বর্ণমালার খেলা

** সৈয়দ মাশহুদুল হক ** মাগো আমায় দাও না এনে বর্ণমালার বই বর্ণের সঙ্গে থাকে যেন ছবি মানানসই। বর্ণ পড়ে দেখব ছবি খুঁজব তাদের মুখ যাদের কথা প্রায়ই বলো গর্বে ফুলাও বুক।... বিস্তারিত

মুখের ভাষা

** নূর আলম গন্ধী ** বাংলা আমার আশা বাংলা আমার ভাষা বাংলা আমার মুখে হাজার দুঃখ-সুখে। বাংলা আমার প্রাণে বাংলা আমার গানে বাংলা আমার বর্ণমালা বিশ্ববাসী জানে। বাংলা জীবন ছন্দে বাংলা হাসি... বিস্তারিত

পাজি কুটুম

** রুবেল হাবিব ** ইষ্টিকুটুম মিষ্টি কুটুম বিশটি কুটুম এল লিস্টি করে ইষ্টিকুটুম মিষ্টি নিয়ে গেল। দাদায় ছিল খালে পাড়ে কে দেবে কে খবর তারে দাদিজানে ডাকে বিশ কুটুমে বিশ দিকে যায়... বিস্তারিত

বাবা ও আমি

** কবির কাঞ্চন ** বাবা আমার সবচে’ প্রিয় মাথার ওপর ছাতা শীতের দিনের সবচে’ প্রিয় নরম বুকের কাঁথা। গরমের দিনে লোডশেডিংয়ে পাখার বাতাস পেয়ে আমি ঘুমাই, বাবা ঘামায় সারা শরীর বেয়ে। বৃষ্টি... বিস্তারিত

ছুটে বেড়াই

** দিলরুবা পুষ্প ** পড়তে আমার ভাল্লাগে না পড়া হলো দায়, এদিক-ওদিক সারাটা দিন ছুটতে এ মন চায়। বইয়ের পাতায় বন্দি হয়ে থাকে না এই মন, চারপাশের এই প্রকৃতিটা ভাবায় সারাক্ষণ। ডাকে... বিস্তারিত

হিম শিশির

** নাহিদ নজরুল ** পুবাকাশে সোনারবি হাসে অফুরান মিটিমিটি আলো সে যে যায় রে করে দান। শিশিরের ঐ ফোঁটাগুলো করে যে চিকচিক! রোজ সকালের প্রতিকৃতি করে রে ঝিকমিক। গাছে গাছে পায় যে... বিস্তারিত

লালপোকা

** মোস্তাফিজুল হক ** সকালের মিঠে রোদে লালপোকা হাসে, হেলেদুলে হেঁটে চলে বাগানের ঘাসে। ঘন কালো মেঘে মেঘে আকাশটা ডাকে, লালপোকা ঠাঁই নেয় দেয়ালের ফাঁকে। ছোট খুকি দেখে ওটা চোখে ধরে রাখে,... বিস্তারিত

একুশ হলো

** হুমায়ুন আবিদ ** একুশ হলো পাক শাসকের ভাষা নিয়ে ত্রাস ভাইয়ের রক্তে রাঙানো মাস করুণ ইতিহাস। একুশ হলো মায়ের বুকে ছেলেহারা শোক বৃৃদ্ধ বাবার করুণ চাহনি কান্না ভরা বুক। একুশ হলো... বিস্তারিত

হাতি ও মশা

* * মোনোয়ার হোসেনা ** শীতের রাত। কনকনে শীত পড়ছে। শীতের জন্য খুকি আজ আগেভাগেই তার লেখাপড়া শেষ করে ফেলেছে। এখন সে মোটা কাপড় পরে লাল মখমল কম্বল মুড়ি দিয়ে বিছানায় শুয়ে... বিস্তারিত

চলরে চল

** অপু চৌধুরী ** কালকে ছুটি চলরে ফুটি মামার বাড়ি চল মিষ্টি রোদে হাঁটবো গাঁয়ে করব কোলাহল। মামার বাড়ি পুকুর জলে পরিযায়ী পাখি শীত সকালে ডুবসাঁতারে করে মাখামাখি। মামার বাড়ি উঠোন ঘিরে... বিস্তারিত

ভূতের বাড়ি : আলাউদ্দিন হোসেন

মধ্যরাতে ভূতের বাড়ি থাকে আলোকময় আগুন নিয়ে খেলা করে লোককে দেখায় ভয়! প্রতি রাতে আড্ডা দেয় আর চুপ থাকে সব দিনে লোক ঠকানো বুদ্ধি যত ভাবে মনে মনে! সন্ধ্যাকালে ঘুরে ঘুরে খবর... বিস্তারিত

বইয়ের ঘ্রাণ : শশধর চন্দ্র রায়

নতুন বইয়ের পাতায় পাতায় মধুরতার ঘ্রাণ, কেড়ে তো নেয় খোকন সোনার হৃদয়, মন ও প্রাণ। আলসে খোকন থাকে না আর ভোরবেলায় শুয়ে, সুয্যিমামা জাগার আগেই চোখ-মুখ নেয় ধুয়ে। নতুন বইয়ের মধুর ঘ্রাণে... বিস্তারিত

শীতের দৈত্য : মুহাম্মদ আল মমিন

সবাই বলে শীতের বুড়ি আমি বলি দৈত্য, শীতটা নিয়ে এলোই যেন হাড় কাঁপানো শৈত্য! শীতটা যদি বুড়িই হয়, বয়সটা দশ কুড়িই হয়; শক্তি কি তার অতো? থুত্থুরে এক বুড়ি কি হয় ডাইনোসরের... বিস্তারিত

জলপরী ও রাজকুমার : সোহেল রানাা

রাজকুমার নৌভ্রমণে যাবেন বলে ঠিক করলেন। তার বন্ধুসহ কয়েকজন সৈন্যসামন্ত নিয়ে কয়েকদিনের মধ্যে ভ্রমণের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করলেন। পথিমধ্যে ঝড়ে তাদের নৌবহর সমুদ্রের মাঝে ডুবে গেল। অনেকেই সাঁতরিয়ে তীরে উঠে এলেও রাজকুমার... বিস্তারিত

শীতের পিঠা : মোহাম্মদ অংকন

এক দেশে শীতকালে খুব শীত পড়ত। তাই শীতকাল এলে রাজা ভীষণ দুশ্চিন্তায় পড়ে যেতেন। শীতের দাপটে রাজ্য পরিচালনা করা বেশ কষ্টকর হয়ে যেত। তারপরও শীতকে সহ্য করে সবাইকে বেঁচে থাকত হতো। একবার... বিস্তারিত

সফলতা : নাহিদ নজরুল

সফলতার হাতছানিটা চাও’রে পেতে যদি চেষ্টা করে যাও অবিরাম চলতে নিরবধি। দিলটা রেখো কলুষ মুক্ত ভরে না য্যান কাদা! সব ডিঙিয়ে পৌঁছে যাবে আসুক যতই বাধা। তবেই তুমি দেখতে পাবে সফলতার মুখ... বিস্তারিত

খুকুমণি : খায়রুল আলম (রাজু)

নিত্য ভোরে পাখির গানে খুকুমণি উঠে, বাড়ির পাশে ফুল বাগে জুঁই-জবা ফোটে। প্রজাপতি উড়ে ফুলে আজ তার বিয়ে, খুকুমণি মালা গাঁথে জুঁই-জবা দিয়ে। খুকুমণি মায়ের হাতে দুধ-ভাত খাবে! বিয়ে শেষে খুকুমণি পাঠশালা... বিস্তারিত

সোনার মানুষ : জয়নব জোনাকি

আমরা শিশু রাতের শেষে মেঘের নদে ভেসে ভেসে চাঁদের ভেলায় চড়ব, প্রভাত রবির চূড়া বেয়ে- আলো হয়ে ঝরব। মিথ্যে কথা বলব না আর হেলায় খেলায় চলব না আর পাঠে দুচোখ মেলব, ঝগড়া... বিস্তারিত

বাংলা আমার : মীর নজরুল ইসলাম

হেসে খেলে দোলনায় দোলে বেড়ে-উঠি মোরা বাংলা মায়ের-কোলে; আকাশে বাতাসে আনন্দস্রোতে ভেসে বাংলা-ধ্বনী-স্বরে ঋদ্ধ মোর কণ্ঠ-বোলে। বাংলা আমার বাংলা তোমার সোনার বাংলা জন্মদাত্রী মা-আমার; মুটে চামার কুলি চাষার সুজলা-সুফলা বাংলা মোদের আবালবৃদ্ধবনিতার।... বিস্তারিত

ও জোনাকি : সুমন বনিক

ও জোনাকি একটু দাঁড়াও দুটো কথা বলো রাতের বেলায় বাতি নিয়ে কেমন করে চলো। সুয্যিমামার বন্ধু তুমি তাই কী পাও আলো সন্ধ্যারাতে মিটি মিটি তারার আলো জ্বালো। আঁধার পথে হাঁটতে গিয়ে হোঁচট... বিস্তারিত

Bhorerkagoj