×

খেলা

উদ্বোধনী দিনে মাঠে নামছে দুই স্বাগতিক

Icon

প্রকাশ: ০২ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

উদ্বোধনী দিনে মাঠে নামছে দুই স্বাগতিক

কাগজ ডেস্ক : আজ সকালে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার ম্যাচের মধ্য দিয়ে পর্দা উঠতে যাচ্ছে বিশ্ব ক্রিকেটের বহুল প্রতীক্ষিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসরের। যেখানে দিনের অপর ম্যাচে মুখোমুখি হবে এবারের আসরের আরেক স্বাগতিক দেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অপেক্ষাকৃত কম দক্ষ দল পাপুয়া নিউগিনি।

২০০৭ থেকে চালু হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ২০১২ ও ২০১৬ সালের আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়ে শিরোপা নিজেদের ঘরে তুলেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর ২০২১ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে অভিষিক্ত হওয়া পাপুয়া নিউগিনি গত বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব টপকাতে না পেরে বাদ পড়েছিল।

এছাড়া পাপুয়া নিউগিনি একমাত্র দল যারা বিশ্বকাপের অভিষেকের ম্যাচে ১০ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেরে রেকর্ড গড়েছিল। ২০ দলের অংশগ্রহণে এবারের বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো হবে যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৯টি ভেন্যুতে। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে ভেন্যু ৩টি, গ্রান্ড প্রেইরি ছাড়া অন্য ২টি নাম নাসাউ ও সেন্ট্রাল ব্রোওয়ার্ড পার্ক। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভেন্যুগুলো হলো- প্রভিডেন্স স্টেডিয়াম, কেনিংস্টন ওভাল, ভিভ রিচার্ডস স্টেডিয়াম, ব্রায়ান লারা স্টেডিয়াম, আরনস ভেল গ্রাউন্ড ও ড্যারেন সামি স্টেডিয়াম। মাসব্যাপী এই মহাআসরের পর্দা নামবে ২৯ জুন।

বিশ্বকাপের এবারের আয়োজনে উদ্বোধনী ম্যাচে গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৬টায় মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা। আর এই দ্বৈরথের ম্যাচে ৭ হাজার ধারণক্ষমতার গ্যালারি পুরোপুরি ভরা শঙ্কা নিয়ে। আবহাওয়া বলছে, বজ্রঝড় হানা দিতে পারে এই ম্যাচে; যেমনটা হয়েছিল এই ভেন্যুতে দুদলের ওয়ার্মআপেও।

প্রকৃতি বাধ না সাধলে এই ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্র ফেভারিট। যদিও ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে ঘরের মাঠে মাত্র সাতটি টি-টোয়েন্টি খেলেছে তারা, সবগুলোই গত দুই মাসে। আর তাতেই নিজেদের সামর্থ্যরে জানান দিয়েছে তারা।

৪-০ ব্যবধানে তে কানাডাকে হারানোর পর ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে আইসিসির র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজেদের চেয়ে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশ দলকে। কানাডার বিপক্ষে সাত টি-টোয়েন্টি খেলে হেড টু হেডে ৫-২ এ এগিয়ে আমেরিকানরা।

বৃষ্টি জট না পাকালে নিউজিল্যান্ডের সাবেক অলরাউন্ডার কোরি অ্যান্ডারসন যুক্তরাষ্ট্রের জার্সি পরতে যাচ্ছেন নিশ্চিত। তাতে পঞ্চম খেলোয়াড় হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দুদলের প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছেন তিনি।

এছাড়া ভারতের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে বিশ্বকাপ জেতা হারমীত সিংও দেশটির হয়ে ব্যাটে-বলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার অপেক্ষায়।

অন্যদিকে কানাডার স্কোয়াডে আছেন বাঁহাতি সিমার কালিম সানা, যিনি পাকিস্তানে প্রথম শ্রেণির ম্যাচে বাবর আজমকে আউট করেছেন। দেশটির শক্তির পাল্লা ভারী করতে আছেন ৩৭ বছর বয়সি ফাস্ট বোলার জেরেমি গর্ডন।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের টপঅর্ডার বেশ শক্তিশালী, যেখানে আছেন স্টিভেন টেলর, মোনাঙ্ক প্যাটেল ও আন্দ্রিয়েস গাওসের মতো ব্যাটার। আলী খান ও সৌরভ নেত্রাভালকার পেস আক্রমণের ভরসা। দলের প্রধান স্পিনার হারমীত লেটঅর্ডারে ব্যাট হাতে ঝড় তুলতে সিদ্ধহস্ত। আর কানাডার শক্তির জায়গা বোলিং। গর্ডন ও সানার সঙ্গে পেস আক্রমণে আছেন ডিলন হেলিগার। অধিনায়ক সাদ বিন জাফর ও নিখিল দত্ত তাদের বৈচিত্র্যময় স্পিন দিয়ে প্রতিপক্ষ ব্যাটারদের নিষ্ক্রিয় করে রাখতে চাইবেন।

দিনের অপর ম্যাচে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৩০ মিনিটে শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে মাত্র একটি বিশ্বকাপ খেলা পাপুয়া নিউগিনি। যেখানে তিনটি ম্যাচের তিনটিতেই হার দিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিলেন তারা।

এছাড়া সর্বশেষ পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের পাপুয়া নিউগিনি জিতেছে তিনটিতে, হেরেছে দুটি ম্যাচ যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতেছে চারটি ম্যাচ, হেরেছে মাত্র একটি।

দুইবার বিশ্বকাপের শিরোপা জেতা ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে ঘরের মাঠে এবারের বিশ্বকাপের ফেভারিট দক্ষিণ আফ্রিকাকে একপ্রকার নাস্তানাবুদ করে ছেড়েছে। এখন দেখার পালা পাপুয়া নিউগিনির সঙ্গে কী হয়!

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App