চকবাজারে প্লাস্টিক গোডাউনে আগুন

আগের সংবাদ

তথ্যপ্রযুক্তি সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি : বাংলাদেশ বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তর ফ্রিল্যান্সার দেশ

পরের সংবাদ

কপিরাইট লঙ্ঘন : বাংলালিংকের বিরুদ্ধে পৃথক মামলা করল মাইলস-নগরবাউল

প্রকাশিত: নভেম্বর ১১, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১১, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : জেমস ও মাইলসের আটটি গান অনুমতি ছাড়া ১৪ বছর ধরে ওয়েলকামটিউন হিসেবে ব্যবহার করায় কপিরাইট আইনে বাংলালিংকের বিরুদ্ধে পৃথক দুইটি মামলা করেছেন ব্যান্ড দল মাইলস ও নগরবাউল। গতকাল বুধবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে এ দুটি মামলা করা হয়। এরপর আদালত এ বিষয়ে জবাব দেয়ার জন্য বাংলালিংকের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। এ সময় নগরবাউলের পক্ষে কণ্ঠশিল্পী জেমস এবং মাইলসের পক্ষে দুজন উপস্থিত ছিলেন।
শুনানিতে নগরবাউল ও মাইলসের আইনজীবী মিজানুর রহমান মামুন বলেন, মাইলস ব্যান্ডের ?‘নীলা তুমি’ ও ‘ফিরিয়ে দাও’ গান দুটি কপিরাইট আইন লঙ্ঘন করে ১৪ বছর ধরে ব্যবহার করছে টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক। গান দুটি সরিয়ে নেয়ার জন্য তাদের মৌখিকভাবে বলা হয়। এরপর ২০১৭ সালের ৬ আগস্ট গান দুটি সরিয়ে নেয়ার জন্য তাদের লিগ্যাল নোটিস দেয়া হয়। এছাড়া তিনটি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে তাদের গান সরিয়ে নেয়ার জন্য বলা হয়। এরপরও তারা তা সরিয়ে নেয়নি। চলতি বছরের ২১ অক্টোবর বাংলালিংকের বিরুদ্ধে মামলা করতে গুলশান থানায় যাই। থানায় মামলা না নিলে আমরা আদালতে বিচারের জন্য এসেছি।
তিনি আরো বলেন, নগরবাউলের ছয়টি গান অনুমতি ছাড়া ১৪ বছর ধরে ওয়েলকামটিউন হিসেবে ব্যবহার করছে বাংলালিংক। তাদের এ বিষয়ে বলার পরও গান সরায়নি। আমরা তাদের গান সরাতে লিগ্যাল নোটিস পাঠাই। এছাড়া তিনটি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে তাদের গান সরিয়ে নেয়ার জন্য বলা হয়। এরপরও তারা তা সরিয়ে নেয়নি। এর আগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর সকালে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে মামলা করতে আবেদন করেন জেমস। এ সময় বিচারক তাকে থানায় (গুলশান থানা) গিয়ে মামলা করতে পরামর্শ দেন। থানায় যদি মামলা না নেয় তাহলে আদালতে এসে মামলার আবেদন করতে বলেন। সে অনুযায়ী আদালতে মামলা করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়