টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সফল পাঁচ অধিনায়ক : তাইফ রহমান রাফি

আগের সংবাদ

সড়কে নেই ‘ডিজিটাল’ ছোঁয়া

পরের সংবাদ

মারুফুলের স্বপ্ন চূড়ান্ত পর্ব

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৪, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৪, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : উজবেকিস্তানে অনুষ্ঠিতব্য এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। সেলক্ষ্যে গতকাল দুই ভাগে ভাগ হয়ে ঢাকা ত্যাগ করেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। সকাল ৭টায় কোচ মারুফ হকসহ ২৩ জন ফুটবলার তার্কিশ এয়ারলাইন্সে উজবেকিস্তানে রওনা হন। তিন ঘণ্টা পর সকাল ১০টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সে আরো নয়জন রওনা হয়েছেন। এই নয়জনের মধ্যে ছয়জন সিনিয়র জাতীয় দলের ফুটবলার। এরা উজবেকিস্তান থেকে সরাসরি শ্রীলঙ্কায় যাবেন। অনূর্ধ্ব ২৩ দলের অধিনায়কের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন বাদশাকে। তার সহকারী হিসেবে থাকবেন রহমত মিয়া। জাতীয় দলের মতো এই সফরেও ম্যানেজার সত্যজিৎ দাশ রূপু।
এছাড়া জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে ভিসা-সংক্রান্ত জটিলতায় উজবেকিস্তান যেতে পারছেন না ফিনল্যান্ডপ্রবাসী ডিফেন্ডার কাজী তারিক রায়হান। আর চোটের জন্য মিডফিল্ডার বিপলু আহমেদ এবং পারিবারিক কারণে ডিফেন্ডার বিশ্বনাথ ঘোষ সরে দাঁড়িয়েছেন। তবে প্রাথমিক দলের ক্যাম্পে কোচ মারুফুল হকের নজর কেড়েছেন ইউসুফ জুলকারনাইন হক। ইংল্যান্ডপ্রবাসী এই মিডফিল্ডারকে নিয়েই এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ এশিয়ান কাপের বাছাইয়ের চূড়ান্ত দল দিয়েছেন কোচ। ইংল্যান্ডের তৃতীয় স্তরের দল ইপ্সউইচ টাউনের হয়ে খেলেন জুলকারনাইন। তার বাবা-মায়ের বাড়ি সিলেট।
আগামী ২৭ অক্টোবর উজবেকিস্তানে শুরু হবে বাছাইয়ের গ্রুপপর্ব। ‘ডি’ গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ সৌদি আরব, উজবেকিস্তান ও কুয়েত। এ তিন দলই শক্তি সামর্থ্যে লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের চেয়ে এগিয়ে। তাই হাত গুটিয়ে বসে থাকতে নারাজ বাংলাদেশ দলের কোচ মারুফুল। তার নজর এখন বাছাইয়ের মূলপর্বে।
দেশ ত্যাগ করার আগে সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয় মারুফুল বলেন, আমরা মূলপর্বে খেলতে চাই সেটা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বা সেরা রানার্স আপের মধ্যে থেকে হলেও। উজবেকিস্তান স্বাগতিক দল সরাসরিই খেলবে। আমি বাকি দুই ম্যাচ থেকে চার পয়েন্ট নিতে চাই। এই গ্রুপিংটা হয়েছে কয়েক মাস আগে। সেই গ্রুপিংয়ের সময় আমার ইচ্ছে ছিল এই দলটাকে দুই-তিন মাস নিয়ে কাজ করা। সেটা করতে পারলে ভালো কিছু করা সম্ভব ছিল। তবে এক মাসের মতো পেয়েছি। ভালো ও উন্নত দলের সঙ্গে খেলেই নিজেদের প্রমাণ করতে হয়। আমি সেই চ্যালেঞ্জটাই নিয়েছি।
এদিকে তিন পরীক্ষিত ফুটবলার তারিক কাজী, বিশ্বনাথ ঘোষ ও বিপলুকে পাচ্ছেন না মারুফুল। তাই এই তিন ফুটবলারকে ছাড়াই মূলপর্বে খেলার স্বপ্ন দেখছেন বাংলাদেশের কোচ। এ বিষয় মারুফুল বলেন, তিনজনই গুরুত্বপূর্ণ কারণে দলের সঙ্গে নেই।
তাদের বিকল্প রয়েছে। কিন্তু তাদের শূন্যস্থানের পুরোটা পূরণ করতে পারবে না বিকল্প, এটাই বাস্তবতা। এটা মেনেই আমাদের চলতে হবে। আর ইংল্যান্ডপ্রবাসী ইউসুফ জুলকারনাইন টেকনিক্যালি সাউন্ড। সে ধীরে ধীরে উন্নতি করছে। ক্রমেই ও দলের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে।
বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল : পাপ্পু হোসেন, মিতুল মারমা, মাহফুজ হাসান প্রীতম, রহমত মিয়া, রিয়াদুল হাসান রাফি, ইয়াসিন আরাফাত, মনির আলম, মোহাম্মদ হৃদয়, টুটুল হোসেন বাদশা, সবুজ হোসাইন, দুখু মিয়া, ইসা ফয়সাল, মানিক হোসেন মোল্লা, আবু সাইদ, পাপন সিং, এনামুল হক, মারাজ হোসেন অপি, মাহবুবুর রহমান সুফিল, ফয়সাল আহমেদ ফাহিম, জমির উদ্দিন, রহিম উদ্দিন, সাব্বির আহমেদ ও ইউসুফ জুলকারনাইন হক।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়