নজরুল ইসলাম খান : খালেদা জিয়ার কিছু হলে রেহাই পাবেন না

আগের সংবাদ

নতুন বছরে সরকারের ১০ চ্যালেঞ্জ

পরের সংবাদ

শ্যামল দত্ত’র প্রত্যয় : চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই এগিয়ে যাবে ভোরের কাগজ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : নতুন বছর- নতুন সম্ভাবনা। সেই সম্ভাবনার পথে নতুন উদ্যমে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানাল লাখো পাঠকের প্রিয় পত্রিকা ভোরের কাগজ। ২০২২ সালের প্রথমদিন গতকাল শনিবার দুপুরে কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আনন্দঘন পরিবেশে সহকর্মীদের নিয়ে কেক কাটেন সম্পাদক শ্যামল দত্ত। এ সময় তিনি বলেন, আরো সমৃদ্ধভাবে পথ চলতে ভোরের কাগজের রজতজয়ন্তীতে বেশকিছু পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছিল। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে সেই পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। তবে নতুন এ বছর আমাদের অঙ্গীকার করার বছর। রজতজয়ন্তীর সেই পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করে পত্রিকায় নতুনত্ব এনে নবউদ্যমে আরো ভালোভাবে পথ চলার বছর। সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাবে ভোরের কাগজ।
বার্তা সম্পাদক ইখতিয়ার উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধান প্রতিবেদক খোন্দকার কাওছার হোসেন, মফস্বল সম্পাদক আবদুল মোতালেব, প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা ও অর্থ ব্যবস্থাপক মো. আবদুল করিম (সোহাগ), বিজ্ঞাপন ব্যবস্থাপক এস এম এ রাজ্জাক, প্রশাসনিক ব্যবস্থাপক সুজন নন্দী মজুমদার, সার্কুলেশন ইনচার্জ তসলিম চৌধুরী ও স্পোর্টস ইনচার্জ শামসুজ্জামান শামস।
ভোরের কাগজ সম্পাদক বলেন, প্রতিবারই বছরের প্রথমদিনটি আমরা ভিন্নভাবে পালন করার চেষ্টা করি। এ বছরও এর ব্যতিক্রম হয়নি। আমরা মহামারি করোনার সময় অতিক্রম করছি। এমন নয়, মহামারির সময় শেষ হয়ে গেছে। এর মধ্যে পত্রিকার প্রকাশনাসহ অন্যান্য কাজ অব্যাহত রাখা খুবই চ্যালেঞ্জিং। লকডাউনের সময়গুলোতে সবচেয়ে বেশি কঠিন সময় পার করতে হয়েছে আমাদের। ওই সময়ে পত্রিকার সংকট কাটাতে যারা ভূমিকা রেখেছেন তারাই জানেন, কাজটা কতটা চ্যালেঞ্জিং ছিল। এরপরও আমাদের সময় খারাপ কাটেনি। এর পেছনে সবার সমন্বিত প্রচেষ্টা ছিল। আগামী দিনগুলোতেও সমন্বিতভাবে ও পরিকল্পনা করে এগিয়ে যেতে হবে।
করোনার ঝুঁকি এখনো আছে উল্লেখ করে শ্যামল দত্ত বলেন, সবাইকে টিকা নিতে হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। মাস্ক ব্যবহার করে নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার চেষ্টা রাখতে হবে। সবশেষে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে সবার নিজের ও পরিবারের মঙ্গল কামনা করেন শ্যামল দত্ত।
ইখতিয়ার উদ্দিন বলেন, নতুন আরো একটি বছরের যাত্রা শুরু হলো। প্রতি বছরের মতো আমরা ভোরের কাগজ পরিবারের সদস্যরা নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে মিলিত হয়েছি। নতুন বছরে সবারই নতুন কিছু প্রত্যাশা থাকে। নতুন উদ্যমে কাজ করে সেই প্রত্যাশা পূরণের পথে এগিয়ে যেতে হবে।
কেক কাটার পর আনন্দ-উল্লাস, আড্ডা ও ফটোসেশনে মেতে ওঠেন ভোরের কাগজ পরিবারের সদস্যরা। মধ্যাহ্নভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়