×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খেলা

পেরু-চিলির ড্রয়ে শীর্ষে আর্জেন্টিনা

Icon

প্রকাশ: ২৩ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

পেরু-চিলির ড্রয়ে শীর্ষে আর্জেন্টিনা

কাগজ ডেস্ক : গত আসরের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা এবারো জয় দিয়ে শুরু করেছে কোপা আমেরিকা মিশন। প্রথম ম্যাচে কানাডাকে ভালোভাবেই হারিয়েছে লিওনেল মেসির দল। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে এসেই নিরামিষ ড্র দেখল টুর্নামেন্টটি। গতকাল অনুষ্ঠিত চিলি এবং পেরুর মধ্যকার ম্যাচ শেষ হয়েছে গোলশূন্য ড্রয়ে। এতে উদ্বোধনী ম্যাচে তিন পয়েন্ট পাওয়া আর্জেন্টিনার শেষ আটের সম্ভাবনা আরও জোরালো হয়েছে। গ্রুপে এখনও শীর্ষ দল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। পেরু ও চিলির মধ্যকার এই ড্রতে দুই যুগ আগের এক রেকর্ডও ভাঙল। গত ২০ বছরে পেরু ও চিলির মুখোমুখি হওয়া কোনো ম্যাচই ড্রয়ে নিষ্পত্তি হয়নি। ২০ বছরের মধ্যে এই প্রথম ড্র দেখল দুই দল। সর্বশেষ পেরু-চিলির ম্যাচ গোলশূন্য ড্র হয়েছিল ১৯৮৯ সালে। এর আগে অবশ্য আরো পাঁচবার দুই দল গোলশূন্য ড্র করেছিল। এদিকে গতকালের ম্যাচ খেলে কোপা আমেরিকার সবচেয়ে বয়স্ক ফুটবলারের রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন চিলির ক্লদিও ব্রাভো। বার্সেলোনা ও ম?্যানচেস্টার সিটির সাবেক গোলরক্ষক ব্রাভোর এ দিন বয়স ছিল ৪১ বছর ৬৯ দিন। এতদিন লাতিন আমেরিকার ফুটবল শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে সবচেয়ে বেশি বয়সি খেলোয়াড় ছিলেন কার্লোস ত্রæকো। ১৯৯৭ সালে নিজের ষষ্ঠ আসরে এই রেকর্ড গড়ার সময় বলিভিয়ার গোলরক্ষকের বয়স ছিল ৩৯ বছর ৩১৮ দিন। রেকর্ডের দিনে পারফরম্যান্সটাও দারুণ ছিল ব্রাভোর। ২০ বছর আগে কোপা আমেরিকায় অভিষেক হওয়া ব্রাভোর প্রথমার্ধে খুব একটা চ?্যালেঞ্জে পড়তে হয়নি। ৪৩ মিনিটে মিগেল আরাউহোর শটে দুর্দান্ত এক সেভ দেন তিনি। পরে পেরুর আরও তিনটি শট প্রতিহত করে দেন এই গোলরক্ষক। দ্বিতীয়ার্ধে ৭৯তম মিনিটে পেরুর একটা কর্নারের পর পরপর দুটি চেষ্টা ব?্যর্থ করে দেন ব্রাভো। দেশের হয়ে নিজের ১৪৯তম ম?্যাচে সাতটি শট সামলান তিনি, এর চারটি ছিল লক্ষ্যে। এর বিপরীতে চিলির ১১ শটের কেবল একটি ছিল লক্ষে?্য। ২০১৫ ও ২০১৬ সালে আর্জেন্টিনাকে টানা দুটি ফাইনালে হারিয়ে দুবার কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছিল চিলি। দুবারই দলের নেতৃত্বে ছিলেন ব্রাভো। চোটের জন?্য ২০১৯ আসরে খেলতে পারেননি তিনি। এবার দলকে শেষ আটে নেয়ার চ?্যালেঞ্জ তার সামনে।

গতকাল টেক্সাসে দাপটের সঙ্গে ম্যাচ শুরু করে পেরু। শুরুতে চিলিকে চাপেও রাখে তারা। তবে ঘুরে দাঁড়িয়ে খুব দ্রুত ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় চিলি। ম্যাচজুড়ে আক্রমণ ও সুযোগ তৈরিতেও পেরুর ওপর আধিপত্য দেখিয়েছে চিলি। ম্যাচে ৬৫ শতাংশ বলের দখল রেখে ১১টি শট নেয় চিলি। তবে লক্ষ্যে ছিলে কেবল ১টি। অন্যদিকে ৩৫ শতাংশ বলের দখল রাখা পেরু ৭টি শট নিয়ে ৪টি লক্ষ্যে রাখে। তবে দুই দলের কোনো প্রচেষ্টায় শেষ পর্যন্ত গোলে রূপান্তরিত হয়নি। ১৬ মিনিটে চিলির সুবর্ণ সুযোগটি মিস করেছেন অ্যালেক্সিস সানচেজ। চিলি তুলনামূলক আক্রমণাত্মক মেজাজে খেলেছে।

কিন্তু শেষে গিয়ে খেই হারিয়েছে তারা। পেরু ৪৩ মিনিটে ডেড লক ভাঙার কাছেই চলে গিয়েছিল। কিন্তু মিগুয়েল আরাউহোর ফ্রি-কিক থেকে করা হেড দারুণ দক্ষতায় সেভ করেন চিলি গোলকিপার ক্লদিও ব্রাভো। দ্বিতীয়ার্ধেও একই ধারা অব্যাহত থেকেছে। ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই খুশি থাকতে হয় পেরু ও চিলিকে। ড্র করলেও দুই দলেরই পরের রাউন্ডে ওঠার ভালো সম্ভাবনা থাকছে। এক পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের দুই ও তিনে অবস্থান করছে এই দুই দল। ৩ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে আছে আর্জেন্টিনা। মূলত ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে ম্যাচের পারফরম্যান্সের ওপরই নির্ভর করছে বাকি দলগুলোর পরের রাউন্ডের ভাগ্য।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App