×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

লাইফ স্টাইল

যে ৫ গাছ ঘরের বাতাস বিষমুক্ত ও ফুসফুস ভালো রাখে

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ জুন ২০২৪, ০৫:০৮ পিএম

যে ৫ গাছ ঘরের বাতাস বিষমুক্ত ও ফুসফুস ভালো রাখে

ছবি: সংগৃহীত

সারা বছরই শ্বাসযন্ত্রের সমস্যায় ভুগেন অনেকে। সেই কষ্ট আবার সময়বিশেষে মারাত্মক আকার ধারণ করে। কারো আবার ‘ইনহেলার’ নেয়ার প্রয়োজন পড়ে। চিকিৎসকেরা বলছেন, আবহাওয়া পরিবর্তনের সময়ে চট করে ঠান্ডা লেগে যায় অনেকের। আবার, নানা রকম ভাইরাসের আক্রমণেও শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা বেড়ে যায়। ঘরের বাইরে তো বটেই, ঘরের ভিতরের বাতাসও কিন্তু নানা কারণে দূষিত হয়ে উঠতে পারে। ঘরের ভেতরের বাতাস পরিস্রুত করতে অনেকেই পরিশোধক যন্ত্র রাখেন। তবে, এমন কিছু গাছ রয়েছে, যেগুলো ঘরের ভিতর রাখলে অক্সিজেন ছড়ায়। শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে কী ধরনের গাছ ঘরের ভিতর রাখা যায়?

আরো পড়ুন: ধুলোবালিতে অ্যালার্জি আছে? কীভাবে ঘর পরিষ্কার করলে অসুস্থতার ঝুঁকি কমবে?

১) স্পাইডার প্ল্যান্ট- এই গাছ ঘরের ভেতরে বাঁচানো খুব সহজ। ফর্মালডিহাইড এবং জাইলেনের মতো দূষিত পদার্থ বাতাস থেকে টেনে নেয় এই গাছ। শিশু এবং পোষ্যেরাও নিরাপদ এই গাছ থেকে।

ছবি: স্পাইডার প্ল্যান্ট

২) অ্যালোভেরা- অ্যালোভেরা সাকিউলেন্ট বা ক্যাকটাস জাতীয় গাছ। অর্থাৎ অল্প জলে, শুকনো আবহাওয়াতেও অ্যালোভেরা ভালো থাকে। টবে ক্যাকটাস সয়েল অথবা সাধারণ মাটি ভরে দিন। খেয়াল রাখুন, যেনো প্রতিটি টবেই বেশ কয়েকটি করে গর্ত বা ড্রেনেজ হোল থাকে। কারণ, মাটি অতিরিক্ত জল ধারণ করলে অ্যালোভেরা গাছ নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ছবি: অ্যালোভেরা ক্যাকটাস জাতীয় গাছ

৩) ফার্ন- পাহাড়ের গা বেয়ে অযত্নে গজিয়ে ওঠা ফার্ন দিয়ে ঘর সাজালে দেখতে ভালোই লাগে। তবে শুধু ঘরের সাজসজ্জা নয়, চার দেওয়ালের মধ্যে বাতাসে মিশে থাকা নানা রকম অশুদ্ধি শুষে নিতে পারে ফার্ন। ফর্মালডিহাইড এবং জাইলেনের মতো দূষিত পদার্থও শুষে নেয়ার ক্ষমতা রাখে পাহাড়ি এই গাছটি।

ছবি: ফার্ন দিয়ে ঘর সাজালে দেখতে সুন্দর লাগে

৪) ফ্ল্যামিংগো লিলি- ঘরের যেকোনো জায়গায় রাখা যায়। আলো ভালবাসে এই গাছ। সারা বছর লাল রঙের ফুল ফোটে। পিস লিলির মতো এর মাটিও একটু ভিজিয়ে রাখতে পারলে ভালো হয়। বাতাস থেকে বিভিন্ন ধরনের দূষিত পদার্থ শোষণ করে নিতে পারে এই গাছ।

ছবি: ফ্ল্যামিংগো লিলি

৫) পিস লিলি- বাকি গাছগুলোর মতো এটিও বাতাস ভারী হতে দেয় না। ফলে অস্বস্তি কম হয়। সামান্য যত্নেই দিব্যি বেঁচে থাকতে পারে এই গাছ। তবে কড়া রোদ আসে, ঘরের এমন জায়গায় এই গাছ না রাখাই ভালো। মাটি একটু ভেজা ভেজা থাকলে এই গাছ খুব ভালো থাকে। সারা বছর ধরেই এ গাছে সাদা ফুল হয়। যা এই গাছের জনপ্রিয়তার সবচেয়ে বড় কারণ। সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলার পাশাপাশি ঘরের বাতাস পরিশুদ্ধ রাখতেও সাহায্য করে এই গাছ।

ছবি: পিস লিলি 

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App