×

খেলা

টাইগারদের এবার যুক্তরাষ্ট্র মিশন

Icon

প্রকাশ: ১৪ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

টাইগারদের এবার যুক্তরাষ্ট্র মিশন
কাগজ প্রতিবেদক : আগামী ২ জুন মাঠে গড়াচ্ছে নবম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০ দলের অংশগ্রহণে এবারের বিশ্বকাপের আয়োজক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্র। ২০ দলকে চার গ্রুপে বিভক্ত করা হয়েছে। বাংলাদেশ পড়েছে ‘ডি’ গ্রুপে। বাংলাদেশের সঙ্গে ‘ডি’ গ্রুপে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা, নেদারল্যান্ডস ও নেপাল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতিমূলক সিরিজ শেষ। এবার বিশ্বকাপের বিমানে ওঠার অপেক্ষায় টাইগাররা। ১৫ মে রাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। তার আগে ওই দিনই হবে অফিশিয়াল ফটোশুট। বিসিবি কর্মকর্তাদের সঙ্গে ক্রিকেটারদের একটা মধ্যাহ্নভোজও আছে সূচিতে। বিশ্বকাপের দুই সপ্তাহের বেশি আগে বাংলাদেশ দল যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছে মূলত যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিন ম্যাচের প্রস্তুতিমূলক সিরিজ খেলতে। হিউস্টনের প্রেইরি ভিউতে ২১, ২৩ ও ২৫ মে ম্যাচ তিনটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায়। হিউস্টন থেকে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচের ভেন্যু ডালাসের দূরত্ব সড়কপথে ঘণ্টাতিনেকের। আবহাওয়াও অনেকটাই মিল। ডালাসের কন্ডিশন বুঝতে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজটি কাজে দেবে বলেই আশা বাংলাদেশ দলের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে যুক্তরাষ্ট্রে উড়াল দেয়ার আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারের স্বাদ পেয়েছে বাংলাদেশ। সেটাও যেনতেন কোনো হার নয়, বেশ বিব্রতকর বললেও কম হবে। জিম্বাবুয়ের জন্য গত রবিবারের ম্যাচটা ছিল হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম চারটি জিতে আগেই সিরিজ জিতে নিয়েছিল বাংলাদেশ। সিরিজ জিতলেও পারফরম্যান্সে ছিল বিশাল ঘাটতি। ব্যাটিং, বোলিং দুই বিভাগেই ছিল আত্মবিশ্বাসের কমতি। শেষ ম্যাচে সেসব শুধরে বিশ্বকাপের পথে এগিয়ে যেতে চেয়েছিল শান্তের দল। কিন্তু মিরপুর শের-ই-বাংলায় নিজেদের ডেরায় উল্টো হারের স্বাদ পেতে হয়েছে। জিম্বাবুয়ে তুলে নিয়েছে ৮ উইকেটের বিশাল জয়। বিশ্বকাপের আগে এই ম্যাচই ছিল আইসিসির পূর্ণ সদস্য দলের বিপক্ষে শেষ ম্যাচ। বৈশ্বিক মঞ্চে মাঠে নামার আগে সহযোগী দেশ যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিন ম্যাচ খেলবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। কিন্তু পূর্ণ সদস্য জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ম্যাচ খেলতে নেমে নিজেদের অবস্থান আরো তলানিতে নিয়ে গেল বাংলাদেশ তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশ ৬ উইকেটে ১৫৭ রান করে। জবাবে জিম্বাবুয়ে ৯ বল আগেই তুলে নেয় দারুণ এক জয়। বিশ্বকাপের আগমুহূর্তে ঘরের মাটিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ। এমন চেনা সিলেবাসেও ‘ঢাহা ফেইল’ বাংলাদেশের টপঅর্ডার। অবশ্য আসন্ন বিশ্বকাপের আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষার আর সময় নেই। ব্যাকফুটে থাকা ক্রিকেটারদের নিয়েই বিশ্বকাপে এখন ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে আগামী ২১ মে শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। পরের দুই ম্যাচ যথাক্রমে ২৩ ও ২৫ মে অনুষ্ঠিত হবে। সবগুলো ম্যাচই হবে টেক্সাসের হিউস্টনের প্রেইরি ভিউ ক্রিকেট কমপ্লেক্স মাঠে। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের গ্রুপ পর্বের দুটি ম্যাচ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। ৮ জুন সকাল সাড়ে ৬টায় টেক্সাসের ডালাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বমঞ্চে যাত্রা শুরু করবে টাইগাররা। এরপর ১০ জুন নিউইয়র্কে রাত সাড়ে ৮টায় তাদের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। নিউইয়র্কের অপেক্ষাকৃত ঠাণ্ডা আবহাওয়ায়ও বিশ্বকাপের আগেই খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। আইসিসি এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে প্রস্তুতি ম্যাচের সূচি ঘোষণা না করলেও এটা নিশ্চিত যে, বিশ্বকাপের অফিশিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ প্রতিপক্ষ হিসেবে ভারতকেই পাচ্ছে। ম্যাচের ভেন্যু এবং তারিখও ঠিক হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে একটি সূত্র। নিউইয়র্কে ১ জুন বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হবে বাংলাদেশ-ভারত প্রস্তুতি ম্যাচটি। আইসিসির প্রস্তাবিত সূচি অনুযায়ী ২৮ মে ডালাসে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে বাংলাদেশের আরেকটি প্রস্তুতি ম্যাচ রাখা হয়েছে। তবে বিসিবির আপত্তিতে তা না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি বলে জানা গেছে। কারণ যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজ খেলার পর তাদেরই বিপক্ষে আরেকটি ম্যাচ খেলার কোনো অর্থ হয় না। তাছাড়া প্রস্তুতি ম্যাচে প্রতিপক্ষ হিসেবে বড় কোনো দলকে চায় বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস ও নিউইয়র্কে গ্রুপ পর্বের প্রথম দুটি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ডালাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ আগামী ৮ জুন, খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৬টায়। ১০ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ শুরু রাত সাড়ে ৮টায়। গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের বাকি দুই ম্যাচ ওয়েস্ট ইন্ডিজে। ১৩ জুন সেন্ট ভিনসেন্টে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু ম্যাচে প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডস। ১৭ জুন একই ভেন্যুতে নেপালের বিপক্ষে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৫টায়। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ৪-১ ব্যবধানে জিতলেও ব্যাটিং নিয়ে বাংলাদেশের দুশ্চিন্তা থেকেই যাচ্ছে। রবিবার সিরিজের শেষ ম্যাচে হারের পর এ নিয়ে বাংলাদেশের সাবেক টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে কথা বলেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। সূত্র জানিয়েছে, তার সঙ্গে কথা বলে বোর্ড সভাপতি দলের ব্যাটিং-ব্যর্থতার কারণটাই বুঝতে চেয়েছেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App