ঢামেকে আগুন আতঙ্ক, রোগীর স্বজনদের ছুটাছুটি

আগের সংবাদ

কড়া নির্দেশনা কার্যকরে ঢিলেমি

পরের সংবাদ

কালো মেয়ে

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

আঁধারে লুকিয়ে থাকা নষ্ট পাড়ার
সেই কালো মেয়ে আমি,
আমি নষ্ট হয়েছিলাম-
পাশের বাড়ির মেশোমশাইয়ের হাতে।

সেদিন বুঝে ওঠার আগেই
আমার কালো শরীরে পড়েছিল
রক্তের ছোপ ছোপ দাগ,
মা আমাকে খুব মেরেছিল।

সেদিন সন্ধ্যায় আমি পালিয়ে যাই
পথের ধারে বসে কাঁদতে থাকি,
এক মধ্যবয়সি কাকা আমারে নিয়ে যায়।
জানেন, কাকাও-
তারপর,
কাকা আমাকে বিক্রি করে চড়া দামে।

সেই থেকে আমি-
ফেরিঘাটের নষ্টপাড়ার ডাগোর চোখা
সেই কালো মেয়ে,
এখন আমি রোজ আমারে বিক্রি করি।

আমার কোঁকড়া চুলের মাঝে এখন
পশুর শরীরের গন্ধ-
আমার অবুঝ বুকের ভাজে এখন
একটানা দম বন্ধ,
তবুও আমি মাংসপিণ্ডের ফেরি করি
দর কষাকষিতে খরিদ্দারের লালসা মেটাই।

এই আমারে চেনা যায়?
আমি দরিয়াগঞ্জের সেই কালো মেয়ে
নাম, চন্দ্র।
পাড়ার লোকে আমারে চন্দ্রাবতী বলে ডাকতো।
এখন আমার নাম চন্দ্রিমা।

এই সমাজের চোখে আমি নষ্ট
আমি আঁধার ঘরের কালো মেয়ে-
আর, মেশোমশাই?
মেশোমশাই এই তল্লাটের মোড়ল,
দরিয়াগঞ্জের বিচারক।
আমি নষ্ট মেয়ে,
তাইতো আমার ঠাঁই ফেরিঘাটের নষ্ট পাড়ায়।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়