×

জাতীয়

মিরনজিল্লা সিটি কলোনিতে বাসিন্দারের উচ্ছেদের তীব্র নিন্দা

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০২৪, ১১:০৫ পিএম

মিরনজিল্লা সিটি কলোনিতে বাসিন্দারের উচ্ছেদের তীব্র নিন্দা

ছবি: সংগৃহীত

মিরনজিল্লা সিটি কলোনিতে স্থানীয় কাউন্সিলরের নেতৃত্বে হামলার নিন্দা ও হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিসহ শত শত বছরের বাসস্থান থেকে বাসিন্দাদের উচ্ছেদ করে জমি দখল করার পাঁয়তারা রুখে দেয়ায় আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি-সিপিবি ও বাসদ (মার্কসবাদী)। বুধবার (১০ জুলাই) দল দুটির পক্ষ থেকে এ প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান হয়।

সিপিবির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদ এবং বাসদ- (মার্কসবাদী) এর কেন্দ্রীয় নির্বাহী ফোরামের সমন্বয়ক মাসুদ রানা পৃথক বিবৃতিতে বলেন, মিরনজিল্লা হরিজন কলোনির বাসিন্দাদের মাদক ব্যবসায়ী ও কিশোর গ্যাং আখ্যা দিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাচ্ছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (মার্কসবাদী)। একই সাথে অবিলম্বে উচ্ছেদ বন্ধ করে মিরনজিল্লার ভূমি মিরনজিল্লাবাসীর নামে স্থায়ী বরাদ্দ দেয়ার দাবি জানান হয়।

বুধবার ( ১০ জুলাই) সংবাদ সম্মেলন চলাকালে আবাসনের বরাদ্দপ্রাপ্তদের হাতে চাবি তুলে দেয়ার কথা বলে একজন ম্যাজিস্ট্রেট পুলিশসহ কলোনিতে আসেন। তার সঙ্গে ৩৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী এম এ আউয়াল প্রায় দেড়শত জনের একটি বিশাল বাহিনী নিয়ে কলোনিতে প্রবেশ করতে চান। 

এই কাউন্সিলর আউয়ালের নেতৃত্বে গত ১০ জুন এই কলোনির একাংশ ভেঙে দিয়ে অনেক পরিবারকে পথে বসানো হয়। ফলে কাউন্সিলর ও তাদের সন্ত্রাসী বাহিনীকে কলোনিতে ঢুকতে নিষেধ করার জন্য কলোনিবাসী ম্যাজিস্ট্রেটকে অনুরোধ করেন। কিন্তু কাউন্সিলরের বাহিনী জোর করে ঢোকার চেষ্টা করে এবং একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র, রড, ইট, কাঠ ইত্যাদি দিয়ে কলোনিবাসীর উপরে হামলা চালায়। এই হামলায় প্রায় ৩০ জনের মতো যুবক, নারী, শিশু আহত হয়। তাদের অনেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

উল্লেখ্য, কাঁচাবাজার নির্মাণের কথা বলে মিরনজিল্লা সিটি কলোনি উচ্ছেদ করার চক্রান্তের অংশ হিসেবে গত ১০ জুন সকালবেলা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ এবং তাদের সঙ্গে স্থানীয় কাউন্সিলর আউয়াল ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী এসে কলোনির একটি অংশ গুড়িয়ে দিয়ে যায়। এই ঘটনার সাথে সাথে হরিজন সংগঠনসমূহ, বামপন্থী দলের নেতাকর্মীরা ও মানবাধিকার কর্মীরা সোচ্চার হয়। হাইকোর্টে এ বিষয়ে রিট করলে হাইকোর্ট কলোনি উচ্ছেদের ব্যাপারে একমাসের স্থগিতাদেশ জারি করে। 

এরইমধ্যে আজ এই ঘটনা ঘটল। যদিও পুলিশ ও সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আজকের এই উচ্ছেদপ্রচেষ্টা জনগণ বীরের মতো লড়াই করে ঠেকিয়ে দিয়েছে। মাসুদ রানা এ জন্য মিরনজিল্লা কলোনিবাসী, মিরনজিল্লা হরিজন কলোনি ভূমিরক্ষা কমিটি ও আন্দোলনকারী সকল কর্মীদের অভিনন্দন জানান। স্থায়ীভাবে এই ভূমি অধিবাসীদের নামে লিখে না দেয়া পর্যন্ত এই আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার জন্য আহবান জানান। সঙ্গে সঙ্গে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবি জানান।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App