×

খেলা

দেশ ছাড়ার আগে হাথুরু-শান্ত যা বললেন

Icon

প্রকাশ: ১৬ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

দেশ ছাড়ার আগে হাথুরু-শান্ত যা বললেন
কাগজ প্রতিবেদক : জুনে যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ নিয়ে অতিরিক্ত আশা না করতে আগেই বারণ করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। দলনেতার এই বক্তব্য টেনে প্রধান নির্বাচকের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তাদের প্রত্যাশা কী। লিপুও শান্তর সুরে তাল মিলিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশ সেমিফাইনাল খেলবে এটা বলার পর্যায়ে যায়নি। গতকাল ফটোসেশন শেষে কোচ হাথুরুসিংহে ও অধিনায়ক নাজমুল হোসেনের সংবাদ সম্মেলনে বেশ ফুরফুরে মেজাজে ছিলেন। হাথুরুসিংহে বেশ আত্মবিশ্বাস নিয়েই বলেছেন, ‘প্রস্তুতি আমার মনে হয় ভালো হয়েছে। চট্টগ্রামে ভালো ক্যাম্প হয়েছে। জিম্বাবুয়ের সঙ্গে পাঁচটা ম্যাচ পেয়েছি। যেখানে আমরা অনেককেই ম্যাচের বিভিন্ন পরিস্থিতিতে খেলিয়ে দেখেছি। কিছু দুশ্চিন্তা আছে কয়েকজনকে নিয়ে। তবে সব মিলিয়ে ভালোই হচ্ছে।’ আর প্রত্যাশা? এ নিয়ে হাথুরুসিংহে খুব বড় কিছুর কথা বলেননি, ‘আমরা ভালো ক্রিকেট খেলছি, আইসিসি ইভেন্টের বাইরে। আমিও জানি, দেশের প্রত্যাশা আছে বড় কিছু করার। আমাদেরও তাই। প্রথম লক্ষ্য হচ্ছে, গ্রুপ পর্ব পার করা। বাকিটা তখন দেখা যাবে।’ তবে ভালো করার বিষয়টা অনেকাংশে নির্ভর করবে কন্ডিশনের ওপর, ‘আমাদের ওই দেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রে খেলা আমাদের সবার জন্যই নতুন অভিজ্ঞতা। আমাদের টাইমজোন, আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। হয়তো দু-একটি সমন্বয়ও চেষ্টা করব। তার মানে মূল খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দেয়া...।’ সংবাদ সম্মেলন যেহেতু কোচ ও অধিনায়কের, বিশ্বকাপ দলের আলোচ্য বিষয় সাইফউদ্দিন ও তানজিম হাসানের মধ্যে তানজিমকে সুযোগ দেয়ার বিষয়টিও এসেছে। এ ব্যাপারে হাথুরুসিংহকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘আমরা দুজনকেই সুযোগ দিয়েছি। সাকিব (তানজিম) একটু জোরে বল করে। সাইফউদ্দিনের চেয়ে জোরে। দুজনকে বিভিন্ন অবস্থায় সুযোগ দিয়ে দেখেছি এবং সে চাপের মুখে ভালো করে। আর সে দলের সঙ্গে লম্বা সময় ধরে আছে। তাই সাকিবকে বেছে নেয়া হয়েছে।’ একই প্রসঙ্গে নাজমুলের উত্তর ছিল এমন, ‘দল নির্বাচন নিয়ে আমরা সবাই অনেক আগে থেকে আলোচনা করছিলাম। শুধু জিম্বাবুয়ে সিরিজ নয়, এর আগেও। আমাদের সবার সম্মিলিত সিদ্ধান্ত এটা। আর সাকিব-সাইফউদ্দিন, যেটা কোচও বলেছেন, সাকিবের পেসটা বেশি। আমি ডিটেইল বলতে চাই না। তবে খুব ক্লোজ ছিল।’ রানে না থেকেও লিটন দাসকে দলে রাখা নিয়ে নাজমুল তার ব্যাখ্যায় বলেছেন, ‘লিটন আমাদের খুব গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার। কয়েকটা সিরিজ খারাপ গিয়েছে। তবে আমরা নতুন কাউকে এখন চাইনি। অভিজ্ঞতাকেই গুরুত্ব দিয়েছি। আশা করছি, সে ভালোভাবে ফিরবে।’ বিশ্বকাপ নিয়ে অধিনায়কের প্রত্যাশার প্রসঙ্গেও জানা কথাটা বলেছেন নাজমুল, ‘বাংলাদেশের সবাই প্রত্যাশা করবে। আমিও করব। আমার মনে হয়, আমরা যদি সুন্দরভাবে ছোট ছোট চিন্তা করে এগোই, তাহলে ভালো হবে। আমরা যে গ্রুপে আছি, সেটাকে খুব সহজ বলব না। গ্রুপ পর্বটা পার করতে পারলে ভালো হবে। এরপর দেখা যাবে।’ ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কিছুদিন আগেও টাইগারদের অধিনায়ক ছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাজে ফর্ম ও ফিটনেসের ঘাটতির কারণে সেই বিশ্বকাপটা খেলাই হয়নি তার। এরপর তো ওয়ানডে দল থেকেও বাদ পড়েন তিনি। বয়োজ্যেষ্ঠ রিয়াদের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের সেখানেই শেষ দেখে ফেলেছিলেন অনেকেই। কিন্তু রিয়াদ হাল ছাড়েননি। নীরবে-নিভৃতে চালিয়েছেন ফেরার লড়াই। সেই লড়াইয়ে জিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপে দলের সেরা পারফর্মার হয়েছেন রিয়াদই। আর এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে যাদের স্থান হওয়াটা ছিল প্রশ্নের ঊর্ধ্বে, রিয়াদ তো তাদেরই একজন। রিয়াদের একাগ্রতা ও খেলার প্রতি নিবেদন দেখে মুগ্ধ দলের আরেক সিনিয়র সদস্য সাকিব আল হাসান থেকে কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে পর্যন্ত। চন্ডিকা হাথুরুসিংহের প্রথম দফা কোচিংয়ের সময় তার সঙ্গে রিয়াদের সম্পর্ক নিয়ে শোনা গিয়েছিল নানান কানাঘুষা। রিয়াদের খেলার ধরন নাকি পছন্দ নয় এই লঙ্কান কোচের। টেস্ট দল থেকে রিয়াদকে ছেঁটে ফেলতেও চেয়েছিলেন হাথুরুসিংহে। যে কারণে অভিমান করে টেস্ট দল থেকে অবসরও নিয়ে নেন তিনি। সেই রিয়াদেরই লড়াকু মানসিকতায় মুগ্ধ এখন হাথুরুসিংহে। ৩৮ বছর বয়সেই তিনি যেভাবে খেলছেন তার প্রশংসা করছেন এই লঙ্কান কোচ। গতকাল বাংলাদেশ দলের আনুষ্ঠানিক ফটোসেশন শেষে গণমাধ্যমের সামনে রিয়াদকে নিয়ে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘রিয়াদ দুর্দান্ত কামব্যাক করেছে। কিছুটা দেরি হলেও সে এখন নিজের সেরা ক্রিকেট খেলছে। ব্যাটিং অ্যাপ্রোচে অনেক পরিবর্তন এনেছে, এই মুহূর্তে দারুণ ফর্মে আছে। মিডলঅর্ডারে তার ভূমিকা কেমন হচ্ছে, ফিনিশার হিসেবে ভূমিকা কেমন হচ্ছে, এটা গুরুত্বপূর্ণ হতে যাচ্ছে। যেটা ঘরোয়া ক্রিকেটের সব ফরম্যাট থেকে শুরু করে সবখানেই দারুণভাবে করে আসছে।’

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App