×

খেলা

শ্রীলঙ্কা পরীক্ষা উত্তীর্ণে মরিয়া টাইগাররা

Icon

প্রকাশ: ০৬ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

শ্রীলঙ্কা পরীক্ষা উত্তীর্ণে মরিয়া টাইগাররা

কাগজ প্রতিবেদক : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসরে বাংলাদেশ পড়েছে ডেথ গ্রুপ খ্যাত ‘ডি’ গ্রুপে। সেখানে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আগামী শনিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামবে তারা। ইতোমধ্যে আসন্ন ম্যাচের প্রস্তুতি নিতে গত রবিবার ম্যাচভেন্যু ডালাসে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল। যেখানে ম্যাচের আগে ঘাম ঝরাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন সাকিব-শান্তরা। টাইগারদের এবারের লক্ষ্য শ্রীলঙ্কাকে হারানো। কারণ বিশ্বকাপের আগেই ঘরের মাঠে লঙ্কানদের বিরুদ্ধে হেরে সিরিজ হাতছাড়া করেছিল টাইগাররা। তাই হারের প্রতিশোধ নিতে মরিয়া শান্তবাহিনী। যদিও বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হাতছাড়া করেছিল তারা। এদিকে নিজেদের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষের ম্যাচে মাত্র ৭৭ রানে অলআউট হয়েছে শ্রীলঙ্কা। তাতে ম্যাচ হেরেছে ৬ ছয় উইকেটের বড় ব্যবধানে। এদিকে বিশ্বকাপের বড় মঞ্চের আগে দলের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশ দলের মি. ডিপেন্ডার খ্যাত মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

এবারের বিশ্বকাপে টাইগার দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে নিয়মিত ভিডিওবার্তা প্রচার করে আসছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সেই ধারাবাহিকতায় গতকাল ভিডিওতে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ নিজের প্রত্যাশার কথা বলেছেন। অধিনায়ক শান্তকে সময় দিলে ভালো করবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সে খুব ভালো নেতা। খুব ভালো অধিনায়ক। গেমসেন্স খুব ভালো। ম্যাচের প্রতি মনোযোগও খুব ভালো। কিন্তু আমাদের তাকে সময় দিতে হবে। কিছুদিন হলো অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়েছে, সময় দিতে হবে তাকে। আশা করি ওর যে নেতৃত্বগুণ আছে, ইনশা-আল্লাহ বাংলাদেশের জন্য ভালো করবে।’

নিজের ক্যারিয়ারের উত্থান-পতন নিয়ে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘উত্থান-পতন তো আমার ক্যারিয়ারে কমবেশি ছিলই। আমি সব সময়ই আল্লাহর ওপর বিশ্বাস করি। আল্লাহর কাছেই সব সময় যা কিছু বলার আমি বলি। আমি সব সময়ই বিশ্বাস করি, আল্লাহ হচ্ছেন সেরা পরিকল্পনাকারী। আমার ভালো সময়, খারাপ সময় সবকিছুরই একটি শিক্ষণীয় বিষয় থাকে আর এটাই আমি বিশ্বাস করি।’

২০২১ বিশ্বকাপে টাইগারদের নেতৃত্ব দিলেও, ২০২২ আসরের দল থেকে বাদ পড়ে যান রিয়াদ। এ নিয়ে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যখন আমি ছিলাম না, খারাপ লেগেছিল। আমার কাছে মনে হয়েছিল, দলে হয়তো থাকতে পারতাম। কিন্তু হয়নি এবং ওটার জন্য আমার কোনো কষ্টও নেই। আমি সব সময়ই আলহামদুলিল্লাহ, যেটা বলি দলের জন্য যতটুকুই আমি করতে পারি, সেটা আমার উপস্থিতি দিয়ে হোক, পারফরম্যান্স দিয়ে হোক, আমার অভিজ্ঞতা দিয়ে হোক, আমি আমার সর্বোচ্চটাই সব সময় নিংড়ে দিই।’

আইসিসি টুর্নামেন্টে ট্রফি জেতা তো দূরে থাক, সুপার এইটই টাইগারদের সর্বোচ্চ দৌড়। ট্রফি জয়ের জন্য কিছুটা ভাগ্যের সহায়তা প্রয়োজন বলে মনে করেন মাহমুদউল্লাহ। তিনি জানান ‘ট্রফি জিততে আমার মনে হয় ভাগ্যেরও একটু সহায়তা লাগে। আমরা কয়েকটি মেগা ইভেন্টে হয়তো খুব কাছাকাছি গিয়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমরা পারিনি। এখন আরেকটি সুযোগ সামনে। সমর্থন আছে ইনশা-আল্লাহ। যা যা করা সম্ভব আমরা করব।’ যে কোনো টুর্নামেন্ট, সিরিজ জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করাটাকে বিশেষ হিসেবে দেখেন মাহমুদউল্লাহ, ‘জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করা, সেটা সিরিজ হোক কিংবা কোনো মেগা ইভেন্ট হোক, সব সময়ই স্পেশাল। যখনই নতুন জার্সিটা পাই, সব সময়ই খুব ভালো লাগে।’ এদিকে বাংলাদেশ দলের উঠতি পেসার শরীফুল ইসলাম ভারতের বিপক্ষের ম্যাচে চোটে আক্রান্ত হওয়ায় বিশ্বকাপে তার খেলা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। আর এর আগে থেকেই চোটে ছিলেন তাসকিন আহমেদ। যদিও বিসিবি জানিয়েছে শ্রীলঙ্কার ম্যাচে তাসকিন আহমেদ দলে থাকবেন।

এবারের বিশ্বকাপ দলের সহঅধিনায়ক তাসকিন নিজের খেলা নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলেছেন। তাসকিন জানয়েছেন, ‘শরীফুলের বিষয়টি দুর্ভাগ্যজনক। মাত্র একটা বল বাকি ছিল। তখন (বল) হাতে লেগে হাত ফেটে গেছে। ওর ব্যাপারটা এখন বলাটা কঠিন। মাত্র তিন দিন আগে হয়েছে, আশা করছি ও সুস্থ হয়ে উঠবে। আমরা এখনো কেউ কিছু বলতে পারছি না। হাতে যেহেতু সেলাই পড়েছে, ডাক্তাররাই বলতে পারবে। আসলে প্রতিটি ম্যাচই সুযোগ। বিশেষ করে বিশ্বকাপে প্রতি ম্যাচে তো আরো বেশি রোমাঞ্চ থাকে। শরীফুল যদি না খেলতে পারে তাহলে এটা আমাদের বোলিং আক্রমণের জন্য বড় ক্ষতি। তবে বাকিরা প্রস্তুত। আমরা মোটামুটি সবাই ভালো ছন্দে আছি।

যদি আমিও না খেলতে পারি, বাকি যারা আছে তারাও প্রস্তুত। আশা করছি যারাই খেলবে সেরাটা দিতে পারলে যথেষ্ট হবে।’ নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে তাসকিন বলেন, ‘আল্লাহর রহমতে উন্নতি অনেক ভালো। তিনটা বোলিং সেশন করতে পারলাম। সবকিছু পরিকল্পনা অনুযায়ী এগোচ্ছে। সব মিলিয়ে উন্নতি ভালো। কালকেও আরেকটা সেশন আছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আশা করছি প্রথম ম্যাচ থেকে খেলতে পারব।’

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App