এবার রাজধানীতে গাড়িচাপায় সাইকেল আরোহী নিহত

আগের সংবাদ

প্রতিকারহীন মৃত্যুর মিছিল!

পরের সংবাদ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা : ওমিক্রন নিয়ে আতঙ্ক নয়

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ ডেস্ক : কোভিড-১৯ এর নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে বিশ্বের আতঙ্কিত না হয়ে প্রস্তুত থাকা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার শীর্ষ বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথন। এক বছর আগের তুলনায় পরিস্থিতি এখন পুরোপুরিই ভিন্ন, শুক্রবার এক সম্মেলনে তিনি এমনটাই বলেছেন।
নভেম্বরের শেষ দিকে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়ার পর মাত্র অল্প কদিনেই বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি মিলেছে। এখন পর্যন্ত পাওয়া খবরে বিশ্বের প্রায় ৪০টি দেশে করোনা ভাইরাসের নতুন এ ভ্যারিয়েন্টটি পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।
ভ্যারিয়েন্টটির জিন বিন্যাসের পরিবর্তন বা মিউটেশনের সংখ্যা অনেক বেশি হলেও এটি অন্য ভ্যারিয়েন্টগুলোর তুলনায় বেশি সংক্রামক কিনা এবং ভ্যাকসিনের সুরক্ষা এড়িয়ে যেতে সক্ষম কিনা তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিজ্ঞানীদের কাছে থাকা প্রাথমিক তথ্যউপাত্তে ভ্যারিয়েন্টটি কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে কার্যকর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার কিছু অংশকে এড়িয়ে যেতে পারে বলে ইঙ্গিত মিললেও বিশ্লেষণটি চূড়ান্ত নয় বলে মত অনেক বিশেষজ্ঞের। স্বামীনাথন দক্ষিণ আফ্রিকার তথ্যউপাত্তের ভিত্তিতে ওমিক্রনকে ‘অতি সংক্রামক’ অ্যাখ্যা দিয়ে বলেছেন, ভ্যারিয়েন্টটি সম্ভবত বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের অন্যসব ভ্যারিয়েন্টকে হটিয়ে নিজের আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করবে, যদিও এই বিষয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা কঠিন। বিশ্বজুড়ে এখন করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের ৯৯ শতাংশের দেহেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট মিলেছে জানিয়ে তিনি বলেন, কতটা চিন্তিত হবো আমরা? আমাদের সতর্ক এবং প্রস্তুত থাকতে হবে। আতঙ্কিত নয়, কেননা এক বছর আগের তুলনায় আমরা এখন ভিন্ন পরিস্থিতিতে আছি।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরিবিষয়ক প্রধান মাইক রায়ান বলেছেন, কোভিড মোকাবিলায় বিশ্বের হাতে এখন ‘খুবই কার্যকর ভ্যাকসিন’ আছে এবং আরো ব্যাপকভাবে সেসব ভ্যাকসিন বিতরণের দিকেই সবার মনোযোগ থাকা উচিত। ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের জন্য এখনকার ভ্যাকসিনের বদলে নতুন ভ্যাকসিন বানানো লাগবে- এখন পর্যন্ত এ ধারণার সমর্থনে কোনো তথ্যপ্রমাণ পাওয়া যায়নি বলেও জানান রায়ান।
ভ্যারিয়েন্টটি নিয়ে উদ্বিগ্ন বিভিন্ন দেশ এরই মধ্যে আফ্রিকার দক্ষিণের দেশগুলোর ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। মার্কিন কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রগামী সব আন্তর্জাতিক ভ্রমণার্থীদের জন্য যাত্রা শুরুর আগের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোভিড পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করেছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত হাওয়াইসহ ৬টি রাজ্যে ওমিক্রনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। হাওয়াইতে যার দেহে ভ্যারিয়েন্টটি শনাক্ত হয়েছে তার সাম্প্রতিক কোনো ভ্রমণের ইতিহাস নেই বলে কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।
ভারতেও দুজনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৬৬ বছর বয়সি দক্ষিণ আফ্রিকার নাগরিক ভারতে নামার কয়েক দিনের মাথায় দেশটি ছেড়েও গেছেন। দ্বিতীয় যার দেহে ওমিক্রনের উপস্থিতি মিলেছে তার বয়স ৪৬; ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর বেঙ্গালুরুর এ চিকিৎসকের সাম্প্রতিক ভ্রমণের ইতিহাস নেই।
চলতি বছরের এপ্রিল ও মে-তে কোভিড সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ ভারতের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাপনাকে খাদের কিনারে নিয়ে গিয়েছিল; হাসপাতালগুলোতে শয্যা, অক্সিজেন ও ওষুধের ভয়াবহ সংকট তৈরি হয়েছিল। ওমিক্রনের আবির্ভাবের কিছুদিন আগে থেকেই কোভিড সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিতে ইউরোপের অনেকগুলো দেশ হিমশিম খাচ্ছিল। ওমিক্রন সেসব দেশের উদ্বেগ আরো বাড়িয়ে দিয়েছে।
নতুন পরিস্থিতিতে গত বৃহস্পতিবার জার্মানি টিকা না নেয়া নাগরিকদের ওপর ব্যাপক বিধিনিষেধ আরোপ করায় দেশটিতে এখন কেবল টিকা নেয়ারা এবং মাত্রই কোভিড থেকে সেরে ওঠারাই রেস্তোরাঁ, সিনেমা হল ও বেশিরভাগ দোকানপাটে যেতে পারবেন।
কয়েক দিনের মধ্যে বিদায় নিতে যাওয়া দেশটির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেল বলেছেন, জার্মানিতে ফেব্রুয়ারি থেকে সবার জন্য টিকা বাধ্যতামূলক হতে পারে। প্রতিবেশী অস্ট্রিয়া এরই মধ্যে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশটির বাসিন্দাদের জন্য টিকা নেয়া বাধ্যতামূলক করেছে। সংক্রমণ মোকাবিলায় নেদারল্যান্ডস ও বেলজিয়ামও আগের অনেক বিধিনিষেধ ফিরিয়ে এনেছে বা বিদ্যমান বিধিনিষেধকে আরো কঠোর করেছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়