নৌপুলিশের অভিযান : ৩৫ লাখ মিটার জাল জব্দ

আগের সংবাদ

পঞ্চম দফায়ও সারাদেশে ব্যাপক সহিংসতা > ভোটে ঝরল আরো ১১ প্রাণ : পুলিশের গাড়িতে আগুন, আহত শতাধিক, আটক অর্ধশত

পরের সংবাদ

সূর্যের বয়স কত?

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

শীতের সকালে রোদ পোহাতে কার না ভালো লাগে? কিন্তু প্রায় দিনই কুয়াশার আড়ালে ঢাকা পড়ে থাকে সূর্য। তখন আমরা অপেক্ষায় থাকি- কুয়াশা কেটে কখন আসবে মিষ্টি রোদ? কখন কাটবে শীতের প্রকোপ? এই সকালে ইষ্টিকুটুম পড়তে পড়তে তুমি নিশ্চয়ই রোদ পোহাচ্ছ, নয়তো অপেক্ষায় আছ রোদের। এই সময়টায় চল জেনে নিই- সূর্যের বয়স কত? আর কীভাবে তা আলো দেয় আমাদের?
সৌরজগতের কেন্দ্রের খুব কাছে অবস্থিত একটি তারা হলো সূর্য। প্রায় পুরো গোল এ তারা প্রধানত প্লাজমা ও আয়নিত পদার্থ দিয়ে তৈরি। মূলত হাইড্রোজেন পুড়িয়েই আলো দেয় সূর্য। সূর্য পৃষ্ঠের তাপমাত্রা প্রায় ১০ হাজার ৩৪০ ড্রিগ্রি ফারেনহাইট বা ৫ হাজার ৭২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
সূর্যের প্রধান গাঠনিক উপাদান হাইড্রোজেন। আসলে সূর্যের মোট ভরের তিন চতুর্থাংশই হাইড্রোজেন। হাইড্রোজেনের পর সবচেয়ে বেশি আছে হিলিয়াম। এছাড়া অন্যান্য ভারি মৌলের মধ্যে রয়েছে অক্সিজেন, কার্বন, নিয়ন ও লোহা ইত্যাদি। আমরা জানি যে সূর্য ক্রমাগত পুড়েই যাচ্ছে। সূর্য নিউক্লিয় ফিউশন প্রক্রিয়ায় অবিরাম হাইড্রোজেন পুড়িয়ে হিলিয়ামে পরিণত করে।
পৃথিবীতে পাওয়া সবচেয়ে প্রাচীন পাথর ও উল্কাপিণ্ডের বয়স হচ্ছে ৪৬০ কোটি বছর। ধারণা করা হয়, পুরো সৌরজগতের সৃষ্টি একই সময়ে। সেক্ষেত্রে সূর্যেরও বয়স একই। তাহলে ৪৬০ কোটি বছর ধরে সূর্য হাইড্রোজেন পুড়িয়ে যাচ্ছে। সূর্য প্রতি সেকেন্ডে ৬২ কোটি টন হাইড্রোজেন পোড়ায়। সূর্যের জন্মের পর থেকে গত ৪.৬ বিলিয়ন বছর ধরে সে তার প্রায় অর্ধেক হাইড্রোজেন গ্যাস খরচ করে ফেলেছে।
যদি হাইড্রোজেন শেষ হয়ে যায় তাহলে? গড় দূরত্বে সূর্য থেকে আলো পৃথিবীতে আসতে ৮ মিনিট ১৯ সেকেন্ড সময় নেয়। এ সূর্যালোকের শক্তি পৃথিবীর প্রায় সব জীবকে বাঁচিয়ে রাখে। উদ্ভিদ সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় এ আলো থেকেই খাদ্য উৎপাদন করে। প্রাণীরা খাদ্যের জন্য এসব উদ্ভিদ বা অন্য প্রাণীর ওপর নির্ভর করে। এখন সূর্য যদি পুড়ে শেষ হয়ে যায় তাহলে পৃথিবীও কি শেষ হয়ে যাবে?
আশার কথা হচ্ছে, আপাতত তা হচ্ছে না। আরো ৫ বিলিয়ন বছর ধরে পোড়ার জন্য সূর্যের মধ্যে এখনো যথেষ্ট হাইড্রোজেন গ্যাস মজুত রয়েছে। যখন হাইড্রোজেন শেষ হয়ে যাবে তখনো এটি হিলিয়াম ও অন্যান্য ভারি উপাদানকে জ্বালিয়ে আলো দিতে পারবে।
– আবীর আশরাফ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়