×

ভিডিও

ইসরায়েলের আরও বেপরোয়া হামলা, তামাশা দেখছে যুক্তরাষ্ট্র!

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ মে ২০২৪, ০৯:১৩ পিএম

গাজা উপত্যকার উত্তরে জাবালিয়া শহরের দিকে ট্যাংকবহর নিয়ে এগিয়ে চলেছেন ইসরায়েলি সেনারা। তাঁদের সুরক্ষা দিতে বিমান থেকে বোমা ফেলা হচ্ছে। স্থলবাহিনীও বিভিন্ন লক্ষ্যে গোলা ছুড়ছে। গেল সোমবার এভাবেই জাবালিয়া শহরের ভেতরে ঢুকে হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। 

স্থানীয় বাসিন্দা ও ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের গণমাধ্যম থেকে বলা হয়, জাবালিয়ায় হামলার পাশাপাশি গাজার দক্ষিণে রাফার উপকণ্ঠের কাছে মূল সড়ক পার হয়ে ইসরায়েলি ট্যাংকবহর ও সেনারা ঢুকে পড়েছেন। এদিকে ইসরায়েলি হামলার মুখে রাফার পূর্বাঞ্চল এখন ভুতুড়ে শহরে পরিণত হয়েছে। 

গাজায় যে আটটি শরণার্থী শিবির তৈরি করা হয়েছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বড়টির অবস্থান জাবালিয়ায়। গতকাল ইসরায়েলি ট্যাংকবহর এ শিবিরের কেন্দ্রস্থলের দিকে এগোনোর চেষ্টা করে। এ সময় ট্যাংক থেকে শিবিরের কেন্দ্রস্থল লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করা হয়। এ ছাড়া বিমান হামলায় অনেক ভবন ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। 

স্থানীয় বাসিন্দা ও চিকিৎসকেরা বলেছেন, ইসরায়েলি বাহিনীর বোমা হামলায় অনেক মানুষ নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া রোববার দিবাগত রাতের হামলায় শরণার্থী শিবিরে ব্যাপক হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। চিকিৎসকেরা বলেন, যেসব এলাকায় বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে, সেখানে উদ্ধারকাজ বা চিকিৎসার জন্য কর্মী পাঠানো সম্ভব হয়নি। সেখানে ব্যাপক হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েল। সেখান থেকে ব্যাপক হতাহতের খবর পাওয়া গেছে। 

এদিকে মিসর সীমান্তের কাছে রাফার পূর্বাঞ্চলে ব্যাপক বোমা হামলা ও গোলাবর্ষণ শুরু করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। বিমান হামলায় ইতিমধ্যে অনেক হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। সেখানকার বাসিন্দারা বলছেন, রাফা শহরের পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে ইসরায়েল। ফলে রাফার পূর্বাঞ্চল এখন ভুতুড়ে শহরে পরিণত হয়েছে। রাফার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলেও ইসরায়েলি সেনা ও ট্যাংকবহরকে ব্যাপক হামলা চালাতে দেখা গেছে। এর আগে গত সপ্তাহে ইসরায়েল রাফার বাসিন্দাদের শহরটি খালি করতে বলেছিল। ১৪ লাখ আশ্রয়হীন মানুষ এ শহরে ঠাঁই নিয়েছিলেন। ইসরায়েলের হিসাবে, এখান থেকে সাড়ে তিন লাখ ফিলিস্তিনি উপকূলের দিকে মানবিক আশ্রয়কেন্দ্রের দিকে সরে গেছেন। 

ইসরায়েলে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত জ্যাক লিউ গেল রোববার বলেছেন, রাফায় ইসরায়েল যেভাবে অভিযান চালাচ্ছে, তা যুক্তরাষ্ট্রের কাছে এখনো গ্রহণযোগ্য। এর আগে গত সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, রাফায় হামলা চালালে ইসরায়েলকে বোমা সরবরাহ করবে না যুক্তরাষ্ট্র। 

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App