×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

রাজনীতি

আনার হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে হঠাৎ বদলি

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০২ জুন ২০২৪, ১১:৫৫ পিএম

আনার হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে হঠাৎ বদলি

আনোয়ারুল আজিম আনার

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারকে অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় ঢাকায় হওয়া মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এডিসি শাহিদুর রহমানকে হঠাৎ বদলি করা হয়েছে। রবিবার (২ জুন)  পুলিশ সদর দপ্তরের আদেশে তাকে বদলি করে বরিশাল জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। 

শাহিদুর রহমান ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা (ডিবি) ওয়ারী বিভাগের এডিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। ডিবির এই কর্মকর্তা ঘটনা তদন্তে যখন নেপাল অবস্থান করছেন, তখনই পুলিশ সদর দপ্তর থেকে তার বদলির প্রজ্ঞাপন হলো। গতকাল একই প্রজ্ঞাপনে আরো ২২ কর্মকর্তাকে বদলি করেছে পুলিশ সদর দপ্তর। কলকাতায় গিয়ে এমপি আনার নিখোঁজের পর থেকেই ডিবি কর্মকর্তা শাহিদুর ঘটনাটি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছিলেন। 

এর আগে, মতিঝিলে আওয়ামী লীগ নেতা টিপু হত্যার তদন্তেও মুন্সিয়ানা দেখিয়েছিলেন ডিবি কর্মকর্তা শাহিদুর। বিদেশ থেকে আসামি ধরে দেশে ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে তিনি দক্ষতার পরিচয় দেন। আনার হত্যার তদন্ত চলাকালে শাহিদুরের এই বদলিকে ঘিরে তৈরি হয়েছে নানা গুঞ্জন। ঠিক কী কারণে তাকে বদলি করা হয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পুলিশ সদর দপ্তর বলছে, এটা নিয়মিত বদলি। তবে ডিবির এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, এই বদলির তালিকা অনেক আগেই হয়েছিল। হয়ত সেই তালিকাটিই রবিবার পুলিশ প্রধান সই করেছেন। শাহিদুর যে এমপি হত্যার ঘটনার মতো গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা তদন্তে রয়েছেন, তা হয়ত চোখ এড়িয়েছে।

সূত্র বলছে, এমপি আনারের নির্বাচনী এলাকাতেই এডিসি শাহিদুরের বাড়ি। তার বদলিতে এটি ইস্যু হয়েছে কি না, তাও আলোচনায় রয়েছে।  রবিবার পুলিশ সদর দপ্তর থেকে প্রকাশিত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, শাহিদুরসহ ১১ জন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে বদলি করা হয়েছে। এছাড়া, ১২ জন সহকারী পুলিশ সুপারকে একই আদেশে বদলি করেছে পুলিশ সদর দপ্তর।

উল্লেখ্য, গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য কলকাতায় যান টানা তিনবারের এমপি ও ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম। পরে তিনি নিখোঁজ হন। একপর্যায়ে খবর পাওয়া যায়, গত ১৩ মে তিনি সেখানে খুন হন। আর এই হত্যার পরিকল্পনা করেন তার যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী বন্ধু আক্তারুজ্জামান শাহীন। এই ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি হত্যা মামলা ও লাশ গুমের মামলা করেন আজীমের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।  

টাইমলাইন: ভারতে এমপি আজিম হত্যাকাণ্ড

আরো পড়ুন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App