নৌপুলিশের অভিযান : ৩৫ লাখ মিটার জাল জব্দ

আগের সংবাদ

পঞ্চম দফায়ও সারাদেশে ব্যাপক সহিংসতা > ভোটে ঝরল আরো ১১ প্রাণ : পুলিশের গাড়িতে আগুন, আহত শতাধিক, আটক অর্ধশত

পরের সংবাদ

মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে ইতিহাসের হাতছানি : জয়ের সুবাস পাচ্ছে টাইগাররা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ ১৫টি টেস্ট খেলে এখন পর্যন্ত একটিও জেতেনি। এর মধ্যে তাদের মাটিতে ৯টি ম্যাচের সবগুলোই হার, পাঁচটিতে ইনিংস ব্যবধানে। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে সিরিজে গল্পটা ভিন্ন। প্রথম টেস্টের চারদিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ৩২৮ রান সংগ্রহ করে। জবাবে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে ৪৫৮ রান তুলতে সমর্থ হয়। ১৩০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ করে কিউইরা। এ মুহূর্তে ১৭ রানে এগিয়ে স্বাগতিকরা। গতকাল পেসার ইবাদত ৩৯ রানের বিনিময়ে ৪ কিউই ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফেরত পাঠান। আজ সকালে নিউজিল্যান্ডের বাকি ৫ উইকেট দ্রুত তুলে নিতে পারলে বিদেশের মাটিতে টেস্ট জয়ের ইতিহাস গড়বে টাইগাররা।
গতকাল দিনের সেরা পারফরমার পেসার ইবাদত হোসেনের চাওয়া, শেষ দিনে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বিদেশের মাটিতে জয়ের ধারা শুরু করুক বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডকে বড় বিপর্যয়ের মুখেই ফেলেছে মুমিনুল বাহিনী। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের পঞ্চম দিনে আজ কিউইদের ব্যাটিংয়ে নামতে হবে মাত্র ১৭ রানে এগিয়ে থেকে। কিউইদের হাতে রয়েছে মাত্র ৫ উইকেট। ক্রিজে আছেন একমাত্র ‘বিশেষজ্ঞ’ ব্যাটসম্যান রস টেলর। ১০১ বল মোকাবেলা করে ৩৭ রানে

অপরাজিত আছেন তিনি। টেলর বিদায় নিলে ম্যাচ টাইগারদের নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে মুমিনুল বাহিনী ইতিহাস গড়তে পারবে কিনা, সেটি পুরোপুরি নির্ভর করছে আজ পঞ্চম দিন সকালে বাংলাদেশি বোলারদের বোলিং আর পরে লক্ষ্যের দিকে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের সফলভাবে এগিয়ে যাওয়ার ওপর। ম্যাচটা জিততে পারলে সেটি নিউজিল্যান্ডের মাটিতেই বাংলাদেশের প্রথম জয় হবে। আর বর্তমান টেস্ট ক্রিকেটের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে তাদের মাটিতেই জয় যে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য বিরাট এক ব্যাপার, ইতিহাস সৃষ্টি করা এক মুহূর্ত।
আজ পঞ্চম দিনের সম্ভাবনা প্রসঙ্গে লিটন দাস বলেন, চেষ্টা থাকবে যত কমে তাদের অলআউট করা যায়। তারপর সেই রান তাড়া করার ব্যাপার আসবে। তবে এই উইকেটে সেটা যে খুব সহজ হবে, তা কিন্তু নয়। অনেক পরিশ্রম করতে হবে। তবে আমরা শান্ত আছি। আমাদের জিততেই হবে, এমন কথা নেই। আমরা প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাচ্ছি। সেই প্রক্রিয়া ধরেই সফল হয়েছি, সামনেও হব বলে আশা করছি।
গতকাল চতুর্থ দিন বিকালে ইবাদত হোসেনের অবিশ্বাস্য স্পেল বাংলাদেশের সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দিয়েছে।
উইকেটের পেছনে থেকে সতীর্থ ফাস্ট বোলার ইবাদতের বোলিং দেখে মুগ্ধতার কথাই বলছেন লিটন, ‘ইবাদত দুর্দান্ত ছিল। ওর দুটো স্পেলই চমৎকার ছিল। আমার মনে হয়, সে একই জায়গায় বল করার কারণে অনেক সাহায্য পেয়েছে। তার ব্রেকথ্রæ আমাদের দলকে অনেক চাঙা করেছে।’ তবে সতীর্থদের আগামীকালের দায়িত্বের কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন লিটন, ‘আমরা এখন যে অবস্থায়, সেজন্য খুব বেশি রোমাঞ্চ অনুভব করছি না। আমাদের এখনো কম রান দিয়ে ৫ উইকেট নিতে হবে। সেই রান তাড়া করতে হবে।’
রস টেলর ছাড়া আর কোনো প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান ক্রিজে নেই কিংবা অপেক্ষমাণও নয়। এই অবস্থায় নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশের চেয়ে পিছিয়ে স্বীকার করতে কার্পণ্যবোধ করেননি তাদের ব্যাটিং কোচ লুক রনকি। তবে যতখানি সম্ভব শেষ দিন দলকে ব্যাটিংয়ে দেখতে চান তিনি।
রনকির মতে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে চতুর্থ দিনের শুরুটা স্বাগতিকদের জন্য ভালো হলেও ফের ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় বাংলাদেশ। তিনি বলেন, প্রথম সেশন অবশ্যই অনেক ভালো ছিল, যখন আমরা উইকেটগুলো নিয়ে আবার ব্যাটিংয়ে ফিরলাম। তারপর উইল ইয়াং ও রস টেলর সুন্দর একটা পার্টনারশিপ গড়ে এগিয়ে যাচ্ছিল, যা আমাদের ব্যবধান কমাতে সহায়ক ছিল। যখনই আমরা লিড নিলাম, তারপর খুব বাজে সময়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেটগুলো হারালাম। তাই আমার মনে হয়, এই টেস্ট ম্যাচের বেশির ভাগ অংশই বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণে।
আজ শেষ দিনের লক্ষ্য নিয়ে রনকি বলেন, যতক্ষণ পারা যায় ব্যাট করে যাওয়ার চেষ্টা করা। আমাদের কাজ হবে মাঠে নেমে আবার ইনিংস শুরু করা। তাদের সিম বোলাররা সরাসরি বল করছে, আমাদেরও সরাসরি ব্যাট করতে হবে। এই পিচে হালকা রিভার্স আর অদম্য বাউন্সে তারা আমাদের ভালো চাপে রেখেছে। তাদের স্পিনাররাও কেউ কাজ করেছে এবং আমাদের ব্যাটসম্যানদের চাওয়ামতো খেলতে দেয়নি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়