×

খেলা

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন নারী লিগ

মুর্শিদার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সহজ জয় মোহামেডানের

Icon

প্রকাশ: ২৪ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মুর্শিদার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সহজ জয় মোহামেডানের

কাগজ প্রতিবেদক : আগের দিন ফেডারেশন কাপের ফইনালে জিততে জিততে হারলেও গতকালের দিনটা ছিল মোহামেডানের রেকর্ড গড়ার দিন। তবে সেটা ফুটবলে নয় ২২ গজের মাঠে অর্থাৎ ক্রিকেটে। গতকাল ঢাকা ডিভিশন নারী প্রিমিয়ার লিগে রেকর্ড গড়ার ম্যাচে গুলশান ইয়ুথ ক্লাবকে ২৫১ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। তবে এ ম্যাচটি আলোচিত অন্য কারণে, গতকালের ম্যাচটিতে প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে রেকর্ড পরিমাণ ৩৯২ রান সংগ্রহ করেছে মোহামেডান। তাতে ২০২২-২৩ মৌসুমে কেরানীগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমির বিপক্ষে বিকেএসপির করা ৩২১ রানের রেকর্ডকে পেছনে ফেলেছে মোহামেডান। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১৭৯ রান করে ব্যক্তিগত আরেক রেকর্ড করেছেন মোহামেডানের ওপেনার মুর্শিদা খাতুন হ্যাপি। দলের হয়ে আরেকটি চোখধাঁধানো ইনিংস খেলে সেঞ্চুরি করেন সোবহানা মোস্তারি। দুই ওপেনারের জোড়া সেঞ্চুরিতে বিশাল পুঁজি সংগ্রহ করে মোহামেডান। দিনের আরেক ম্যাচে সিটি ক্লাবকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে নিগার সুলতানার রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ। দিনের অপর ম্যাচে বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতিকে ১৪ রানে হারিয়েছে বিকেএসপি।

ডিপিএলের চলতি মৌসুমে গতকাল বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে গুলশান ইয়ুথ ক্লাবকে ২৫১ রানে হারিয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোভাবে করে মোহামেডান। শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ১৩৫ রানের উদ্বোধনী জুটি পায় মোহামেডান। ফারিয়া আক্তারের বলে ৪১ বলে ৭৫ রান করে ভারতীয় রিক্রুট জেসিয়া আক্তার আউট হয়ে গেলে এই জুটি ভাঙে। জেসিয়া সাজঘরে ফিরলে সোবহানা মোস্তারির সঙ্গে ২৯৭ রানের জুটি গড়ে দলীয় রানের হাল ধরেন আরেক ওপেনার মুর্শিদা খাতুন। তবে ইনিংসের এক বল বাকি থাকতেই ফারিহার বলে ক্যাচ দেয়ার আগে ৬ চার ও ৭ ছক্কায় ১০১ বলে ১২৮ রান করে আউট হন সোবহানা।

তাতে শেষ অবধি অপরাজিত থাকা মুর্শিদা গড়েন প্রিমিয়ার লিগে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। ২৩ চার ও ২ ছক্কায় ১৫৭ বলে ১৭৯ রান করেন তিনি। এতদিন নারী প্রিমিয়ার লিগে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডধারী ছিলেন জেসিয়া আক্তার। গত আসরে মোহামেডানের হয়ে এই রান করেন ভারতীয় রিক্রুট এই ব্যাটার। গুলশানের হয়ে ৩ উইকেট নেন ফারিয়া আক্তার। তাতে নির্ধারিত ইনিংস শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে রেকর্ড ৩৯২ রান করে তারা। এদিকে মোহামেডানের ৩৯২ রানও নারী প্রিমিয়ার লিগের রেকর্ড। এর আগে গত আসরে কেরানীগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমির বিপক্ষে করা বিকেএসপির ৩২১ রান ছিল সর্বোচ্চ। পাহাড়সম রান তাড়া করতে নেমে একদমই সুবিধা করতে পারেনি গুলশান ইয়ুথ ক্লাব।

৩৯২ রান তাড়ায় অভিজ্ঞ সালমা ও রুমানার বোলিংয়ে বেশি দূর যেতে পারেনি গুলশান ইয়ুথ ক্লাব। দুজন মিলে নিয়েছেন ৫ উইকেট, জাতীয় দলের পেসার ফারিহা তৃষ্ণা আরো ২ উইকেট নিলে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে দলটি। শেষ পর্যন্ত ৪৯.৪ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান করেছে গুলশান ইয়ুথ ক্লাব। ৬৫ বলে দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৩২ রান করেন সাদিয়া ইসলাম আশা। মোহামেডানের পক্ষে ১০ ওভারে স্রেফ ৯ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন রুমানা। দুটি করে উইকেট পান ফারিহা তৃষ্ণা, সালমা খাতুন ও সাবিকুন নাহার। অন্যদিকে আরেক ম্যাচে বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে সিটি ক্লাবকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ। শুরুতে ব্যাট করে ১১৬ রানে অলআউট হয় সিটি ক্লাব, ওই রান ১৬ ওভার ৩ বলেই তাড়া করে ফেলে রূপালী ব্যাংক। আগে ব্যাট করা সিটি ক্লাবকে দাঁড়াতে দেননি রূপালি ব্যাংকের ভারতীয় পেসার মুক্তা মাগরে। তিনি ১৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিলে ৪৪.৪ ওভারে ১১৬ রানে থামে সিটি ক্লাব। বাকি কাজটা করেন রূপালী ব্যাংকের দুই ওপেনার ইসমা তানজিম (৬৭) ও ফারজানা হক (৫১)। দুজনের অপরাজিত অর্ধশতকে ১৬.৩ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে জিতেছে রূপালী ব্যাংক। সিটি ক্লাবের হয়ে ৫৭ বলে সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন গার্গি সুনীল ওয়ানকার। রূপালি ব্যাংকের হয়ে ৪ উইকেট নেন মুক্তা রাবীন্দ্র মার্গে। রান তাড়ায় নেমে রূপালী ব্যাংকের দুই ওপেনারই ম্যাচ জিতিয়ে দেন। ৫৪ বলে ৬৭ রান করে ইসমা তানজিম ও ৪৫ বলে ৫১ রান করে ফারজানা হক অপরাজিত থাকেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App