ডেঙ্গুতে ৯১ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত সাড়ে ২৩ হাজার

আগের সংবাদ

তৃণমূলে সংঘাত থামছেই না : সংঘর্ষে জড়িতদের তালিকা করছে আ.লীগ, অভ্যন্তরীণ সংঘর্ষে এক মাসে নিহত ৮, নির্বাচনী সংঘর্ষে ৩৮ নিহত

পরের সংবাদ

জাবিহউল্লা মুজাহিদ : তালেবানের স্বীকৃতি না দিলে সংকট ছড়িয়ে যাবে বিশ্বে

প্রকাশিত: নভেম্বর ১, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ ডেস্ক : আফগানিস্তানের তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দিতে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তালেবান বলেছে, স্বীকৃতি না দেয়া এবং বিদেশে থাকা অর্থ আটকে রাখা কেবল তাদের নয়, পুরো বিশ্বের জন্যই জটিল সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে। আগস্টে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয়া কট্টরপন্থি গোষ্ঠীটির সরকারকে এখন পর্যন্ত কোনো দেশই আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেয়নি। দেশটিতে তীব্র অর্থনৈতিক ও মানবিক সংকট চলা সত্ত্বেও বিদেশে থাকা তাদের বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের সম্পদ ও অর্থ আটকে রাখা হয়েছে।
তালেবান মুখপাত্র জাবিহউল্লা মুজাহিদ এ বিষয়ে বলেন, আমেরিকার প্রতি আমাদের বার্তা হচ্ছে, যদি স্বীকৃতি না দেয়া অব্যাহত থাকে, তাহলে আফগান সংকটও অব্যাহত থাকবে। এটা এ অঞ্চলের সমস্যা এবং পরে বিশ্বের জন্যও সমস্যায় পরিণত হতে পারে। গত শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন বলে এক প্রতিবেদনে জানায় বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
মুজাহিদ বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান যে একে অন্যের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়েছিল, তার অন্যতম কারণ ছিল দুইপক্ষের মধ্যে কোনো আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক না থাকা। ২০০১ সালের সেপ্টেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে আল-কায়েদার হামলার পর তালেবান মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠীটির শীর্ষ নেতা ওসামা বিন-লাদেনকে ওয়াশিংটনের হাতে তুলে দিতে রাজি না হওয়ার পর মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনী আফগানিস্তানে সামরিক অভিযান চালায়।

মুজাহিদ বলেন, যেসব কারণে যুদ্ধ হয়েছিল, সেগুলো আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা যেত, রাজনৈতিক সমঝোতার মাধ্যমেও সমাধান করা যেত। আফগান সরকারের স্বীকৃতি দেশটির জনগণের ‘অধিকার’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি। রয়টার্স জানায়, এখন পর্যন্ত কোনো দেশ তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি না দিলেও অনেক দেশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা কাবুলে অথবা আফগানিস্তানের বাইরে কট্টরপন্থি গোষ্ঠীটির নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। সর্বশেষ গত শনিবার কাবুল সফর করেন তুর্কমেনিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাশিদ মেরেদভ। তুর্কমেনিস্তান-আফগানিস্তান-পাকিস্তান-ভারত গ্যাস পাইপলাইন দ্রুত বাস্তবায়ন নিয়ে আফগানিস্তানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে তার কথা হয় বলে টুইটারে জানান মুজাহিদ। এর কয়েক দিন আগে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই কাতারে তালেবান কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করেন। বেইজিং আফগানিস্তানের পরিবহন অবকাঠামোয় অর্থায়ন এবং পাকিস্তান হয়ে চীনের বাজারে কাবুলের পণ্য রপ্তানির সুযোগ করে দেয়ার প্রতিশ্রæতি দিয়েছে বলেও জানান তালেবান মুখপাত্র। তিনি বলেন, দিন কয়েক আগে কাবুল সফরে যাওয়া পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গেও সীমান্ত ক্রসিং নিয়ে কথা হয়েছে তালেবান কর্মকর্তাদের।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়