কুটুম পাখি : আহাদ আলী মোল্লা

গো ধরে বসে থাকে সোজি। সে কিচ্ছু খাবে না। এমনকি পানিটুকুও মুখে দেবে না আর। আগে পাখির মাংস সরাও। তারপর খাওয়ার কথা বলো। কাটতি কবুল। যে কথা সেই কাজ সোজির। দুপুর গড়িয়ে... বিস্তারিত

আমার বাড়ি : মতিয়ার রহমান

ছিল কত সুন্দর চিলমারী বন্দর! গরু-গাড়ির ঐতিহ্যের সুখী জনপদ কেড়ে নিল সব রাক্ষস ব্রহ্মপুত্র নদ। নদের এমনই ভাঙন ভাঙে মন বাড়ি প্রাঙ্গণ। বুকটা জুড়ে হাহাকার দুঃখ বারো মাস অনাহারী মানুষগুলো জীবন্ত লাশ।... বিস্তারিত

ইঁদুর : আজিম হোসেন

ইঁদুর বেটা আয়েশ করে খাচ্ছে ঘরের তরকারি যখন-তখন রাত-দুপুরে কাটছে কাগজ দরকারি। ঘুম কাড়ে সে সঠাৎ-সঠাৎ কুটুস কাটুস আওয়াজে চমকে উঠি নিত্য রাতে ইঁদুর বেটার রেওয়াজে। ইঁদুর মারার গ্যাঁরাকলেও যায় না ইঁদুর... বিস্তারিত

শিয়াল মামা : স্বপন শর্মা

শিয়াল মামা আর খাবে না আগের মতো রোজ, আর নিবে না অন্যের ঘরে মুরগি ছানার খোঁজ। মামা ভাবেন বসে- নিজে এবার খামার দিবে পাক্কা হিসেব কষে। চশমা চোখে শিয়াল মামা ভাবে উপরি... বিস্তারিত

এক মায়ের গল্প : রহীম শাহ

এক দেশে সাগর পাড়ের একটি গ্রাম। সেই গ্রামে ছিল এক জমিদার। জমিদারের প্রচুর ধনসম্পদ ছিল। একদিন সাগরে ঝড় উঠল। সে কি তুমুল ঝড়। সাগরে ভাসা নৌকাগুলো উল্টে যেতে লাগল। গাছপালা ভাঙতে লাগল।... বিস্তারিত

শীত : জুলফিকার আলী

শীত সময়ে ঘরে ঘরে পিঠাপুলির আমেজে, বাঁধাকপি, ফুলকপি আর সবজি কত নামে যে। ধনেপাতা, বরবটি, শিম রান্নায় এমন পর্বটি, শীতে এসব সবজি বাড়ায় পৌষ-মাঘের গর্বটি। মাঠজুড়ে যে টমেটো আর আছে মটরশুঁটি যে,... বিস্তারিত

পল্লী গাঁও : আব্দুর কিব

হাড় কাঁপুনি হিমেল হাওয়ায় কাঁপে প্রাণের ভীত ভোরের হাওয়ায় ভাসে করুণ ঝরা পাতার গীত। শিশির ভেজা পাখির পালক নীরব গানের বীণ গাঁদা বেলি ডেইজি বাগে নাই ভোমরার চিন। মায়ের শাড়ির কাঁথা মোড়ে... বিস্তারিত

রাজা : আব্দুস সালাম

একটি সাগরের পাশে ছিল একটি বিশাল বড় রাজ্য। সেই রাজ্যটি ছিল খুবই সুন্দর। সেই রাজ্যে কোনো কিছুরই অভাব ছিল না। এই রাজ্যের বেশিরভাগ লোকজন ছিল ধনী। তাই এই রাজ্যের রাজাও ছিল বেশ... বিস্তারিত

বাবা : আহাদ আলী মোল্লা

ফেলে আসা দিন মনে পড়ে খুব ছেলেবেলা কাছে ডাকে, ব্যথা ভরা মন স্মৃতির পাতায় বাবার ছবিটা আঁকে। আঁতিপাঁতি খুঁজি এখানে ওখানে হয়তো বাবাকে পাব, তার সাথে ফের কদমতলীর বোশেখি মেলায় যাব। কিন্তু... বিস্তারিত

বিভক্ত : সাঈদ চৌধুরী

মানুষগুলো সব কেমন যেন উঁচু আর নিচুতে বিভক্ত একই রক্ত একই মাংসে তবুও থেকে যায় অনেক দ্ব›দ্ব কারো মন নয় সহনীয় কেউ যেন নেই থেমে একের পর এক ইট দিচ্ছে অহমিকার লাল... বিস্তারিত

স্মৃতি : মতিয়ার রহমান

বাঁশবাগানের ঝোপের ধারে সাঁঝের বেলা জোনাক পোকা এখন দেখি আর জ্বলে না হরেক ফুলের গন্ধের বাতাস আর চলে না দাওয়ায় বসে ফোকলা মুখে দাদিও আমার আগের মতো ডাইনি বুড়ির গল্প বলে না।... বিস্তারিত

গল্প : দীপক চক্রবর্তী

একটা গল্প বলি শোন গল্পটা ভয়ঙ্কর, যুদ্ধ করে আনল বিজয় বিজয় আমার অহংকার। মাতৃভূমি রক্ষা করতে অস্ত্র কাঁধে চলি, শহীদ রক্তে অর্জিত সেই বিজয় গল্প বলি। পাকসেনারা চালায় গুলি মারল জ্ঞানী-গুণী, আগুন... বিস্তারিত

পুতুল বিয়ে : মেহেদী হাসান হিমেল

আমি ও আমার বড় ভাই পুতুল বিয়ে দেব বলে ঠিক করলাম। কাপড়ের পুতুল। নিজেদের হাতেই তৈরি করেছি। পুতুলের জন্য জামাও বানিয়েছি। একটু সাজগোজ না করলে চলে? পুতুল দুটোর একটাও কথা বলতে পারে... বিস্তারিত

মন চায় : আলমগীর কবির

উড়ে যেতে নেই মানা নেই তাতে ভুল, মন চায় পাখি হতে কখনো বা ফুল। আঁকাবাঁকা সবুজের পথ আছে যত, মন চায় পাড়ি দিতে বাউলের মতো। ফড়িঙের পিছু পিছু খোকনের সাথে, মন চায়... বিস্তারিত

স্বপ্ন : সৈয়দ শরীফ

স্বপ্ন ছিল আকাশ হবো মাখতে গায়ে নীল, আমার মাঝে উড়বে হেসে নানান শঙ্খচিল! স্বপ্ন ছিল নদী হবো পদ্মা-মেঘনার মতো, আমার কোলে ধরবে যে মাছ জেলে আছে যত। স্বপ্ন ছিল বৃক্ষ হবো বিরাট... বিস্তারিত

শীতের বুড়ি : নূর মোহাম্মদ দীন

শীতের বুড়ি আসলো দেশে হিম কুয়াশা শীতল বেশে। দেশ কাঁপাতে, জন কাঁপাতে হাড় কাঁপানো শীত নামাতে। হাড় কাঁপিয়ে শীতের বুড়ি দেখাবে তার বাহাদুরি। শীতের বুড়ি দুষ্টু ভারি হও হুঁশিয়ার তাড়াতাড়ি।... বিস্তারিত

শত্রুতা : মো. মাহমুদুল আলম

ঘাপটি মেরে থাকে শত্রু চেনা যায় না তারে সুযোগ পেলে করে ক্ষতি আঘাত করে ঘাড়ে। ভালো কাজে দিয়ে বাধা মুচকি মুচকি হাসে মন্দ কাজে হয়ে খুশি থাকে পাশে পাশে। এমন শত্রু নিজে... বিস্তারিত

বিজয় : দীপক চক্রবর্তী

বিজয় হলো মাতৃভূমি রক্ষা করা, একটা ¯েøাগান বিজয় হলো বাঙালিদের রক্তে গড়া, একটা অবদান। বিজয় হলো সকালবেলার লাল সূর্য, শিশুর মুখের হাসি বিজয় হলো মাঠে চরা রাখাল ছেলের, মধুর সুরের বাঁশি। বিজয়... বিস্তারিত

চিঠি : সাহিদা সাম্য লীনা

দাওয়ায় বসে আমেনা লাউ কুটছে। গত রাতে আবুল চাচা সদাই করে দিছে আমেনাকে। কুচো চিংড়িগুলো রাতেই বেছে রাখছে। গোস্তটাও কষানো আছে। সাথে হবে আরো মাষকলাইয়ের ডাল। লাউ, গোস্ত আর কলাইর ডাল হলে... বিস্তারিত

আজিম হোসেন

টিয়ে পাখির ঠোঁটটি রঙিন সবুজ জামা গায়ে, রঙের জাদু মাখা যেন রাঙা দুটি পায়ে। সচরাচর যায় না দেখা এদিক-সেদিক ঘুরতে, হঠাৎ-সঠাৎ যায় যে দেখা আকাশ পানে উড়তে। খোকা-খুকি সবার প্রিয় রঙিন টিয়ে... বিস্তারিত

Bhorerkagoj