গ্যালারি কায়া : বাংলাদেশ-ভারতের শিল্পীদের নিয়ে ‘এপিক ১৯৭১’

আগের সংবাদ

স্বস্তির ভোটে আইভীর হ্যাটট্রিক : সব শঙ্কা উড়িয়ে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট, শামীম ওসমানের কেন্দ্রে হেরেছে নৌকা

পরের সংবাদ

গাজীপুরে সড়কের বেহাল দশা : ময়মনসিংহের চার জেলা থেকে ঢাকামুখী বাস বন্ধ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : আজ রবিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল থেকে বৃহত্তর ময়মনসিংহের ৬ জেলায় বাস চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে বাস-মালিক সমিতি। ফলে ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর, নেত্রকোনা, কিশোরগঞ্জ ও টাঙ্গাইলের সঙ্গে ঢাকাগামী বাস যোগাযোগ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে।
গতকাল শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ময়মনসিংহ বাস-মালিক সমিতির সম্পাদক সোমনাথ সাহা। তিনি জানান, গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত সড়কে উন্নয়নকাজ চলছে। আমরা এই উন্নয়নকাজকে সমর্থন করি। কিন্তু ওই সড়কে গাড়ি চলাচল করার জন্য প্রতি ২৪ ঘণ্টার ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার জন্য প্রায় এক লাখ টাকা বরাদ্দ রয়েছে। অথচ সড়কটিতে ট্রাফিক ব্যবস্থার কোনো উন্নয়ন নেই। সেই সঙ্গে ওই সড়কের উন্নয়নকাজ রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রায় ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে। অথচ সড়কটিতে গাড়ি চলাচলের জন্য দৃশ্যমান কোনো কাজ করা হচ্ছে না। ফলে খানাখন্দে ভরা ওই সড়কে প্রতিদিন বাস চলাচল করে প্রায় ৪ কোটি টাকার তেল এবং গাড়ির যন্ত্রাংশ নষ্ট হচ্ছে।
ময়মনসিংহ বাস-মালিক সমিতি সূত্র আরো জানায়, এর আগে গত ২ জানুয়ারি জেলা মটর-মালিক সমিতি ও ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির নেতারা সংবাদ সম্মেলন করে ওই সড়কটি গাড়ি চলাচলের উপযোগী করার দাবি জানান। অন্যথায় ওই সড়কে বাস চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছিলেন তারা। কিন্তু ওই সংবাদ সম্মেলনের পরও এ পর্যন্ত সড়কটি গাড়ি চলাচলের উপযোগী করার জন্য দৃশ্যমান কোনো উন্নয়ন না হওয়ায় পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ঢাকার সঙ্গে বৃহত্তর ময়মনসিংহের ৬ জেলার বাস চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
বাস-মালিক সমিতির অভিযোগ, নির্মাণাধীন ওই সড়কটিতে এক্সপ্রেস ওয়ের কাজ না হওয়ায় এ জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রতিদিন কোটি কোটি টাকা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন বাস-মালিকরা। প্রসঙ্গত, ময়মনসিংহ থেকে ঢাকার মহাখালী পর্যন্ত বাসে যেতে আগে সময় লাগত আড়াই থেকে তিন ঘণ্টা। কিন্তু বর্তমানে ওই সড়কে চলাচলে সময় লাগে ৫ থেকে ৭ ঘণ্টা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়