×

সারাদেশ

ঝিকরগাছার ইমামকে মনিরামপুরে কুপিয়ে জখম

Icon

ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৩ মে ২০২৪, ০৯:০৬ পিএম

ঝিকরগাছার ইমামকে মনিরামপুরে কুপিয়ে জখম

আহত হাফেজ আব্দুল্লাহ আল মামুন

যশোরের ঝিকরগাছা পৌরসদরের ৫নম্বর ওয়ার্ডের এক মসজিদের ইমাম হাফেজ আব্দুল্লাহ আল মামুন (৩৫) কে মনিরামপুরে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। 

গত রবিবার (১২ মে) রাত ১০টার দিকে পার্শ্ববর্তী মনিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ জামতলা নামক স্থানে ঘটনাটি ঘটেছে। হাফেজ আব্দুল্লাহ আল মামুন কীর্তিপুর হটাতপাড়া বায়তুন নুর জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব। 

উক্ত ঘটনায় কীর্তিপুর হাসপাতাল রোড এলাকার রুবেল হোসেন নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত রুবেল ওই গ্রামের বাসিন্দা তরকারি ব্যবসায়ী আয়ুব হোসেনের ছেলে। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, রবিবার সন্ধ্যায় হাফেজ আব্দুল্লাহ আল মামুন ঝিকরগাছা বিএম হাইস্কুল মাঠ সংলগ্ন ক্রিকেট একাডেমিতে বাচ্চাদের আরবি পড়াচ্ছিলেন। সে সময় আটক রুবেল দাওয়াতে যাওয়ার কথা বলে মনিরামপুর উপজেলার খোর্দ এলাকায় শশুর বাড়িতে নিয়ে যায়। 

আরো পড়ুন: সেবা না পেয়ে ডিসি অফিসের হেল্পডেস্ক ভাঙচুর

পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে খবর পেয়ে রাজগঞ্জ কেন্দ্রের পুলিশ জামতলা নামক স্থান থেকে মারাত্বকভাবে জখম অবস্থায় ইমাম মামুনকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে কয়েকজন মুসল্লী বলেন, পুলিশের হাতে আটক রুবেল দাওয়াতের কথা বলে তার শশুর বাড়িতে নিয়ে গিয়েছিলো। পথিমধ্যে ঘটনাস্থলে ইমামকে একা রেখে রুবেল কিছুসময়ের জন্য কোথাও চলে যায়। এসময় অজ্ঞাতনামা কয়েকজন দূর্বৃত্তরা ইমামের উপর হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত ভেবে ফেলে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এসময় রুবেল ঘটনাস্থলে আসলে ইমামের দেখিয়ে দেয়া তথ্যে পুলিশ তাকে আটক করেছে বলে জানা গেছে। 

জানতে চাইলে রাজগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর রাকিবুজ্জামান আটক রুবেলের দেয়া স্বীকারোক্তি মোতাবেক বলেন, ইমামের সঙ্গে রুবেলের স্ত্রীর পরকিয়া প্রেমের সন্দেহের জেরে রুবেল তাকে দাওয়াতের কথা বলে নিয়ে আসে। পূর্বেই রুবেল তার শালা ইমন (৩০) ও জিম (২৮) কে ঘটনাস্থলে রাখে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী রুবেল ইমামকে উল্লেখিত স্থানে নামিয়ে কোথায় যায়। এ সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা ইমন ও জিম ইমামকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। পরে পুলিশসহ স্থানীয়রা তাকে উদ্ধারের সময় রুবেলও তাকে উদ্ধারের নাটক করে। এ সময় পুলিশ রুবেলকে আটক করে। রুবেলের দেয়া স্বীকারোক্তি মোতাবেক জিম ও ইমনের সন্ধান মিলেছে বলেও জানান ইন্সপেক্টর রাকিবুজ্জামান।     

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App