×

আন্তর্জাতিক

গাজায় আপনার বিবেক জাগ্রত করুণ: জাতিসংঘ

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ০৪ জুলাই ২০২৪, ১১:১৪ এএম

গাজায় আপনার বিবেক জাগ্রত করুণ: জাতিসংঘ

গাজায় আপনার বিবেক জাগ্রত করুণ: জাতিসংঘ। ছবি: সংগৃহীত

ফিলিস্তিনের বিষয়ে জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিবেদক বুধবার (৩ জুলাই) গাজার নৃশংসতার বিষয়ে সারা বিশ্বের মানুষকে জেগে ওঠার আহ্বান জানিয়েছেন।

বিশেষ প্রতিনিধি ফ্রান্সেসকা আলবানিজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সে দেয় এক বার্তায় বলেন, ‘গাজায় অমানবিকতা যে কোন ধরনের সীমা ছাড়িয়ে গেছে। এখানকার শিশুদের নিরাপত্তা এখন হুমকিতে।  খবর আনোদোলুর।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, ‘জার্মান জনসাধারণ ও অন্যান্য ইউরোপীয়রা দয়া করে জেগে উঠুন, গাজার পাশে দাঁড়ান। বিশ্বের সবার প্রতি এভাবেই আহ্বান জানান ফ্রান্সেসকা।

জার্মান চিকিৎসকরা গাজা থেকে ইতোমধ্যে ৩২ জন গুরুতর আহত শিশুকে সরিয়ে নেয়ার ব্যবস্থা করেছে। কিন্তু সরকার কথিত নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে আহত শিশুদের পরিবারের সদস্যদের ভিসা প্রদান করছে না, ফলে কয়েক মাস ধরে এটি বিলম্বিত হচ্ছে।

২০২৩ সালের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামাসের হামলার পর ইসরায়েল গাজায় পালটা হামলা শুরু করে। জাতিসংঘে একটি যুদ্ধবিরতি প্রস্তাব উত্থাপন হলেও ইসরায়েল তা লঙ্ঘন করেছে। এজন্য আন্তর্জাতিক নিন্দারও সম্মুখীন হয়েছে ইসরায়েল।

গাজা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে হামলায় ইতোমধ্যে ৩৮ হাজার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে, যাদের বেশিরভাগই মহিলা ও শিশু। হামলায় অন্তত আহত হয়েছে ৮৭ হাজারেরও বেশি। ৮ মাসেরও বেশি সময় ধরে চলা ইসরায়ে গাজা যুদ্ধে, গাজার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি এবং ওষুধের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। পঙ্গু হয়েছে গাজার অনেকেই। আর অবরোধের মধ্যে ধ্বংসস্তূপে আটকা পড়ে আছে অনেকেই।

ইতোমধ্যে ইসরায়েল আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে গণহত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছে। সর্বশেষ রায়ে অবিলম্বে গাজার দক্ষিণের শহর রাফাহতে ইসরায়েলকে সামরিক অভিযান বন্ধ করার নির্দেশ দিয়া হয়েছে। রাফায় ৬ মে ইসরায়েলের সর্বাত্মক হামলার আগে ১ মিলিয়নেরও বেশি ফিলিস্তিনি যুদ্ধ থেকে বাচতে সেখানে আশ্রয় নিয়েছিলেন।

আরো পড়ুন: শিগগিরই গাজায় নতুন রূপ নেবে ইসরায়েলি আগ্রাসন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App