নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস আজ

আগের সংবাদ

কালো টাকার অবাধ সুযোগ! : বিদেশে পাচার হওয়া অর্থ ফেরাতে বিরল উদ্যোগ, কর দেয়ায় নিরুৎসাহিত হবে সৎ করদাতারা

পরের সংবাদ

মেয়র প্রার্থীদের প্রচারণায় সরগরম কুমিল্লা : দুর্নীতিমুক্ত ও বাসযোগ্য শহর গড়ার প্রতিশ্রæতি

প্রকাশিত: মে ২৯, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মে ২৯, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক, কুমিল্লা : দুর্নীতিমুক্ত বাসযোগ্য কুমিল্লা শহর গড়ার প্রতিশ্রæতি দিয়ে প্রচারণায় নেমেছেন কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনের মেয়রপ্রার্থীরা। নির্বাচিত হলে সিটি করপোরেশনকে দুর্নীতিমুক্ত করার পাশাপাশি অতীতের দুর্নীতি জনগণের সামনে তুলে ধরার ঘোষণা দিয়েছেন নৌকার মেয়র প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত। আর তার এ ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে এখনই দুর্নীতির চিত্র প্রকাশের আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত সদ্য সাবেক মেয়র স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু। গতকাল শনিবার নির্বাচনের মাঠে তিনি এ আহ্বান জানান।
গত শুক্রবার রাতে নির্বাচনী প্রধান কার্যালয় উদ্বোধনকালে নৌকার মেয়র প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত বলেন, আমি নির্বাচিত হলে সিটি করপোরেশনকে দুর্নীতিমুক্ত করব। আমি আপনাদের ঘোষণা দিচ্ছি বহুতল ভবনের নকশা অনুমোদনের জন্য মেয়রকে বিনামূল্যে ফ্ল্যাট দিতে হবে না। সিটি করপোরেশনের অভ্যন্তরীণ দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ করা হবে।
এর জবাবে গতকাল শনিবার গণসংযোগকালে মনিরুল হক সাক্কু বলেন, স্থানীয় সরকার বিভাগ, দুদকসহ বিভিন্ন সংস্থা ছিল। দুর্নীতি হয়ে থাকলে তারা ব্যবস্থা নিল না কেন? আওয়ামী লীগ প্রার্থী ক্ষমতায় গিয়ে দুর্র্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ করবেন কেন, তিনি এখনই তো করতে পারেন। মেয়র পদে অন্য স্বতন্ত্র প্রার্থী নিজাম উদ্দিন কায়সার নির্বাচিত হলে সব নাগরিকদের জন্য বাসযোগ্য নগরী গড়ে তোলার আশ্বাস দেন।
গণসংযোগের দ্বিতীয় দিনে গতকাল শনিবার আওয়ামী লীগের প্রার্থী রিফাত নিজে গণসংযোগে না নামলেও তার কর্মী-সমর্থকরা নৌকার পক্ষে বিকালে নগরীর স্টেশন রোড এলাকাসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডে মাইকিং ও প্রচার-প্রচারণা চালান। এ সময় নেতৃত্বে ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা ও কুমিল্লা দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আতিক উল্লাহ খোকন, যুগ্ম সম্পাদক জহিরুল ইসলাম প্রমুখ। এর আগে বেলা ১১টার দিকে নৌকার প্রার্থীর নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির সভা মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহ্বায়ক এডভোকেট জহিরুল ইসলাম সেলিম। নির্বাচন পরিচালনা কমিটি জানিয়েছে, নৌকার প্রার্থী রিফাত আজ রবিবার থেকে সশরীরে

গণসংযোগে নামবেন।
এর আগে গত শুক্রবার রাতে নগরীর রানির দীঘির পাড়ে নৌকার প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধনকালে আরফানুল হক রিফাত বলেন, সিটি করপোরেশনের অভ্যন্তরীণ দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশের পাশাপাশি দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। সিটি করপোরেশনকে দলীয় কার্যালয় না বানিয়ে কুমিল্লার মানুষের কার্যালয় বানানো হবে। কুমিল্লার মানুষের দীর্ঘদিনের সমস্যা জলাবদ্ধতা ও যানজট নিরসনে প্রাণপণ চেষ্টা করা হবে।
বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত সাবেক মেয়র ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু গতকাল বেলা সাড়ে ১১টা থেকে নগরীর কাপড়িয়াপট্টি, রাজগঞ্জ, মোগলটুলী, চকবাজার, কাঁটাবিল, নূরপুর, তেরিপট্টি এলাকায় প্রচারণা চালান। আওয়ামী লীগ প্রার্থী সিটির দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ প্রসঙ্গে তিনি সাক্কু বলেন, গত ১০ বছর আমি সিটি করপোরেশনের কার্যক্রম চালিয়ে এসেছি। ভালো কী মন্দ করেছি তা জনগণ ভালো জানেন। এ সময় সিটি করপোরেশনে দুর্নীতি হয়ে থাকলে তারা ব্যবস্থা নিল না কেন? আওয়ামী লীগ প্রার্থী ক্ষমতায় গিয়ে দুর্র্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ করবেন কেন, তিনি এখনই তো করতে পারেন।
তিনি অভিযোগ করেন, গত শুক্রবার রাতে হেলমেটধারী লোকজন নগরীর বিভিন্ন স্থানে তার পোস্টার, ব্যানার ছিঁড়ে ফেলেছে এবং মাইক ভেঙে ফেলেছে। এ বিষয়ে তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে অভিযোগ দাখিল করেছেন। অন্য প্রার্থী স্বেচ্ছাসেবক দল থেকে বহিষ্কৃত নিজাম উদ্দিন কায়সার গতকাল সকাল ১০টার দিকে নগরীর শিশুমঙ্গল রোড, বাঁদুরতলা, কান্দিরপাড়, মনোহরপুর, ছাতিপট্টি, চকবাজার, নবাববাড়ী, দক্ষিণ চর্থা এলাকায় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে প্রচারণা চালান। এ সময় তিনি ভোটারদের একটি আধুনিক বাসযোগ্য সম্প্রীতির নগরী গড়ে তোলার আশ্বাস দেন।
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরীসহ ভিজিল্যান্স টিমের সদস্যরা দুপুরে নগরীর কালিয়াজুরি এলাকায় প্রচার বাহনে একটি মাইকের স্থানে দুটি মাইক ব্যবহার করায় নৌকার প্রার্থী আরফানুল হক রিফাতকে ফোনের মাধ্যমে সতর্ক করেন এবং একটি মাইক খুলে ফেলার নির্দেশ দেন। এছাড়াও নৌকার সমর্থকরা গণপরিবহনে পোস্টার লাগানোর অভিযোগে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বিপুলসংখ্যক কর্মী-সমর্থক নিয়ে প্রচারণা চালানো এবং জীবন্ত ঘোড়া নিয়ে মিছিল করার অভিযোগে অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী (ঘোড়া) নিজাম উদ্দিন কায়সারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
কুমিল্লার পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ জানান, পুলিশের নিয়মিত টহলের পাশাপাশি ২১টি স্পেশাল মোবাইল টিম নগরীতে কাজ করছে। ১৫টি স্থায়ী চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। এছাড়া সাদা পোশাকে নগরীর স্পর্শকাতর স্থানসহ বিভিন্ন স্থানে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। অন্যদিকে জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে ৯টি মোবাইল টিম, বিজিবির টহল অব্যাহত আছে। যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় পুলিশ-প্রশাসন তৎপর রয়েছে।
রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী জানান, আচরণবিধি মেনে চলার জন্য আইনের কঠোর প্রয়োগ করা হবে। এ পর্যন্ত নগরীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি শান্ত আছে। মেয়র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কুর পোস্টার-ব্যানার ছিঁড়ে ফেলার দাখিলকৃত অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়