×

সারাদেশ

‘আমি সিপ্রোসিন ট্যাবলেট’, পাশ করতে পারলে চৌধুরী বংশ উচ্ছেদ কইরা ফালামু’

Icon

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৮ মে ২০২৪, ০৩:৫৫ পিএম

‘আমি সিপ্রোসিন ট্যাবলেট’, পাশ করতে পারলে চৌধুরী বংশ উচ্ছেদ কইরা ফালামু’

ওমর বাবু, ছবি: সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতা আবু জাফর চৌধুরী বিরুর সঙ্গে খেলা হবে বলে জানিয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল ওমর। নিজেকে ‘নারায়ণগঞ্জের সিপ্রোসিন ট্যাবলেট’ হিসেবে উল্লেখ করে ভোটগ্রহণের দিন বিরুকে কেন্দ্রে থাকারও আহ্বান জানান তিনি। নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার দুই মাসের মধ্যে বিরুর বংশ সোনারগাঁ থেকে উচ্ছেদ করার ঘোষণাও দেন ওমর। অন্যথায় চেয়ারম্যান পদ ছেড়ে দেবেন বলেও জানান এই প্রার্থী।

গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার জামপুর ইউনিয়নে নিজের একটি নির্বাচনী উঠান বৈঠকে এমন বক্তব্য দেন বাবুল। তার বক্তব্যের একটি ভিডিও বৃহস্পতিবার (১৬ মে) রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়।

বাবুল ওমর সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের সদ্য সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। চেয়ারম্যান পদে তিনি আনারস প্রতীকে নির্বাচন করছেন। তার বিপরীতে ঘোড়া প্রতীকে নির্বাচন করছেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহফুজুর রহমান কালাম। সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার কাগজে কলমে নির্বাচনে প্রার্থী হলেও প্রচারে নেই তারা।

আবু জাফরকে উদ্দেশ করে বাবুল ওমর তার বক্তব্যে বলেন- ‘খেলা হবে বিরুর সঙ্গে আমার, আমি খেলব একা। আমার নাম বাবু, বইলা দিবা নারায়ণগঞ্জের সিপ্রোসিন ট্যাবলেট বাবু।’ 

এসময় তিনি একাধিকবার অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করেন। বিরুকে হুমকি দিয়ে বাবুল ওমর বলেন, ‘আমি জিতলে আমার পাঁচ বছর লাগব না। আমি হেরে ঠিক কইরা ফেলমু এক মাসে। এমনিতেই তো ঠিক কইরা ফেলসিলাম, আল্লাহ জানে বাঁচাইসে। লুঙ্গি রাইখা দিসিলাম, আমি তো তার বাড়ির সামনেই হুমকি দিলাম। তার যদি বুকের পাটা থাকে আমার বাড়ির সামনে মিছিল করতে বইলেন। আমি তো তোমার বাড়ির সামনেই উল্টাপাল্টা কথা বলছি। তুমি যদি তোমার মায়ের দুধ পান করে থাক তাইলে আমার বাড়ির সামনে মিটিং করে দেখাও, ওপেন চ্যালেঞ্জ করে গেলাম।’

বক্তব্যের একপর্যায়ে বাবুল বলেন, ‘আমি যদি পাস করি, আর আবদুল্লাহ আল কায়সারের (সংসদ সদস্য) সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পাই। তা হলে দুই মাস পরে যদি এই চৌধুরী বংশ আমি উচ্ছেদ না করতে পারি আমি রিজাইন দিব ক্ষমতা থেকে।’ 

সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী না থাকলেও নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল কায়সার ও জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার সমর্থন পাচ্ছেন বাবুল ওমর। অপরদিকে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর চৌধুরী বিরু, সাবেক সংসদ সদস্য মোবারক হোসেনের ছেলে এরফান হোসেন দ্বীপসহ আওয়ামী লীগের একাংশের সমর্থন পাচ্ছেন মাহফুজুর রহমান। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আবু জাফর চৌধুরী বিরু বলেন, ‘এমন বক্তব্য কোনো রাজনৈতিক শিষ্টাচারের মধ্যে পড়ে না। এটি সোনারগাঁয়ের রাজনৈতিক মাঠকে অস্থির করে তুলবে। আমি দল এবং প্রশাসনের কাছে এর বিচার চাইব।’

বাবুল ওমরের এমন বক্তব্যকে ‘ঔদ্ধত্যপূর্ণ’ উল্লেখ করে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘একজন সন্ত্রাসী যিনি কিনা বিজয়ী হলে একটি পরিবারকে উচ্ছেদ করতে চান, তার বিষয়ে জনগণই বিচার করবে। আমি এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানাব। এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে বাবুল ওমরকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App