×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

আন্তর্জাতিক

অফিসে ১ মিনিট দেরি হলেই বেতন কাটা

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ২৩ জুন ২০২৪, ১১:২৪ পিএম

অফিসে ১ মিনিট দেরি হলেই বেতন কাটা

ছবি : সংগৃহীত

করপোরেট বা বেসরকারি অফিসের কর্মীরা সময় নিয়ে সচেতন হলেও বিভিন্ন দেশের সরকারি অফিসগুলো এখনো চলে অনেকটা ‘স্বেচ্ছা নিয়মে’। হরহামেশাই অফিসে দেরিতে আসতে কিংবা আগে বের হয়ে যেতে দেখা যায় সরকারি অফিসের অনেক কর্মচারী-কর্মকর্তাদের। সে কারণেই এবার সরকারি অফিসের জন্য নতুন নিয়ম চালু করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট দেরিতে অফিসে ঢুকলে কর্মীদের অর্ধেক দিনের বেতন কেটে নেয়া হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

কেন্দ্রীয় সরকার সরকারি কর্মীদের সময়মতো অফিসে উপস্থিতির জন্য এক পরিপত্র জারি করেছে। এতে বলা হয়েছে, সকাল ৯টার দিকে অফিসে ঢুকতে হবে কর্মীদের। এ ক্ষেত্রে ১৫ মিনিট ছাড় পাবেন তারা। অর্থাৎ সোয়া ৯টার মধ্যে অফিসে প্রবেশ করতে হবে। কিন্তু সোয়া ৯টার পরে যদি এক মিনিটও দেরি হয়, তাহলে সরকারি কর্মীদের অর্ধেক দিনের বেতন কেটে নেয়া হবে। অথবা বরাদ্দ ‘ক্যাজুয়াল লিভ’র মধ্যে থেকে অর্ধদিবস ছুটি কাটা হবে কর্মীর। আর দুই দিন লেট হলে এক দিনের ছুটি কাটা যাবে।

এতে আরো বলা হয়েছে, সরকারি অফিসে কর্মীদের নিয়মানুবর্তিতার জন্য নতুন এ নিয়ম করেছে সরকার। সরকারি অফিসের সব কর্মীদের জন্য এ নিয়ম প্রযোজ্য। এছাড়াও অফিসে ইচ্ছামতো আসা ও বেরিয়ে যাওয়া ঠেকাতে বায়োমেট্রিক ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। তবে করোনাকালে এ ব্যবস্থা পুরোপুরি কার্যকর ছিল না। করোনা শেষে নতুন স্বাভাবিক জীবনের শুরুতে অনেক কর্মী সেই নিয়ম মানছিলেন না।

আরো পড়ুন : ১৮তম লোকসভা অধিবেশনের প্রথম দিনেই সংঘাতের আশঙ্কা

সরকার জানিয়েছে, এ অনিয়ম ঠেকাতেই নতুন করে নিয়ম করা হচ্ছে। এ ছাড়াও নতুন পরিপত্রে আরো বলা হয়েছে, কোন দফতরে কোনো কর্মচারী কখন আসছেন, কখন যাচ্ছেন- সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের তা নজরে রাখতে হবে। 

পরিপত্রে আরো বলা হয়েছে, কোনো কারণে যদি কর্মীরা নির্দিষ্ট দিনে অফিসে উপস্থিত হতে না পারেন, তবে আগে থেকেই জানাতে হবে এবং নৈমিত্তিক ছুটির জন্য আবেদন করতে হবে।

 প্রসঙ্গত, ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের অফিসগুলো সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত চলে। তবে জুনিয়র স্তরের কর্মচারীদের দেরিতে আসা এবং তাড়াতাড়ি চলে যাওয়া যেন নিত্যদিনের রুটিনে পরিণত হয়েছে। এসব অনিয়ম ঠেকাতেই নতুন এই উদ্যোগ।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App