×

খেলা

জার্মানির জয়ের রাতে ইংল্যান্ডের হার

Icon

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

জার্মানির জয়ের রাতে ইংল্যান্ডের হার

কাগজ ডেস্ক : আসন্ন ইউরোর আগে প্রস্তুতির অংশ হিসেবে শেষবারের মতো গতকাল প্রীতি ম্যাচ খেলতে মাঠে নেমেছিল জার্মানি ও ইংল্যান্ড। মনশেনগøাডবাখে গ্রিসের বিপক্ষে জার্মানি এবং ওয়েম্বলিতে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল ইংল্যান্ড। মনশেনগøাডবাখে গতকাল রাতে গ্রিসের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে জার্মানি। সুযোগ নষ্টের ম্যাচে শুরুতে পিছিয়ে পড়া জার্মানিকে ম্যাচের ৫৫ মিনিটে সমতায় ফেরান কাই হাভার্টজ। এরপর সমতায় শেষ হতে যাওয়া ম্যাচে একবারে অন্তিম মুহূর্তে ব্যবধান গড়ে দেন প্যাসকেল গ্রস। এদিকে ঘরের মাঠ ওয়েম্বলিতে ইংল্যান্ড হেরেছে ১-০ গোলে। তাতে ইউরোর আগে প্রস্তুতিতে বড় একটা ধাক্কাই খেল ইংলিশরা। হ্যারি কেইন, ফিল ফোডেন, ডেকলাইন রাইসের মতো বড় বড় তারকারা আইসল্যান্ডের রক্ষণের সামনে ছিল অসহায়। ১২ মিনিটে ডাগুর থর্সটেইনসনের করা গোল তারকানির্ভর দলও নিয়ে আর পরিশোধ করতে পারেনি ইংল্যান্ড।

মনশেনগøাডবাখে গতকাল প্রথমার্ধে জার্মানি প্রায় ৬৭ শতাংশ সময় বল দখলে রাখলেও আক্রমণে এগিয়ে ছিল গ্রিস। এই সময়ে গোলের জন্য ৮টি শট নিয়ে ৫টি লক্ষ্যে রাখে সফরকারীরা। সেখানে জার্মানি ৩টি শট নিয়ে কেবল একটি লক্ষ্যে রাখতে পারে। ৩৩ মিনিটে গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ারের ভুলে গোল হজম করে জার্মানি। বক্সের বাইরে থেকে ক্রিস্তো জোলিসের গড়ানো শটে খুব বেশি জোর ছিল না, নয়ার ঝাঁপিয়ে ঠেকালেও বল নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি। কাছ থেকে জালে পাঠান মাসুরাস। ৫৫তম মিনিটে সমতা টানেন হাভার্টজ। বক্সে লেরয় সানের পাস ডান পায়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে শরীরটা ঘুরিয়ে বাঁ-পায়ের শটে বল জালে পাঠান আর্সেনাল ফরোয়ার্ড। ৮৩ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে জার্মানির ডিফেন্ডার বেনিয়ামিন হেনরিকের বুলেট গতির শট ক্রসবারে লাগে।

৮৯ মিনিটে ব্যবধান গড়ে দেয়া গোলটি করেন গ্রস। সফরকারীদের এক ডিফেন্ডার হেডে বল ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হলে বক্সের বাইরে থেকে জোরাল ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন ৩২ বছর বয়সি মিডফিল্ডার। কিন্তু ইউরোর আগে গত সোমবার প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে ইউক্রেনের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে নাগেলসমানের দল। এবার গ্রিসের বিপক্ষে কোনোমতে জিততে পারল তারা। এ নিয়ে গ্রিসের বিপক্ষে ১০ বারের দেখায় অপরাজিত থাকার রেকর্ড অক্ষুণ্ন রাখল জার্মানি। ১০ ম্যাচের ৭টি জয় ও অন্য তিনটি ড্র করেছে চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

এদিকে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের মূল পর্বের আগে ভালোই ধাক্কা খেল ইংল্যান্ড। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো আইসল্যান্ডের কাছে হেরেছে ইংলিশরা। গতকাল ওয়েম্বলিতে ১২ মিনিটেই আইসল্যান্ডকে এগিয়ে দেন থর্সটেইনসন। তার দুর্দান্ত গোলে ইংলিশরা পিছিয়ে পড়ে। ইংলিশ ফুটবল দলের মাঝমাঠে ছিল না কোনো সৃজনশীলতা। আক্রমণেও ছিল না কোনো ধার। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে বুকায়ো সাকা, আলেক্সান্ডার আর্নল্ড, এবারেসি ইজেকে নামালেও কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পায়নি সাউথগেটের দল।

ফলে ১-০ গোলের ব্যবধানে হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। এ নিয়ে সর্বশেষ ৫ ম্যাচের ৪টিতে হারের তিক্ত স্বাদ পেল ইংলিশরা। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের ৭২তম স্থানে থাকা আইসল্যান্ড ইউরোর চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি। কোল পালমার, এন্থনি গর্ডন, কোবি মেইনুকে ইউরোর মূল একাদশে খেলানোর আগ্রহ থেকেই সাউথগেট গতকাল তার মূল একাদশ সাজিয়েছিলেন। কিন্তু ইংলিশ বসকে হয়তো নতুন করে আবারো দল নিয়ে চিন্তা করতে হবে। ম্যাচ শেষে সাউথগেট বলেছেন, ‘আমাদের ভালো করতেই হবে।

সঠিক সময়ে আমরা সেভাবে প্রতিপক্ষকে চাপে রাখতে পারিনি। এই ম্যাচে কিছু কিছু প্রশ্ন উঠেছে যার উত্তর আমরা দিতে পারিনি। এটা অবশ্যই একটি হতাশাজনক পারফরম্যান্স। আমরা যথেষ্ঠ পরিমাণে নিজেদের প্রমাণে ব্যর্থ হয়েছি। কিন্তু তারপরও মনে হচ্ছে টুর্নামেন্টের আগে আমাদের ভালো একটি শিক্ষা হলো। এর প্রয়োজন ছিল। আমি আত্মবিশ্বাসী আজকের থেকে মূল পর্বে অবশ্যই আমরা ভালো খেলব। সবাই বলছে টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট হিসেবে আমরা ইউরোতে খেলতে যাচ্ছি। কিন্তু আন্তর্জাতিক ফুটবলের বাস্তবতা একটু ভিন্ন।’ চলতি মাসের ১৪ তারিখ পর্দা উঠবে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ।

জার্মানিতে বসতে যাওয়া টুর্নামেন্টটির অন্যতম ফেভারিট ইংল্যান্ড। শেষ পর্বের প্রস্তুতিতে গত সোমবার বসনিয়া-হার্জেগোভিনাকে ৩-০ গোলে হারায় তারা। কাটে তাদের তিন ম্যাচের জয়খরা। এক ম্যাচেই তাদের জয়যাত্রা মুখ থুবড়ে পড়ল। আগামী ১৬ জুন সার্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইউরোয় পথচলা শুরু গতবারের রানার্সআপদের। ‘সি’ গ্রুপে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ স্লোভেনিয়া ও ডেনমার্ক। এদিকে ১৪ জুন স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইউরো অভিযান শুরু করবে জার্মানি। গ্রুপ পর্বে তারা পরের ম্যাচ খেলবে ১৯ জুন হাঙ্গেরির বিপক্ষে, আর শেষ ম্যাচ ২৪ জুন সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App