নৌপুলিশের অভিযান : ৩৫ লাখ মিটার জাল জব্দ

আগের সংবাদ

পঞ্চম দফায়ও সারাদেশে ব্যাপক সহিংসতা > ভোটে ঝরল আরো ১১ প্রাণ : পুলিশের গাড়িতে আগুন, আহত শতাধিক, আটক অর্ধশত

পরের সংবাদ

মিরসরাইয়ে জুতা দিয়ে পেটানোর পর বৃদ্ধের মৃত্যু

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : মিরসরাইয়ে তুচ্ছ কথা নিয়ে ঝগড়ায় জুতা দিয়ে পেটানোর পর মারা গেছেন এক বৃদ্ধ। গত সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের শিকারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত ব্যক্তির নাম ননী গোপাল দে (৭৫)। তিনি ওই গ্রামের দেওয়ানজি বাড়ির মৃত সুরেন্দ্র কুমার দের ছেলে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ল²ী দাশ ও তার ছেলে রনি দাশকে আটক করেছে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।
নিহতের ভাতিজা ইন্দ্রজিৎ দে জানান, গত সোমবার দুপুরে ননী গোপাল দের ছেলে তাপস কুমার দে এবং তার বন্ধুরা রাস্তায় হাঁটার সময় বলেন, গ্রামের কৃষিজমি বিক্রি করে শহরে বাড়ি করা ভালো। প্রতিবেশী গণেশ দাসের স্ত্রী ল²ী দাশ (৫০) কথাটি তাকে উদ্দেশ করে বলা হয়েছে ভেবে কটূ কথা বলেন ও গালি দেন। সন্ধ্যায় তাপসের বাবা ননী গোপাল বিষয়টি ল²ী দাশকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি উত্তেজিত হয়ে বিবাদে জড়ান। এ সময় তাপস তার পায়ের জুতা ল²ীর দিকে ছুড়ে মারেন। তবে তা গায়ে লাগেনি। পরে ল²ী সেই জুতা নিয়ে ননী গোপালের মাথায় আঘাত করে। এ সময় চিৎকার করে তার ছেলে রনি দাশকে ডেকে আনে। রনিও তার পায়ের জুতা দিয়ে আঘাত করে। ননী গোপাল অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্বজনরা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে লাশ থানায় নিয়ে যান এসআই মামুনুর রশিদ।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রাজু সিংহ বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই ননী গোপাল মারা গেছেন। জোরারগঞ্জ থানার ওসি নুর হোসেন মামুন বলেন, লাশের ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ননী গোপালের ছেলে তাপস কুমার দে বাদী হয়ে ল²ী ও রনি দাশকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়