×

ভিডিও

ফিলিস্তিনিদের পক্ষে মার্কিন শিক্ষার্থীরা সরব হলেও আরবের শিক্ষার্থীরা নীরব কেন?

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ মে ২০২৪, ১১:২৯ পিএম

নির্যাতিত ফিলিস্তিনিরা এটা ভেবেই তৃপ্তি পাচ্ছেন যে তাদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ করছেন। আবার একই সঙ্গে হতাশায় ডুবে যাচ্ছে আরব বিশ্বের অবস্থান দেখে। কারণ আরব বিশ্বের দেশগুলোতে ফিলিস্তিনিদের পক্ষে কোনো বিক্ষোভই হচ্ছে না। চলতি সপ্তাহে গাজায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে করা বিক্ষোভ পুরো যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পড়েছে। এ বিক্ষোভ দমাতে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে পুলিশ এবং ইসরায়েলপন্থিরা। তারপরও ফিলিস্তিনপন্থিদের হটানো যাচ্ছে না। অন্যদিকে আরব বিশ্বে ফিলিস্তিনিদের পক্ষে কিছু বিক্ষোভ হলেও তা সহিংস পর্যায়ে যাওয়া কিংবা তা দীর্ঘমেয়াদি হয়নি। কেন তাদের প্রতিবাদ এতটাই নিস্তেজ? 

নির্যাতিত গাজাবাসীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানিয়েছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিদিনই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে বিক্ষোভ হতে দেখলেও আরব কিংবা মুসলিম বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষার্থীদের মতো কোনো জোরালো বিক্ষোভ কিংবা প্রতিবাদ আন্দোলন দেখতে না পেরে তারা বেশ দুঃখ পাচ্ছে। তারা মন্তব্য, ‘গাজাবাসীদের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষার্থীদের এই মানবতা প্রকাশের জন্য ধন্যবাদ। তাদের বার্তা ফিলিস্তিনিদের কাছে পৌঁছেছে। কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়েছেন গাজাবাসী। 

তবে আরব বিশ্বের শিক্ষার্থীদের ফিলিস্তিনিদের পক্ষে বিক্ষোভ না করার কারণ হিসেবে রয়টার্স বলছে, এসব দেশের স্বৈরাচারী সরকারের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কিংবা রাস্তায় কোনো বিক্ষোভ দেখা যাচ্ছে না। এছাড়া ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের পেছনে ইরানের সমর্থন রয়েছে যা অনেক রাষ্ট্রের নীতি বিরোধী। এজন্য আরব বিশ্বের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভে সামিল হচ্ছে না। 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষার্থীরা ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে করা বিক্ষোভের কারণে বড় জোর গ্রেপ্তার কিংবা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার হতে পারে। অন্যদিকে আরব বিশ্বে কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া বিক্ষোভ করলে কঠিন শাস্তির মুখোমুখি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। বছরের পর বছর ধরে অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক দিক দিয়ে সংকটে থাকা লেবাননের তরুণ প্রজন্ম এখন তাদের ভাগ্য বদলের জন্য এবং উজ্জ্বল ভবিষ্যতের আশায় পড়াশুনাকে অধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। এজন্য তারা কোনো বিক্ষোভ জড়াতে চাচ্ছে না। দেশটির কয়েকজন শিক্ষার্থীরা রয়টার্সকে জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের বহিষ্কার করতে পারে এই ভয়ে তারা বিক্ষোভে করছে না। 

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App