নতুন রাজনৈতিক দল নিবন্ধনের গণবিজ্ঞপ্তি

আগের সংবাদ

অনুমোদনহীন ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার : অভিযানে বন্ধ অনেক প্রতিষ্ঠান

পরের সংবাদ

বিশ্ব মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা দিবস আজ

প্রকাশিত: মে ২৮, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মে ২৮, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : নারী জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি দিক হলো মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা (মেনস্ট্রুয়াল হাইজিন)। কিন্তু বিশ্বের একটি বড় অংশ, বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে এই দিকটি এখনো উপেক্ষিত। অনেকে বিষয়টিকে একেবারেই ব্যক্তিগত বিষয় বলে মনে করেন এবং এ নিয়ে কথা বলতে লজ্জা পান কিংবা অস্বস্তিবোধ করেন। অজ্ঞতার কারণে নারীর স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ছে। সেই অসুবিধার কথা মনে রেখে, একটি জার্মান স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে ২০১৪ সাল থেকে সারা বিশ্বে ২৮ মে পালিত হয়ে আসছে মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা দিবস। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য হলো- ‘২০৩০ সালের মধ্যে পিরিয়ডকে জীবনের একটি স্বাভাবিক ব্যাপার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা’।
২০২১ সালে প্রকাশিত এক সমীক্ষার তথ্য অনুযায়ী, প্রায় ৯০ শতাংশ স্কুলপড়ুয়া মেয়ে ফার্মেসিতে যেতে লজ্জা পাওয়ার কারণে, পরিবারের অসহযোগিতার কারণে এবং বাজারে উচ্চমূল্যের কারণে মাসিক সুরক্ষাপণ্য ব্যবহারে অনীহা প্রকাশ করে। ন্যাশনাল হাইজিন বেজলাইন সমীক্ষা অনুযায়ী, মাত্র ১০ শতাংশ স্কুলপড়ুয়া কিশোরী তাদের মাসিকের সময় স্যানিটারি প্যাড ব্যবহার করে। ৮৬ শতাংশ কিশোরী পুরনো কাপড় বা ন্যাকড়া ব্যবহার করে। এর মধ্যে মাত্র ১১ শতাংশ মেয়ে সঠিক নিয়ম মেনে কাপড় ব্যবহার করে। বাকিরা ঘরের কোণায় কাপড় রাখে, যা সম্পূর্ণভাবে জীবাণুমুক্ত করার আগেই ফের ব্যবহার করে। বাংলাদেশের প্রাপ্তবয়স্ক নারীদের যারা ঘরে থাকেন এবং কর্মজীবী নন, তাদের মধ্যে স্যানিটারি ব্যবহারের প্রবণতা মাত্র ১২ শতাংশ। দীর্ঘদিন অপরিষ্কার কাপড় ব্যবহারের ফলে নারীদের জরায়ুমুখের ক্যান্সার ও ইনফেকশন সমস্যা দেখা দেয়। দেশে প্রতি বছর ১৩ হাজার নারী মারা যাচ্ছে জরায়ুমুখের ক্যান্সারের কারণে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়