×

খেলা

নাসরের জয়ের রাতে রোনালদোর রেকর্ড

Icon

প্রকাশ: ২৯ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

নাসরের জয়ের রাতে রোনালদোর রেকর্ড

কাগজ ডেস্ক : সৌদি প্রো লিগে মৌসুমের শেষ ম্যাচে আল ইত্তিহাদকে ৪-২ গোলে হারিয়ে দিয়েছে আল নাসর। জোড়া করেছেন দলের প্রধান তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। গতকাল কিং সৌদ ইউনিভার্সিটির আল আওয়াল পার্কে গোল উৎসবের শুরুটা করেন রোনালদো। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ের তৃতীয় মিনিটে গোল করেন তিনি। এই ম্যাচে আল ইত্তিহাদ রোনালদোর দলের বিপক্ষে তেমন কোনো সুবিধাই করতে পারেনি। টানা ৩ গোল হজম করে তারা। অবশ্য তাদের ব্যাকফুটে চলে যাওয়ার কারণও আছে। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে আল ইত্তিহাদের তারকা সুয়াইলেম আল ম্যানহালি লালকার্ড দেখেন। এতে ১০ দলের পরিণত হয় সফরকারীরা। সেই সুযোগটিই কাজে লাগায় রোনালদোর আল নাসর। গোল করে ব্যবধানও বাড়িয়ে নেয় তারা। আর এই ম্যাচে দুই অর্ধে দুটি গোল করে সৌদি ফুটবল ইতিহাসে নাম লেখিয়েছেন রোনালদো। সর্বমোট ৩৫ গোল করে এই লিগের ৪৮ বছরের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছেন তিনি। আগের রেকর্ডটি মরক্কোর ফরোয়ার্ড আব্দের রাজ্জাক হামাদাল্লাহর। ২০১৮-১৯ মৌসুমে আল নাসরের হয়ে ৩৪ গোল করেছিলেন তিনি। লিগের সর্বোচ্চ গোল স্কোরের পাশাপাশি আরেকটি অনন্য কীর্তি গড়েছেন পর্তুগিজ মহাতারকা। ভিন্ন চারটি লিগের সর্বোচ্চ গোল স্কোরার হওয়া প্রথম ফুটবলার তিনিই। ইউরোপের তিন শীর্ষ লিগ, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগা ও সিরি-আ হয়ে সৌদি প্রো লিগেও তিনি গোলের তালিকায় সবার ওপরে নিজেকে রাখলেন।

সৌদি প্রো লিগে এবারের লিগ শিরোপা আগেই নিজেদের করে নিয়েছে আল হিলাল। তাই গতকালের ম্যাচটি আল নাসরের জন্য ছিল কেবলই নিয়মরক্ষার। তবে রোনালদোর জন্য ছিল মাইলফলক গড়ার। অবশ্য রেকর্ডের জন্য রোনালদোকে অপেক্ষা করতে হয় প্রথমার্ধের যোগ করা সময় পর্যন্ত। মোহাম্মদ আল ফাতিলের বাড়ানো লম্বা পাস বুক দিয়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দারুণ দক্ষতায় গোল করে আল নাসরকে এগিয়ে দেন রোনালদো। এটি ছিল লিগে রোনালদোর ৩৪ নম্বর গোল। এতে লিগ ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা হামদাল্লাহকে ছুঁয়ে ফেলেন রোনালদো। অবশ্য এ গোলের আগে রোনালদোর আরো দুটি গোল বাতিল হয়েছিল অফসাইডের ফাঁদে। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় নাসর। বিরতির পর গোল পেতে মরিয়া রোনালদো-সাদিও মানেরা আক্রমণের ঢেউ তোলেন ইত্তিহাদ রক্ষণে। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে বক্সের বাইরে রোনালদোকে ফেলে দিয়ে সরাসরি লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ইত্তিহাদ ডিফেন্ডার আল মেনহালি। ১০ জনের দলে পরিণত হয় ইত্তিহাদ। বক্সের বাইরে পাওয়া ওই ফ্রি কিক থেকে অল্পের জন্য গোলবঞ্চিত হন রোনালদো। আল নাসর তারকার শট ইত্তিহাদের রক্ষণ দেয়ালে লেগে পোস্ট ঘেঁষে বাইরে চলে যায়। তবে গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি রোনালদোকে। ওই কর্নার থেকে দারুণ হেডে ইত্তিহাদের জালে বল জড়ান তিনি। একই সঙ্গে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটা নিজের করে নেন রোনালদো। পাঁচ মিনিট পরে রোনালদোকে তুলে নেন নাসর কোচ লুইস কাস্ত্রো।

ম্যাচের ৭৯ মিনিটে পেনাল্টি থেকে স্কোরলাইন ৩-০ করেন আবদুর রহমান ঘারিব। তবে শেষ দিকে জমে ওঠে ম্যাচ। দুই গোল ফেরত দিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর আভাস দেয় ইত্তিহাদ। তবে যোগ করার সময়ের পঞ্চম মিনিটে মিশারি আল নেমেরের গোলে ৪-২ ব্যবধানের জয় নিশ্চিত হয় নাসরের। রোনালদোর জন্য রেকর্ড ভাঙার মঞ্চটা প্রস্তুতই ছিল। পাশাপাশি কিছুটা উদ্বেগও হয়তো ছিল। সৌদি প্রো লিগে মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড ভাঙতে হলে লিগের শেষ ম্যাচেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে করতে হতো দুই গোল। নামটা যখন রোনালদো, অসম্ভব কিছুই নয়। লিগের শেষ দিনে আল ইত্তিহাদের বিপক্ষে আল নাসরের ৪-২ ব্যবধানে জেতা ম্যাচে ঠিকই জোড়া গোল করলেন পর্তুগিজ মহাতারকা। এই দুই গোলের পর সৌদি লিগে রোনালদোর গোল সংখ্যা এখন ৩৫। ২০১৮-১৯ মৌসুমে আদ্বের রাজাক হামাদাল্লাহর করা ৩৪ গোলের রেকর্ড ভেঙে দিলেন ‘সিআর সেভেন’। মরক্কোর স্ট্রাইকার হামাদাল্লাহও রেকর্ডটি গড়েছিলেন আল নাসরের হয়ে। হামাদাল্লাহ অবশ্য রেকর্ডটি গড়ার পথে খেলেছিলেন ২৬ ম্যাচ, আর রোনালদো রেকর্ডটি ভেঙেছেন ৩১ ম্যাচ খেলে। ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে ফ্রি ট্রান্সফারে আল নাসরে যোগ দেয়া রোনালদো সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ক্লাবটির হয়ে ৬৯ ম্যাচে করেছেন ৬৪ গোল। আর চলতি মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪৪ ম্যাচে রোনালদো গোল করেছেন ৪৪টি। রেকর্ড ভাঙার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের প্রতিক্রিয়াও জানিয়েছেন রোনালদো। রোনালদো লিখেছেন, ‘আমি রেকর্ডের পেছনে ছুটি না, রেকর্ডই আমার পেছনে ছোটে’। রোনালদোর গোলের রেকর্ডও অবশ্য শেষ পর্যন্ত আল নাসরের লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধারের জন্য যথেষ্ট হয়নি। শীর্ষে থেকে শিরোপা জেতা আল হিলালের চেয়ে ১৪ পয়েন্টে পিছিয়ে দুই নম্বরে থেকে লিগ শেষ করেছে তারা। ৩৪ ম্যাচ শেষে অপরাজিত থেকে লিগ শেষ করা আল হিলালের পয়েন্ট ৯৬, আর দুইয়ে থাকা আল নাসরের পয়েন্ট সমান ম্যাচে ৮২।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App