পরিকল্পনামন্ত্রী : দেশে রাজনীতিবিদের চেয়ে আমলাতন্ত্রের দাপট বেশি

আগের সংবাদ

শ্যামল দত্ত’র প্রত্যয় : চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই এগিয়ে যাবে ভোরের কাগজ

পরের সংবাদ

আ.লীগ নেতা হত্যা মামলায় সাবেক চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

পাবনা প্রতিনিধি : নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় পাবনার হেমায়েতপুরে আওয়ামী লীগ নেতা শামীম হোসেনকে গুলি করে হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।
সদর থানার ফতে মোহাম্মদপুর এলাকায় গত বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১১টার দিকে অভিযান চালিয়ে মো. তরিকুল আলম নিলু খাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে চরপ্রতাপপুর এলাকার একটি ভবন থেকে দুটি ম্যাগজিন, ১১টি গুলিসহ হত্যায় ব্যবহৃত বিদেশি পিস্তলটি উদ্ধার করা হয়েছে। তরিকুল আলম নিলু হেমায়েতপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে পরাজিত হন। এর আগে একই মামলায় তরিকুল ইসলামের স্ত্রী মালেকা বেগমকে বৃহস্পতিবার ভোরে গ্রেপ্তার করা হয়।
এসব তথ্য নিশ্চিত করে র‌্যাব-১২ ও সিপিসি-২ পাবনার ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার এএসপি কিশোর রায় বলেন, তাকে পাবনা সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, ২৮ ডিসেম্বর শামীমকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় বাবা নুর আলী ২৯ ডিসেম্বর তারিকুল আলমসহ তার পরিবারের ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা ৮-১০ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। তিনি বলেন, অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান চলছে।
জানা যায়, ভোটে হারার পর গত ২৮ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম মধু কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে নাজিরপুর হাটে চায়ের দোকানে বসে আলোচনা করছিলেন। এ সময় দলের বিদ্রোহী প্রার্থী তারিকুল আলম তার ছেলে ইমরান হোসেনসহ দুর্বৃত্তরা তাদের ওপর অতর্কিত হামলা ও এলোপাতাড়ি গুলি করে। এতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও সদস্য প্রার্থী শামীম হোসেন গুলিবিদ্ধ হন। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়