পরিকল্পনামন্ত্রী : দেশে রাজনীতিবিদের চেয়ে আমলাতন্ত্রের দাপট বেশি

আগের সংবাদ

শ্যামল দত্ত’র প্রত্যয় : চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই এগিয়ে যাবে ভোরের কাগজ

পরের সংবাদ

সংগীতাঙ্গনে শোকের ছায়া : গীতিকার রাসেল ও’নীলের চিরকুটসহ লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : রাসেল ও’নীল নামে পরিচিত দেশের জনপ্রিয় গীতিকার মেহবুবুল হাসান রাসেলের (৪৭) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানাধীন লিচু বাগান এলাকার নিজ বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। রাসেল ও’নীল আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন বলে ধারণা পুলিশের। তার কক্ষ থেকে উদ্ধার হওয়া একটি চিরকুটের লেখাও আত্মহত্যার ইঙ্গিত দিচ্ছে। বেশ কিছুদিন ধরে বেকার থাকলেও ঠিক কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন সে বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
এদিকে, জনপ্রিয় এই গীতিকারের মৃত্যুর খবরে দেশের সংগীতাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে তার মৃত্যুতে শোক জানাচ্ছেন।
তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার এসআই সাইদুর রহমান জানান, রাতের খাবার শেষে নিজের রুমে যান রাসেল। রাত সাড়ে ১১টার দিকে পরিবারের অন্য সদস্যরা ডাকাডাকির পর দরজা না খোলায় পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশ গিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে থাকা অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা এটি আত্মহত্যা। তবে তদন্তের পর এর প্রকৃত কারণ সম্পর্কে জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে বলেও জানান এসআই।
পুলিশ জানায়, বাসাটিতে রাসেলের সঙ্গে তার মা ও ছোট ভাই থাকেন। দেড় বছর ধরে রাসেল চাকরিহীন ছিলেন। একপর্যায়ে তাকে মাদকাসক্তি নিরাময় ও পুনর্বাসনকেন্দ্রে পাঠানো হয়েছিল। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) হাফিজ আল ফারুক জানান, রাসেলের কক্ষে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। চিরকুটের শুরুতে ‘জরুরি’ হেডলাইনে লেখা রয়েছে, ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেহ দায়ী নয়। আমি স্বেচ্ছায় আত্মহনন করলাম। এর সঙ্গে কাউকেই জড়িত করা যাবে না এবং আমার দেহের কোনো পোস্টমর্টেম হবে না।’ চিরকুটের শেষে নিজের নাম লিখে স্বাক্ষরও করেছেন তিনি। হাতের লেখা রাসেলের বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত করেছেন তার পরিবার ও বন্ধুরা। তবে এ বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। মর্গ থেকে একটি সূত্র জানায়, গীতিকার রাসেলের ময়নাতদন্ত শেষে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
রাসেল ও’নীলের অনেক গানের সুরকার-গায়ক ও ঘনিষ্ঠজন সংগীতশিল্পী বাপ্পা মজুমদার জানান, রাতেই তিনি দুঃসংবাদটি পেয়েছেন। এ ঘটনায় তিনি খুব মর্মাহত হয়েছেন। এছাড়া ব্যাকগ্রাউন্ডে শোকের কালো রঙ নিয়ে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ফের দেখা হবে বদ … !! এইটা কি করলি তুই !!’
উল্লেখ্য, এক সময় ‘রাসেল ও নীল’ নামে গান লিখতেন মেহবুবুল হাসান রাসেল ও তার বন্ধু ইন্দ্রনীল চট্টোপাধ্যায়। পরে রাসেল ও’নীল নামেই পরিচিতি পেতে থাকেন রাসেল। দেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড ‘দলছুট’-এর অনেক গানের কথাই লিখেছেন তিনি। বাপ্পা মজুমদারসহ আরো গুণী শিল্পীরাও গান করেছেন তার কথায়। এছাড়া একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায় কপিরাইটার হিসেবে কাজ করতেন তিনি। রাসেল ও’নীলের লেখা উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে রয়েছে ?‘দিন বাড়ি যায়/চড়ে পাখির ডানায়’, ‘সূর্য স্নানে চল’, ‘মনটা তোমার কেনা’ প্রভৃতি।
এক সময় সাংবাদিকতায়ও যুক্ত ছিলেন রাসেল। তিনি ভোরের কাগজের সহ সম্পাদক হিসেবে কাজ করেন। পরে সাংবাদিকতা ছেড়ে বিজ্ঞাপনী সংস্থায় যুক্ত হন। গানের পাশাপাশি অসংখ্য বিজ্ঞাপনের জিংগেলও লিখেছেন তিনি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়