নাসির-তামিমার বিয়েকাণ্ডে মামলা : অভিযোগ গঠনের আদেশ ৯ ফেব্রুয়ারি

আগের সংবাদ

ক্লিনিক্যাল গাইডলাইন চূড়ান্ত : যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন তথ্য, আইসোলেশনের সময়সীমা ৫ দিনের বেশি চান বিশেষজ্ঞরা

পরের সংবাদ

একদিনে শনাক্ত ১৩৪৮ : চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বগতি

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৬, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৬, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রামে করোনার সংক্রমণ ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ছে। প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়ছে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের শনাক্তের হার। শিথিল বিধিনিষেধের কারণে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, মাস্ক পরিধান করা এবং ভিড় এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা।
গতকাল মঙ্গলবার চট্টগ্রামে করোনা শনাক্ত হয় ১ হাজার ৩৪৮ জনের। শনাক্তের হার ৩৬ দশমিক ৫৪ শতাংশ। জানুয়ারি মাসের প্রথম ২৫ দিনে শনাক্ত ১১ হাজারের কাছাকাছি। অথচ এর আগের তিন মাসে এক হাজার রোগীও শনাক্ত হয়নি। নতুন বছরের প্রথম দিনে (১ জানুয়ারি) ৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে দ্রুতগতিতে বাড়তে থাকে সংক্রমণ।
জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় ১২টি ল্যাবে ৩ হাজার ৬৮৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৩৪৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গত প্রায় ছয় মাসে একদিনে এত করোনা রোগী চট্টগ্রামে শনাক্ত হয়নি। এই সময়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। সাড়ে তিন মাস পর একদিনে এত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। সর্বশেষ গত বছরের ৬ অক্টোবর একদিনে তিনজনের মৃত্যুর তথ্য পাওয়া গিয়েছিল। নতুন শনাক্ত ১৩৪৮ জনের মধ্যে ৯১৯ জন মহানগরের এবং ৪২৯ জন উপজেলার বাসিন্দা।
সরকারি হিসাব অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত চট্টগ্রামে মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১ লাখ ১৩ হাজার ৪৬০ জন। এর মধ্যে নগর এলাকায় ৮২ হাজার ৭৮০ জন এবং উপজেলায় ৩০ হাজার ৬৮০ জন। এছাড়া মোট মারা যাওয়া ১ হাজার ৩৪৬ জনের মধ্যে ৭২৮ জন নগরের এবং ৬১৮ জন উপজেলার বাসিন্দা। চট্টগ্রামে ২০২০ সালের ৩ এপ্রিল প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। এরপর ওই বছরের ৯ এপ্রিল প্রথম কেউ মারা যান।
স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে চট্টগ্রামের পর্যটন স্পটগুলোতে এখনো ভিড় করতে দেখা যাচ্ছে। গণপরিবহন, শপিংমল, পর্যটন স্পট কোথাও পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হচ্ছে না। স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে মানুষের উদাসীনতা ও অবহেলায় সংক্রমণ বাড়ছে।
চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রামে বিধিনিষেধের মধ্যেও মাস্ক ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধির ক্ষেত্রে মানুষ উদাসীন। সার্বক্ষণিক মাস্ক ব্যবহার এবং সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সেই সঙ্গে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে। না হলে হু হু করে বাড়বে সংক্রমণ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়