পাসপোর্ট ডিজির সঙ্গে ব্রাজিল রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

আগের সংবাদ

ই-কমার্স গ্রাহকের টাকার কী হবে

পরের সংবাদ

মায়াডোর

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৩, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৩, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

সময়টা তার ইচ্ছেমতো চলছে
কেবল স্থবির হয়ে গেছে মন;
অহর্নিশ ডেকে যায় অস্থির ডাহুক
নির্দ্বিধায় দূর থেকে চেয়ে থাকে শকুনি।

ঘড়ির কাঁটা হঠাৎ ভাঙে নীরবতা
কাঁপে বুক- কেঁপে ওঠে গভীর নিস্তব্ধতা
টিকটিকির ডাক অসহ্য হয়ে ওঠে
জানালায় রোদটাও ভালো লাগে না আর
রংহীন-ফিকে অচেনা আকাশ;
আড়ষ্ট অন্ধকার সন্নিকটে
হারিয়ে যাচ্ছে ইচ্ছে ঘুড়ির দিন।

বড় কষ্ট হয় আজ বুকের কাছে;
কতটা দিন-মাস পার হয়ে গেল
ক্লান্ত মন-ঘুমহীন চোখের বৃত্তে
অন্ধকারের প্রতিচ্ছবি দৃশ্যমান।
বর্ণহীন রুক্ষ খসখসে চুল চিরুনিটাকে
ঠিক অক্টোপাসের মতো আঁকড়ে ধরে।
ব্যথাতুর অভিমানী অনুভূতিগুলো তবুও;
অপেক্ষায় থাকে সুদিনটাকে ভালোবেসে।

এভাবেই নিয়তির খেলায় কাটছে দিন;
যদি কাটে মহামারি অমানিশা ঘোর
হয়তো পাবো ফিরে আবার নতুন করে
নিরুদ্বেগ নির্ভার প্রাণোচ্ছল মায়াডোর।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়