নৌপুলিশের অভিযান : ৩৫ লাখ মিটার জাল জব্দ

আগের সংবাদ

পঞ্চম দফায়ও সারাদেশে ব্যাপক সহিংসতা > ভোটে ঝরল আরো ১১ প্রাণ : পুলিশের গাড়িতে আগুন, আহত শতাধিক, আটক অর্ধশত

পরের সংবাদ

জয়ের ইনজুরিতে ভাগ্য খুলল নাঈমের

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : নভেম্বরে ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে অভিষেক হয় মাহমুদুল হাসান জয়ের।
ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের কাছ থেকে টেস্ট ক্যাপ পাওয়া এই ব্যাটার নিজের অভিষেক ম্যাচটা রাঙাতে পারেননি। তবে নতুন বছরের শুরুতে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিজের দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নেমেই দারুণ সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন।
কিউইদের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৭৮ রানের মূল্যবান ইনিংস খেলেন মাহমুদুল হাসান জয়। এ রান করতে তিনি ২২৮ বল ও ২৯২ মিনিট ক্রিজে ছিলেন। ৩৪.২১ স্ট্রাইক রেটের ইনিংসটি বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসের ভিত গড়ে দেয়। কিন্তু দুর্ভাগ্য, হাতের চোটে আর নিউজিল্যান্ড সফরে ব্যাট হাতেই নামা হবে না তার।
ব্যাট হাতে দলের অন্যতম সেরা পারফরমার জয় ফিল্ডিংয়ের সময় আঙুলে চোট পেয়ে ছিটকে গেছেন। শেষ দিন তো মাঠে নামতে পারবেনই না, এই সফরই শেষ হয়ে গেছে তার।
জয়ের অনুপস্থিতিতে কপাল খুলছে দলের সঙ্গে থাকা ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম শেখের।
দ্বিতীয় টেস্টে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে নাঈমকে। সাদা পোশাকে এই বাঁ-হাতি ওপেনারের অভিষেক হতে যাচ্ছে বলে জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন জানিয়েছেন।
২১ মাস ধরে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলা নাঈমকে প্রথমবার টেস্ট দলে ডাকা হয় পাকিস্তান সিরিজের শেষ ম্যাচে। ওপেনার সাইফ হাসানের ব্যর্থতা একজন ওপেনারকে নিয়ে ভাবতে বাধ্য করে টিম ম্যানেজমেন্টকে। সেই কারণেই মূলত নাঈমকে ব্যাকআপ হিসেবে নেয়া হয়।
নাঈম দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। আর ওয়ানডে খেলেছেন দুটি। খুব সম্ভবত নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণ টেস্টের ক্যাপও পেয়ে যাবেন।
বাংলাদেশ দলের ফিজিও বায়েজিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, জয়ের আঙুলে তিনটি সেলাই লেগেছে, তাকে রাখা হবে ৭ থেকে ১০ দিনের পর্যবেক্ষণে। ৯ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে থাকা হচ্ছে না তার।
বায়েজিদ বলেন, মাহমুদুল হাসান জয় গতকাল ফিল্ডিং করার সময় আঙুলে চোট পান, তার ডান হাতের তৃতীয় ও চতুর্থ আঙুলের মাঝে।
এখানে থাকা আমাদের ডাক্তার তা সেলাই করে দিয়েছেন। তিনটি সেলাই পড়েছে তার হাতে। ৭ থেকে ১০ দিন তাকে আমরা পর্যবেক্ষণে রাখছি। ওষুধও দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়