×

খেলা

টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন আজ শুরু

Icon

প্রকাশ: ০৮ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন আজ শুরু

কাগজ প্রতিবেদক : বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। যদিও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গাদের সঙ্গে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অভিজ্ঞতা খুব একটা সুখকর নয়। বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠেই রীতিমতো নাস্তানাবুদ হয়েছে টাইগাররা। অন্যদিকে এবারের বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে সাকিব-শান্তদের হতশ্রী পারফরম্যান্সে হতাশ হয়েছিল দেশের ক্রিকেটভক্তরা। অনেকেই বলেন বাংলাদেশের কোনো খেলাই দেখবেন না আর! আবার অনেকেই একধাপ এগিয়ে শান্ত-সাকিবদের গালমন্দও করেছেন। তবে টাইগার অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত বরাবরের মতো আশার বাণী শুনিয়েছেন। দর্শকদের ভালো খেলা উপহার দিতে সংকল্পবদ্ধ বলে জানিয়েছেন প্রখমবারের মতো টি-টোয়েন্টিতে দলকে নেতৃত্ব দিতে যাওয়া শান্ত। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে শান্ত বলেছেন, ‘দর্শকদের প্রত্যাশা তো সব সময় থাকেই। সবারই আশা থাকে। সবাই চায় আমরা ভালো খেলি। সেই জায়গাটা থাকবেই। আমরাও চাই ভালো ক্রিকেট খেলে বাংলাদেশের মানুষকে ভালো একটা ম্যাচ উপহার দিতে।’

ক্রিকেটে পাকিস্তান-ভারত কিংবা অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড ম্যাচ যেমন রোমাঞ্চ ছড়ায় তেমনি সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা দ্বৈরথও ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহ, কৌতূহল কেড়ে নিয়েছে। নাগিন ডান্স থেকে টাইমড আউট। মাঠে কিংবা মাঠের বাইরে নানা ইস্যুতে উত্তপ্ত থাকে দুদলের লড়াই। অ্যাশেজ কিংবা পাক-ভারত মহারণ, ইতিহাস-ঐতিহ্যে এ দুয়ের চেয়ে পিছিয়ে থাকলেও আলোচনায় কমতি নেই বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা লড়াই। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দুদলের নানা ঘটনা বাড়িয়েছে উত্তেজনার পারদ। গতকাল ডালাসে ম্যাচের এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে দলের মিডল অর্ডারের সমস্যা নিয়ে কথা বলেন শান্ত। তিনি জানান, ‘সাম্প্রতিক সময়ে টপঅর্ডাররা ভালো করেনি বা করছে না। কিন্তু কালকের দিনটা পুরোপুরি নতুন দিন এবং আপনি যেটা বললেন অনুশীলনে যার যে জায়গায় সমস্যা আছে সেই জায়গায় সবাই শতভাগ দিচ্ছে। উন্নতির জায়গা যদি বলেন অবশ্যই আগের জায়গা থেকে সবাই ভালো অবস্থায় আছে।’

সবাই নিজেদের জায়গা থেকে উন্নতির চেষ্টা করছে। অনুশীলনেও যথেষ্ট সময় দিচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘অনুশীলন দেখে বা নেটে ব্যাটিং দেখে মনে হয়েছে সবাই আগের থেকে ভালো অবস্থায় আছে। আগে কী হয়েছে এটা চিন্তা না করে কালকে একটা নতুন দিন। কালকে আমরা কেউই জানি না কে ভালো খেলবে, কে খারাপ খেলবে। নতুন দিনটায় আমার মনে হয় যে থিতু হবে, ভালো শুরু করবে। আশা করছি যেভাবে আমাদের ব্যাটাররা প্রস্তুতি নিয়েছে ওইটা যদি বাস্তবায়ন করতে পারে তাহলে ভালো একটা ম্যাচ হবে।’ এদিকে ডালাসের যে মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ, ওই মাঠে ব্যবহার করা হয়েছে ড্রপ এন পিচ। যে কারণে উইকেট নিয়ে রীতিমতো সংগ্রাম করেছে টাইগাররা। উইকেট নিয়ে শান্ত বলেন, ‘আসলে আমরা খেলাটা যখন শুরু করব, তখন বুঝতে পারব কত রানের উইকেট বা কত রান আমরা ডিফেন্ড করতে পারব, এটা (আগে থেকে) বলা মুশকিল। সব মিলিয়ে আমার কাছে মনে হয় নতুন বলে ব্যাটিং করাটা চ্যালেঞ্জিং প্রত্যেকটা দলের জন্য। তবে অজুহাত দেয়ার কোনো সুযোগ নেই।’ নিজেদের প্রস্তুতি নিয়ে শান্তর ভাষ্য, ‘আমার মনে হয় সবাই ভালো অবস্থানে আছে (মানসিকভাবে)। প্র্যাকটিসে বা ম্যাচটা কীভাবে খেলতে চায় এগুলো নিয়ে মানসিকভাবে সবাই ভালো অবস্থানে আছে এটা বলতে পারি। কালকে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ; এটা সত্য, সবাই একটু হলেও নার্ভাস থাকবে। আমরা কীভাবে এটা হ্যান্ডেল করছি এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।

এখানে অনেক অভিজ্ঞ প্লেয়ার আছে যাদের আগের বিশ্বকাপ খেলার অভিজ্ঞতা আছে। সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে বলে আমি আশা করি।’ ম্যাচে নিজেদের লক্ষ্য নিয়ে শান্ত বলেন, ‘এই কন্ডিশনে কীভাবে আমরা একটি ভালো শুরু পেতে পারি এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, যদি আমরা ব্যাটিং করি। যদি বোলিং করি বোলারদের লক্ষ্য থাকবে কীভাবে দ্রুত উইকেট নিতে পারছি। কালকে যখন খেলাটা শুরু হবে এগুলো দ্রুত মানিয়ে নিতে হবে। আমার মনে হয় না এই উইকেটটা নিয়ে চিন্তার কোনো কারণ আছে। যার যে সামর্থ্য আছে সেই সামর্থ্য কাজে লাগানো খুব গুরুত্বপূর্ণ।’ অন্যদিকে দলের টপঅর্ডারের দুর্দিনে টাইগারদের পাশে আছেন প্রধান নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দিয়ে দলের সঙ্গে প্রথম বিদেশ সফর। দলের কঠিন সময়ে পুরো দলকে উজ্জীবিত করার চেষ্টা করছেন তিনি সামনে থেকে। বিশেষ করে লিটনকে নিয়ে তার প্রত্যাশা অনেক। তার কথা, ‘যে খেলার জন্য লিটন কুমার দাস বিশ্বক্রিকেটে পরিচিতি পেয়েছে, নামটির সঙ্গে সে এখনো সেই পর্যায়ে আসতে পারেনি। অবশ্যই খেলার মাধ্যমেই হয়তো সে ফেরত আসবে। আমি আশা করছি সে হয়তো দ্রুতই ফর্মে ফিরে আসবে।’

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App