ভিসি এয়ার মার্শাল নজরুল : ওবিই হচ্ছে জ্ঞানগর্ভ ও চিন্তা উদ্দীপক কর্মশালা

আগের সংবাদ

টানা ৪ জয়ে সেমিতে পাকিস্তান

পরের সংবাদ

পুলিশের গাড়ির ধাক্কায় ও ট্রাক উল্টে নিহত দুই

প্রকাশিত: নভেম্বর ২, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : রাজধানীতে পৃথক দুর্ঘটনায় শিশুসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- নাদিম হোসেন (৩২) ও আরোহী রিহান (৫)। ময়নাতদন্তের জন্য তাদের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ।
নিহত নাদিমের ভাই বীন ইয়ামিন জানান, তাদের বাড়ি শরীয়তপুরের ডামুড্ডা উপজেলায়। তার বাবার নাম মৃত মিল্লাত হোসেন। বর্তমানে খিলগাঁও গোড়ান এলাকায় থাকতেন নাদিম। একটি ব্যাংকে চাকরি করতেন। গত শনিবার গুলিস্তান পার্ক এলাকার পাশে একটি রাস্তায় পুলিশের গাড়ির ধাক্কায় আহত হন নাদিম। পরে তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হলে গতকাল সোমবার দুপুরে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
এদিকে রাজধানীর গুলশান আমেরিকান এম্বেসি গ্যারেজের সামনে ট্রাক উল্টে রিকশা আরোহী রিহান নামে এক শিশু নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে শিশুটির পরিবারের আরো তিনজন। আহতরা হলো- শিশুটির বড় বোন রাহী (৬), বাবা আবদুর রহিম ও মা শাহজাদী আক্তার মাফারা। গত রবিবার রাত সোয়া ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত দেড়টার দিকে রিহান নামের শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার খালিশপুর গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে রিহান। তাদের বাসা বাড্ডা বাঁশতলা এলাকায়। রহিম গুলশানে মুদি দোকানদার। শিশুটির মামা নজরুল ইসলাম জানান, রবিবার রাতে দুই সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে নতুন বাজারে গিয়েছিলেন বাজার করতে। সেখান থেকে বাসায় ফেরার সময় দুর্ঘটনার শিকার হন বলে খবর পাই। হাসপাতালে নিয়ে গেলে রিহানকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তার লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রাহী ও তার মা মাফারাকে চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে শিশুটির বাবা রহিম শাহবুদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।
গুলশান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নজরুল ইসলাম জানান, আমেরিকান এম্বেসির গ্যারেজের সামনের রাস্তা দিয়া রিকশা করে যাচ্ছিলেন তারা। তখন রিকশাটি চিনিবোঝাই ট্রাকের সামনে পড়ে গেলে চালক রিকশাটিতে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। তখনই ওই ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে রিকশার। এতে রিকশায় থাকা তারা ৪ জন আহত হন। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। তিনি জানান, ঘটনাস্থল থেকে ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে এবং চালককে আটক করা হয়েছে। তবে রিকশাচালককে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি। অভিযোগ পেলে মামলা নেয়া হবে বলে জানায় এই পুলিশ কর্মকর্তা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়