নৌপুলিশের অভিযান : ৩৫ লাখ মিটার জাল জব্দ

আগের সংবাদ

পঞ্চম দফায়ও সারাদেশে ব্যাপক সহিংসতা > ভোটে ঝরল আরো ১১ প্রাণ : পুলিশের গাড়িতে আগুন, আহত শতাধিক, আটক অর্ধশত

পরের সংবাদ

পরিবারের সদস্যদের তাড়িয়ে বাড়ি লুট : অস্ত্রের মহড়া দিয়ে নারীর শ্লীলতাহানি

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

নোয়াখালী প্রতিনিধি : বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভায় গভীর রাতে প্রবাসীর বাড়িতে অস্ত্রের মহড়া দিয়ে নারীর শ্লীলতাহানি ও স্বর্ণালঙ্কার লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় পরিবারের সদস্যদের বাড়ি থেকে তাড়িয়ে ঘরের দরজায় তালা দিয়ে বাড়ির গেট আটকে দেয়া হয়। গত সোমবার রাত ৩টার দিকে গণিপুর গ্রামের ইতালি প্রবাসী আবুল খায়েরের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। প্রবাসী আবুল খায়েরের স্ত্রী ফাতেমা আক্তার বলেন, আমার স্বামী ইতালি থেকে তার বড় ভাই হাকিম আলীর মাধ্যমে দেশে টাকা-পয়সা পাঠাতেন। হাকিম আলী আমার স্বামীর সরল বিশ্বাসকে কাজে লাগিয়ে পাঠানো টাকা দিয়ে নিজের নামে এবং বেনামে সম্পত্তি ক্রয় করতে থাকেন। আমার স্বামী টাকা-পয়সা ও জমিজমার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে হাকিম আলী সঠিক জবাব দিতে পারেননি। পরে হাকিম আলী তার নামে কিছু সম্পত্তি আমার স্বামীর নামে লিখে দেন। তবে সেটা তিনি সহজে মেনে নিতে পারেননি। গত সোমবার দুপুরে হাকিম এবং তার ছেলেরা আমার বসতঘরে হামলা চালান। এ সময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায়।
ফাতেমা বলেন, সোমবার রাতে খাওয়া-দাওয়া শেষে সন্তানদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। রাত পৌনে ৩টার দিকে হাকিম আলীর ছেলে হাসান আলী ও হাসিফ আলী ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমার বসতঘরে হামলা চালিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা গালমন্দ এবং আমাকে ও আমার শিশু সন্তানদের মারধর করতে থাকে। একপর্যায়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনায় নোয়াখালীর পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ফাতেমা।
চৌমুহনী পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনায়েত উল্যা চৌধুরী রানা জানান, জমি নিয়ে প্রবাসী আবুল খায়েরের সঙ্গে তার বড় ভাই হাকিম আলীর বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে আদালতে মামলাও চলছে। কয়েক দিনের মধ্যে প্রবাস থেকে আবুল খায়ের আসার কথা রয়েছে। তখন পৌরসভার পক্ষ থেকে বিষয়টি সমাধানের সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে। কিন্তু আমাদের সিদ্ধান্ত না মেনে প্রবাসীর স্ত্রী-সন্তানদের বাড়ি থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। চৌমুহনী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ গিয়াস উদ্দিন জানান, থানায় অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগের আলোকে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়