×

ভিডিও

পাইলট হওয়াটাই কী কাল হলো রিফাতের জীবনে

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ০৩:৫৬ পিএম

যে আকাশের বুকে ডানা মেলে বিশ্বজয়ের স্বপ্ন দেখেছিলেন স্কোয়াড্রন লিডার মুহাম্মদ অসীম জাওয়াদ রিফাত। সেই আকাশের বুকে জীবনের সব স্বপ্নকে বিলিয়ে দিয়ে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে নিলেন। ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস! বাবা-মায়ের স্নেহ ভালোবাসা। পরিবার আর সন্তানের জন্য কত শত ভাবনা আর আবেগ। সব যেন এখন স্মৃতির ফ্রেমে বন্ধী।

সরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তি যুদ্ধে জয়ী হলেও সুযোগটা নেননি। বাবা-মায়ের ইচ্ছে ছিল ছেলে ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার হবে। কিন্তু ছেলেবেলা থেকেই রিফাতের স্বপ্ন পাইলট হবেন তিনি। আর সেই স্বপ্নপূরণে যোগ দেন বিমানবাহিনীতে। সেই স্বপ্নটা পূরণ হলো ঠিকই। কিন্তু বেশি দিন সেই সুখ ভাগ্যে জুটেনি তার। 

বাবার স্মৃতি কিংবা বীরত্বের গল্প হয়তো একদিন ফেসবুক আর গণমাধ্যমের পাতায় খুঁজে পাবেন রিফাতের এক বছর বয়সী ছেলেটা। আর ছয় বছরের মেয়েটা বাবার আদরের কিছু স্মৃতি বুকে নিয়ে সারা জীবন তাকে খুঁজবেন ঐ আকাশে। এটাই হয়তো নিয়তি।

গত ৯ মে সকাল সাড়ে ১০টা চট্টগ্রামের পতেঙ্গা উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই আগুন ধরে যায় তাদের বিমানটিতে। কর্ণফুলী নদীতে ভূপাতিত হওয়ার আগেই বিমানে থাকা বৈমানিক উইং কমান্ডার সোহান ও বৈমানিক স্কোয়াড্রন লিডার আসিম জাওয়াদ প্যারাসুট দিয়ে নদীতে নামলেন। 

দুই বৈমানিককে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী ও নৌবাহিনীর উদ্ধারকারী দল এবং স্থানীয় জেলেদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় উদ্ধার করা হয়। বৈমানিকদের মধ্যে স্কোয়াড্রন লিডার মুহাম্মদ আসিম জাওয়াদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায়, তাকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য বিএনএস পতেঙ্গাতে নেওয়া হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রশিক্ষণ বিমান দুর্ঘটনায় নিহত বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর স্কোয়াড্রন লিডার মুহাম্মদ আসিম জাওয়াদ রিফাতের গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার গোপালপুর গ্রামে। নিজ গ্রামে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাকে দাফন করা হয়।

স্ত্রী ও পিতা-মাতাকে রেখে তিনি পাড়ি জমালেন পরলোকে। রিফাতের বাবা মোহাম্মদ আমানউল্লাহ পেশায় চিকিৎসক। মা নিলুফার খানম সাভার ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক।

বাবা-মায়ের কাজের সুবাদে ছোটবেলায় দেশের বিভিন্ন স্থানে থেকেছেন রিফাত। সাভার ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এসএসসি ও এইচএসসি পাস করে ২০১০ সালে তিনি বাংলাদেশ বিমানবাহিনীতে যোগ দেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App