×

জাতীয়

পিএসসি থেকে প্রশ্নফাঁস খুবই কঠিন, কারণ জানালেন চেয়ারম্যান

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০২৪, ০৪:৫৫ পিএম

পিএসসি থেকে প্রশ্নফাঁস খুবই কঠিন, কারণ জানালেন চেয়ারম্যান

পিএসসি চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন। ছবি: সংগৃহীত

বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক চাকরির পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের অভিযোগের ব্যাপারে নিশ্চিতকরে কিছু বলতে পারেননি সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন। তিনি বলেন, পিএসসি থেকে প্রশ্নফাঁস করা ‘ভীষণ কঠিন’ কারণ পরীক্ষার প্রশ্ন লটারির মাধ্যমে দেয়া হয়। লটারিতে কোন সেট প্রশ্নে পরীক্ষা হবে তা নিশ্চিত করে বলা সম্ভব নয়। সৃষ্টিকর্তা ছাড়া আর কেউ এটা নিশ্চিত করে বলতে পারেন না। 

তিনি আরো বলেন, প্রশ্নফাঁস যে হয়নি বা হতে পারে না তা আমি শতভাগ নিশ্চিতকরে বলতে পারছি না। আমি শুধু বলবো এটা (প্রশ্নফাঁস) করা ভীষণ ভীষণ কঠিন।’

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) দুপুরে পিএসসি ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন পিএসসি চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন। এসময় তিনি প্রশ্নপত্র প্রণয়ন থেকে কেন্দ্রে তা পৌঁছানোর প্রক্রিয়া সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন।

সোহরাব হোসাইন বলেন, ‘পিএসসির অধীনে নিয়োগ পরীক্ষার ‍যিনি প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করেন, তার পরিচয় থাকে সম্পূর্ণ গোপন। অনেক সময় প্রশ্নপত্র তৈরির পর তা সরাসরি অথবা ডাকযোগে পিএসসিতে আসে। পিএসসিতে প্রশ্ন রিসিভ করার পর তা সিলগালা করা থাকে। ১০ জনের কাছ থেকে প্রশ্ন নেয়া হয়, যেগুলোর মডারেশনের জন্য একদিন বৈঠক ডাকা হয়। গোপন কক্ষে সিলগালা করা সেই প্রশ্ন খুলে সেখানে মডারেশনের কাজ শেষ করা হয়। পরে আবারো তা সিলগালা করে ওই কক্ষ থেকে বের করা হয়। সেখান থেকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তায় প্রশ্ন ছাপার জন্য পাঠানো হয় প্রেসে। প্রেস থেকে পিএসসিতে আসার পর পুলিশ প্রহরায় একটি কক্ষে প্রশ্নগুলো তালাবদ্ধ করে রাখা হয়।’

পিএসসি পরিচালক আরো বলেন, ‘পরীক্ষার দিন দুজন বিশেষজ্ঞের উপস্থিতিতে আমাদের এখানে (পিএসসি) লটারি অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০টায় পরীক্ষা হলে ৯টা ২০ মিনিট থেকে ৯টা ২৫ মিনিটের মধ্যে লটারি করে ৯টা ৩০ মিনিটে কেন্দ্রে জানানো হয়। বিসিএসের ক্ষেত্রে ৬ সেট প্রশ্ন থেকে একসেট লটারির মাধ্যমে বেছে নেয়া হয়। আর নন-ক্যাডার বা দশম গ্রেড ও তার পরের গ্রেডগুলোর জন্য ৪টি সেট থেকে লটারির মাধ্যমে একটি সেট বেছে নেয়া হয়। এ প্রক্রিয়ায় প্রশ্নফাঁস করাটা খুবই কঠিন কাজ।’

আরো পড়ুন: ভুয়া ঠিকানা দিয়ে যেভাবে চাকরি নেন আবেদ আলী

এসময় সাংবাদিকরা ফেসবুকে প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়ে পিএসসি চেয়ারম্যানকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘দেখুন আপনারা যে কেউ আমাকে একটা মোবাইল ফোন দেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ৫ দিন আগে পোস্ট করা একটি ছবি আমি আজকে অনুষ্ঠিত একটি পরীক্ষার প্রশ্ন দিয়ে বদলে দিতে পারবো।  এটা দেখে যে কেউ মনে করবে ৫ দিন আগেই এ প্রশ্নপত্র পোস্ট করা হয়েছে। এটা করা সম্ভব। এ ধরনের ঘটনা দিয়ে প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে তা প্রমাণ হয় না।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App