পরিকল্পনামন্ত্রী : দেশে রাজনীতিবিদের চেয়ে আমলাতন্ত্রের দাপট বেশি

আগের সংবাদ

শ্যামল দত্ত’র প্রত্যয় : চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই এগিয়ে যাবে ভোরের কাগজ

পরের সংবাদ

অ্যাশেজের বাকি দুই ম্যাচ নিয়ে শঙ্কা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ ডেস্ক : বিশ্ব দাপিয়ে বেড়াচ্ছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাসের থাবা থেকে রেহাই পাচ্ছে না কেউ। তেমনি অ্যাশেজ সিরিজে ইংলিশ শিবিরে কয়েকজন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর এবার অস্ট্রেলিয়া শিবিরেও হানা দিয়েছে ভাইরাসটি। সিডনি টেস্টে খেলার ঠিক আগ মুহূর্তে জানা গেছে কোভিড পজেটিভ হয়েছেন অজি ব্যাটসম্যান ট্রাভিস হেড। এ বিষয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গতকাল সকালে দুদলের সবার নিয়মিত পিসিআর পরীক্ষাতেই পজেটিভ হন হেড। তেমন কোনো উপসর্গ তার নেই এ মুহূর্তে। আপাতত সঙ্গিনীর সঙ্গে মেলবোর্নেই আইসোলেশনে থাকবেন তিনি। একই সঙ্গে বাড়তি সতর্কতায় দলে যোগ করা হয়েছেন তিন ক্রিকেটার- মিচেল মার্শ, নিক ম্যাডিনসন ও জশ ইংলিসকে।
এদিকে ৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা সিরিজের চতুর্থ টেস্টটি। পাঁচ ম্যাচের অ্যাশেজে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। এরপর ১৪ জানুয়ারি থেকে হাবার্টে হবে শেষ এবং পঞ্চম টেস্ট ম্যাচ। তবে চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী দুই দলে যেভাবে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে অ্যাশেজের বাকি দুই ম্যাচ হওয়া নিয়ে শঙ্কা জন্মেছে। তাছাড়া অ্যাশেজে করোনার শুরুটা হয় ইংল্যান্ড দল দিয়ে। এর আগে গত পরশু নিশ্চিত করা হয়, ইংল্যান্ডের কোচ ক্রিস সিলভারউড করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে যাওয়ায় চতুর্থ টেস্টে থাকতে পারবেন না। সফরকারী দলের ক্যাম্পের সাতজন আক্রান্ত হয়েছেন, তাদের মধ্যে কোনো খেলোয়াড় নেই। একই দিন আইসিসির ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুনের পজেটিভ আসে। সিডনিতে তার ম্যাচ পরিচালনা করার কথা ছিল। তার বদলে ম্যাচ রেফারির দায়িত্ব পেয়েছেন নিউ সাউথ ওয়েলসের স্টিভ বার্নার্ড। এর ফলে সিডনিতে অ্যাশেজ সিরিজের চতুর্থ টেস্ট ঘিরে শঙ্কা বাড়ছেই। কিন্তু ইংলিশ শিবিরে করোনার খবর পাওয়া গেলেও তৃতীয় টেস্টটি মাঠে গড়িয়েছিল। এবার করোনা হানা দিল অজিদের ড্রেসিংরুমেও। এমনকি ট্রাভিস হেড করোনা পজেটিভ হওয়ায় অস্ট্রেলিয়া দলের মেলবোর্ন থেকে সিডনির ফ্লাইট বিলম্বিত হয়েছে। সেই সঙ্গে অজিদের বাকি সব খেলোয়াড়, তাদের পরিবার এবং কোচিং স্টাফ পিসিআর ও র‌্যাপিড টেস্ট করিয়েছেন। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) এক মুখপাত্র বলেন, গোটা প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবেই আমরা খেলোয়াড়, তাদের পরিবার ও কোচিং স্টাফদের প্রতিদিন পিসিআর পরীক্ষা করাচ্ছি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে হেড কোভিড পজেটিভ হয়েছেন।
এছাড়া ঘরের মাঠে অ্যাশেজ ধরে রাখার পথে প্রথম তিন টেস্টের সবকটির একাদশে ছিলেন তিনি। তার জায়গায় চতুর্থ টেস্টে উসমান খাজাকে দেখতে পাওয়াটা একরকম নিশ্চিতই। অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং পজিশনের পাঁচ নম্বর জায়গা নিয়ে হেডের সঙ্গে লড়াই ছিল এই খাজারই।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়