স্বপ্নজয়ের পদ্মা সেতুর নিরাপত্তায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

আগের সংবাদ

হাওর জনপদে স্বাস্থ্যসেবা ‘নেই’

পরের সংবাদ

মোবাইল চুরি নিয়ে দ্ব›দ্ব : কামরাঙ্গীরচরে ছুরিকাঘাতে যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত: জুন ২৬, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ২৬, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে ছুরিকাঘাতে জীবন মাহমুদ (২০) নামে এক কারখানার কর্মচারী খুন হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে গত শুক্রবার দিবাগত রাতে কামরাঙ্গীরচর আলী নগর কলেজ রোডে মোবাইল চুরিকে কেন্দ্র করে দ্ব›েদ্বর জেরে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় রাফি আহমেদ (১৮) ও মো. বিজয় (১৭) নামে আরো দুজন আহত হয়।
নিহত জীবনের বাড়ি কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার পশ্চিমঘর গ্রামে। তার বাবার নাম আব্দুল হাকিম। কামরাঙ্গীরচর কলেজ রোড নুরু মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকে তার পরিবার।
৩ ভাই ১ বোনের মধ্যে জীবন ছিল সবার বড়। জীবনের বাবা জানান, পুরান ঢাকার মৌলভীবাজার এলাকায় কার্টন তৈরির কারখানায় কাজ করত সে। শুক্রবার রাতে কলেজ রোডে জীবনকে ছুরিকাঘাত করে ফেলে রেখে যাওয়া হয়েছে বলে খবর পান তিনি। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে কী নিয়ে মারামারি হয়েছে তা জানাতে পারেননি জীবনের বাবা। নিহত জীবনের বন্ধু মো. নিরব জানান, মোবাইল চুরির অভিযোগে তাদের এক বন্ধুকে মারধর করে সিলেটি বাজার এলাকার কয়েকজন কিশোর। পরে জীবনসহ ৮-৯ জন গিয়ে তাদের বাধা দেয়। তখন তারা চলে গেলেও একটু পর নাজমুল, হৃদয়, বাবুসহ কয়েকজনের একটি দল নিয়ে এসে তাদের ৩ জনকে ছুরিকাঘাত করে।
কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নোমান নামের একজনের মোবাইল হারিয়ে যায়। এই বিষয়ে তার রুমমেট শামীমকে সে সন্দেহ করে। এ নিয়ে শামীম ও নোমানের মধ্যে ঝগড়া এবং হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে নোমান তার বন্ধু হৃদয় ও বাবুসহ কয়েকজন মিলে গত শুক্রবার রাতে কলেজ রোডে শামীমের উপরে হামলা করে। ঘটনার সময় সেখানে অবস্থান করা এলাকার কয়েকজন ছেলে তাদের বাধা দেয় মারামারি না করার জন্য। একপর্যায়ে মারামারি থামাতে গেলে ওই তিন জনকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে মারা যায় জীবন। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রধান অভিযুক্ত বাবুসহ বাকিদের আটকের চেষ্টা চলছে। মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়