অধ্যাপক সাইদা হত্যা : গ্রেপ্তার আনারুলের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

আগের সংবাদ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আওয়ামী লীগের সংলাপ : নির্বাচন কমিশন গঠনে ৪ প্রস্তাব

পরের সংবাদ

টাঙ্গাইলে সংবাদ সম্মেলন : নির্বাচনপরবর্তী সংঘাতের শিকার একটি পরিবারের বাঁচার আকুতি

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৭, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৭, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : সদর উপজেলার গালা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড বেলটিয়াবাড়ী এলাকায় নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতার শিকার অবসরপ্রাপ্ত বিডিআর সদস্য সেলিম খান ও তার পরিবার। একই সঙ্গে সন্ত্রাসীরা তাদের বিভিন্নভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে। গত শনিবার দুুপুরে টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন এমন অভিযোগ করেন তারা। লিখিত বক্তব্যে সেলিম খান জানান, ২নং ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী শাহ শাফির নেতৃত্বে নির্বাচনী খরচ বাবদ তার ছেলে সোহাগ খানের কাছে একটি মোটরসাইকেল ও এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। কিন্তু চাঁদা দিতে রাজি না হওয়ায় নির্বাচনে পরাজিত হয়ে গত ৭ জানুয়ারি রাত ১০টার দিকে আমার ছেলে সোহাগ খানকে মোবাইল ফোনে ডেকে পাঠায়। আমার ছেলে বেলটিয়া মোড়ে পৌঁছালে শাহ শাফি ও তার লোকজন অস্ত্র দিয়ে হামলা করে। এ সময় আমার ছেলের কাছ থেকে ৮০ হাজার টাকা এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে তার চিৎকারে স্থায়ীয়রা এসে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করলে তারা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে আমার বসতভিটায় হামলা করে। এতে আমার প্রায় ২ লাখ টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে। পরে তারা আমার বসতঘরে প্রবেশ করে আলমারি খুলে ৫ ভরি স্বর্ণের গহনা এবং প্রায় ৩ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। পরদিন ৯ জানুয়ারি ছাত্রাবাসে ছাত্ররা ৯৯৯-এ ফোন করলে পুলিশ এসে জিম্মি অবস্থা থেকে আমার পরিবারসহ ছাত্রাবাসের ছাত্রদের উদ্ধার করে। তিনি আরো বলেন, এরপর থেকে অদ্যাবধি সন্ত্রাসীরা প্রতিদিন হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে। আমি টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, র‌্যাব, সদর থানার ওসিসহ আইনশৃঙ্খলার বাহিনীর সহযোগিতা চাই। এর সঠিক বিচারের দাবি করছি। সংবাদ সম্মেলনে তার স্ত্রী শাহনাজ খানমসহ তার পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
অভিযোগের বিষয়ে শাহ শাফি জানান, আমাকে ফাঁসানোর জন্য এগুলো করা হচ্ছে। নির্বাচনের সময় অবসরপ্রাপ্ত বিডিআর সদস্য সেলিম খানের ছেলে সোহান খান আমার এলাকার ছেলে শিপনকে কোপায়। এখন সেগুলো থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়