×

খেলা

মার্কিন মুলুকে বাংলাদেশ ভারত দ্বৈরথ আজ

Icon

প্রকাশ: ০১ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মার্কিন মুলুকে বাংলাদেশ ভারত দ্বৈরথ আজ

কাগজ প্রতিবেদক : মার্কিন মুলুকে আগামীকাল প্রথমবারের মতো পর্দা উঠতে যাচ্ছে বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। তাতে গ্রুপপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৮ জুন মাঠে নামবে টাইগাররা। যেখানে ৫ জুন মাঠে নামবে সদ্য আইপিএল শেষ করা রোহিত শর্মার দল। গ্রুপপর্বের আগে নিজেদের প্রস্তুতিকে আরো একধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে আজ মাঠে নামবে ক্রিকেটাঙ্গনের দুই চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী বাংলাদেশ ও ভারত। পরিসংখ্যান বলছে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির মঞ্চে ২০১৯ থেকে ২০২৩ পর্যন্ত বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ৫টি ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছে মাত্র একটি ম্যাচ। যেখানে ভারত জিতেছে ৪টি ম্যাচ। যদিও সময় পাল্টেছে, পাল্টেছে দুই দলের নিজস্ব পরিকল্পনা। এদিকে নিজেদের প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য গত বুধবার থেকে নিউইয়র্কের হিকসভিল অঞ্চলের ক্যান্টিয়াগ পার্কে অনুশীলনে ব্যস্ত সময় পার করছেন কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের শিষ্যরা। যদিও সেখানে দলের জন্য প্রাপ্ত সুবিধা নিয়ে আইসিসির প্রতি অভিযোগের আঙুল তুলছে ভারত।

আইপিএল শেষ করে ওয়ার্মআপ (প্রস্তুতি) ম্যাচের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছার পর রোহিত শর্মারা প্রথম অনুশীলনে নেমেছেন গত বুধবার। অনুশীলনের ভেন্যু ছিল নিউইয়র্কের হিকসভিল অঞ্চলের ক্যান্টিয়াগ পার্ক। তবে এ মাঠের অনুশীলন সুবিধা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধান কোচ রাহুল দ্রাবিড়। ভারতের সংবাদমাধ্যম ‘নিউজ-১৮’ দলের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্রের মাধ্যমে বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পেরেছে। সূত্রটি আরো জানায়, ‘পিচ থেকে শুরু করে অন্যান্য সুযোগ সুবিধা এই মাঠের সব কিছুই অস্থায়ী। এটা বলা নিরাপদ হবে যে, এখানকার সব কিছুই গড়পড়তা মানের। দল এ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে। এছাড়া দলের অনুশীলন ব্যবস্থার ঘাটতিই নয়, পর্যাপ্ত খাবারও ছিল না। অনুশীলন সেশন কাভার করতে যাওয়া বক্সে সাংবাদিকদের খাবার পরিবেশন করা হয়েছিল। খেলোয়াড়েরাও খুশি ছিলেন না।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) পক্ষ থেকেও খাবার নিয়ে উদ্বেগ জানানো হয়েছিল’। নিউজ-১৮ এ বিষয়ে আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। তবে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইসিসি) অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, ‘ক্যান্টিয়াগ পার্কের অনুশীলন সুবিধা নিয়ে কোনো দল অভিযোগ বা উদ্বেগ প্রকাশ করেনি’। অন্যদিকে আজ রাতে নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নামবে ভারত। এই ম্যাচ সামনে রেখে রোহিতের দল পরশু যে মাঠে অনুশীলন করেছে, তা নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়াম থেকে বেশ দূরে অবস্থিত। যুক্তরাষ্ট্রে এমনিতেই ক্রিকেটের তেমন জনপ্রিয়তা নেই। প্রথমবার কোনো বৈশ্বিক ক্রিকেট আসর আয়োজন করতে চললেও স্থানীয়দের মধ্যে তেমন আগ্রহ নেই। তার ওপর আবহাওয়াও ক্রিকেটের অনুকূল নয়। গত কয়েক দিনে নিউইয়র্কের বেশ কিছু এলাকায় বৃষ্টি হয়েছে। আরেক ভেন্যু ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়াম ঝড়ের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাতে বাংলাদেশ-ভারতের ম্যাচের আগে আবহাওয়ার বিষয়টি ভোগাবে রোহিত শর্মা-শান্তদের। এদিকে মূল দলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে না যাওয়ায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচে বিরাট কোহলির খেলা নিয়ে বেশ সংশয় ছিল আগে থেকে। তবে গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের পথে উড়াল দিয়েছেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান স্কোরার এ ব্যাটার। সদ্য শেষ হওয়া আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে ফর্মে ছিলেন কোহলি। সদ্য সমাপ্ত আসরে সবচেয়ে বেশি রান এসেছে তার ব্যাট থেকেই। কিন্তু এলিমিনেটর থেকে তার দল বিদায় নেয়ার পর বোর্ডের থেকে ছুটি নেন তিনি। তাতেই মূল দলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান ধরতে পারেননি তিনি।

এদিকে মাত্র চার মাসের মধ্যেই তৈরি হওয়া নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামের বর্তমান রূপ দেখে অভিভূত শান্ত-রোহিতরা। স্টেডিয়ামটির ইস্টার্ন গ্র্যান্ডস্ট্যান্ড দেখে নাজমুল বিস্মিত স্বরে বলেছেন, ‘এমন হবে প্রত্যাশা করিনি। আমার মনে হচ্ছে একেবারে পূর্ণাঙ্গ স্টেডিয়াম। মাঠটিকেও বেশ সুন্দর দেখাচ্ছে।

পুরোদস্তুর ক্রিকেট মাঠ। সত্যি বলতে কী, এমন কিছু প্রত্যাশা করিনি। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখেছি উইকেট কেমন দেখাচ্ছে, মাঠ কেমন হবে। এখানে যা হতে চলেছে, তাতে রোমাঞ্চিত। দারুণ লাগছে। একদম খ্যাপাটে মনে হচ্ছে’। আর রোহিত শর্মা বলেছেন, ‘সুন্দর দেখাচ্ছে। খোলা একটা মাঠ। প্রথম যে ম্যাচ খেলব, এখানকার আবহটা পেতে তর সইছে না। ধারণক্ষমতাও ভালো। আশা করি ভালো হবে’। এ মাঠেই গ্রুপপর্বে নিজেদের প্রথম তিনটি ম্যাচ খেলবে রোহিতরা। এর মধ্যে আছে ৯ জুন পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটিও। এ মাঠের কন্ডিশন বোঝায় তাই গুরুত্ব দিচ্ছেন রোহিত। তার আশা, স্থানীয় বাসিন্দাদের মনোযোগ আকর্ষণ করবে বিশ্বকাপ, ‘আমি নিশ্চিত, বিভিন্ন দলের সমর্থকরা বেশ রোমাঞ্চিত, এ টুর্নামেন্টের জন্য মুখিয়ে আছে। আর খেলোয়াড়দেরও তর সইছে না’। বিশ্বকাপে ভারতের প্রথম ম্যাচে আগামী ৫ জুন আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে। ৯ জুন হাই ভোল্টেজ ম্যাচে চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে ভারত। আর বাংলাদেশ এ মাঠেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে ১০ জুন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App