব প্রযুক্তির ব্যবহার করতে পারলে আরো সফলতা আসতে পারে বলে মনে করেন এই মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা।
উল্লেখ্য, পার্শ্ববর্তী দেশগুলো থেকে সীমান্তপথে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক দেশে ঢুকছে অভিনব পদ্ধতিতে। ফেনীসহ সীমান্ত জেলা ও বন্দরের মাধ্যমে পেঁয়াজের ভেতরে করে ইয়াবার চালান আনা হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরেই সীমান্তে মৌসুমি ফল বহনকারী পরিবহন মাদকদ্রব্য চোরাচালানের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়