চকবাজারে প্লাস্টিক গোডাউনে আগুন

আগের সংবাদ

তথ্যপ্রযুক্তি সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি : বাংলাদেশ বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তর ফ্রিল্যান্সার দেশ

পরের সংবাদ

ল²ীপুরে আ.লীগ-বিদ্রোহী প্রার্থী সমর্থকদের সংঘর্ষ : ককটেল বিস্ফোরণ ও নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর

প্রকাশিত: নভেম্বর ১১, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১১, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক, ল²ীপুর : কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ৫ জন আহত হন বলে খবর পাওয়া গেছে। আতঙ্ক ছড়াতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বিক্ষুব্ধরা। ২য় ধাপের ইউপি নির্বাচনের প্রচারণার শেষ দিন গত মঙ্গলবার ৯ রাত ৮টার দিকে চরকাদিরা ইউনিয়নের ফজু মিয়ার বাজারে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। আহতরা হলেন, ইউসুফ ও আলী হায়দার। বাকিদের নাম জানা যায়নি। এর আগে সন্ধ্যা ৬টার দিকে স্থানীয় রব বাজার এলাকায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) ইব্রাহিম বাবুল মোল্লা (চশমা) ও হোসেন হাওলাদার (আনারস) প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করা হয়। স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নির্বাচনী প্রচারণার শেষ দিন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী ইব্রাহিম বাবুল মোল্লা ও হোসেন হাওলাদারের পক্ষে নির্বাচনী অফিসে সভা চলছে। এ সময় আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল ইসলাম বাবুলের সমর্থকরা নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর চালায়। পরে ফজুমিয়ার হাটে স্বতন্ত্র প্রার্থী বাবুল মোল্লা উস্কানিমূলক বক্তব্য দিলে উভয়পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এ সময় ৫টির বেশি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। পরে উভয় প্রার্থীর সমর্থকদের বিক্ষোভে বাজারজুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
কমলনগর থানার ওসি মোসলেহ উদ্দিন জানান, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আজ বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ধাপে কমলনগর উপজেলার চরমার্টিন, চর কাদিরা ও চর লরেন্স এবং রামগতি উপজেলার চরগাজী ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়