×

খেলা

সবার নজর ইউরোপের তিন ফাইনালে

Icon

প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

 সবার নজর ইউরোপের তিন ফাইনালে
কাগজ ডেস্ক : ইউনিয়ন অব ইউরোপিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বা উয়েফা কর্তৃক আয়োজিত তিনটি লিগের ফাইনাল খেলা চূড়ান্ত হয়েছে মাত্র তিন দিনে। চলতি মে মাসেই অনুষ্ঠিত হবে দুটি লিগের ফাইনাল আসর। আরেকটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী জুন মাসের ২ তারিখ। ফাইনাল তিনটির মধ্যে প্রথম খেলাটি হবে ২৩ মে। উয়েফা ইউরোপা লিগের ফাইনাল ম্যাচে খেলবে ইতিহাস তৈরি করা জার্মানির ক্লাব বায়ার লেভারকুসেন এবং ইতালির ক্লাব আটলান্টা। ৩০ মে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় ফাইনাল ম্যাচটি। উয়েফা কনফারেন্স লিগের এই ফাইনালে খেলবে টানা দ্বিতীয়বার কনফারেন্স লিগে ফাইনাল খেলা ইতালির ক্লাব ফিওরেন্তিনা এবং গ্রিসের ক্লাব অলিম্পিয়াকোস। এবারের ইউরোপিয়ান তিন প্রতিযোগিতার মাঝে সবচেয়ে জমজমাট ফাইনাল ম্যাচটি হবে জুনের ২ তারিখ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের ১৫তম শিরোপা নিশ্চিত করতে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে স্পেনের রিয়াল মাদ্রিদ। তিন প্রতিযোগিতার মাঝে সবচেয়ে জনপ্রিয় চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৮ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় এক নম্বরে আছেন তিনজন। এর মধ্যে নেই দুই ফাইনালিস্ট দলের কোনো খেলোয়াড়। শীর্ষ তিনজন হলেন- হ্যারি কেইন, এমবাপ্পে এবং লুক ডি জং। ইউরোপা লিগে এখন পর্যন্ত পিয়ের এমেরিক অবামেয়াং আছেন সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে। তিনি গোল করেছেন ১০টি। এদিকে কনফারেন্স লিগে এল কাবি ৮ ম্যাচ খেলে ১০ গোল করে গোল্ডেন বল জেতার তালিকায় এগিয়ে আছেন। এবারের ইউরোপিয়ান তিন প্রতিযোগিতার মধ্যে সবচেয়ে জমজমাট সেমিফাইনাল উপহার দিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ এবং রিয়াল মাদ্রিদ। ব্যাপক বিতর্ক আর উত্তেজনায় ঠাসা ম্যাচের পর নিজেদের ১৮তম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল নিশ্চিত করেছে লস ব্লাঙ্কোসরা। প্রথম লেগে বায়ার্ন মিউনিখের মাঠ অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় ২-২ গোলে ড্রয়ের পর সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ২-১ গোলের অবিশ্বাস্য কামব্যাক দেখিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অপর সেমিফাইনালে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনের তারকায় ঠাসা দলকে বিদায় করেছে জার্মানির ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। দুই লেগেই তারা জয় পেয়েছে ১-০ গোলে। তাতেই ১১ বছর পর ফের ফাইনাল খেলতে নামবে দলটি। এবারেও ফাইনালের ভেন্যু সেই ইংল্যান্ডের ওয়েম্বলি। ইউরোপা লিগের সেমিফাইনালের সেকেন্ড লেগ জয় করে ইতিহাস গড়েছে জার্মানির বায়ার লেভারকুসেন। ১৯৫৫ সালে ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতা শুরুর পর সবচেয়ে বেশি ম্যাচ অপরাজিত ছিল পর্তুগালের বেনফিকা। ১৯৬৩ থেকে ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত টানা ৪৮ ম্যাচ হারেনি ক্লাবটি। গতকাল রাতে রোমার বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করে সেই রেকর্ড ভেঙেছে লেভারকুসেন। সেই সঙ্গে ৪-২ গোলের অ্যাগ্রিগেটে নিশ্চিত করেছে ফাইনাল। অন্য সেমিফাইনালে ফ্রেঞ্চ ক্লাব অলিম্পিক মার্শেইকে নিজেদের মাঠে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে জিয়ান গাস্পারেনির দল আটলান্টা। দুই লেগ মিলিয়ে তারা জয় পেয়েছে ৪-১ ব্যবধানে। এটি তাদের ক্লাব ইতিহাসে প্রথম ইউরোপিয়ান ফাইনাল। কনফারেন্স লিগের সেমিফাইনালে বড় চমক দিয়েছিল গ্রিক ক্লাব অলিম্পিয়াকোসের উত্থান। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে দারুণ ছন্দে থাকা অ্যাস্টন ভিলাকে বলতে গেলে মাটিতে নামিয়ে এনেছে তারা। প্রথম লেগেই ৪-২ গোলের জয়ে কাজটা সহজ করে রেখেছিল তারা। এরপর দ্বিতীয় লেগে ২-০ গোলের জয় তাদের নিয়ে যায় নিজেদের প্রথম ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতার ফাইনালে। ফিওরেন্তিনা ম্যাচটাও বেশ উত্তাপ ছড়িয়েছিল। প্রথম লেগে বেলজিয়ামের ক্লাব ব্রুগের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে তারা। এরপর দ্বিতীয় লেগে নব্বই মিনিট পর্যন্ত ছিল ২-২ গোলের সমতা। ম্যাচের ৯১ মিনিটে এমবালা এনজোলার গোলে ৪-৩ অ্যাগ্রিগেটে ফাইনাল নিশ্চিত করে ফিওরেন্তিনা। এখন পর্যন্ত তিনবার ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় রানার আপ হওয়া দলটি এবার আছে নিজেদের প্রথম ইউরোপিয়ান সাফল্যের নেশায়। এরই মাঝে নিশ্চিত করা হয়েছে তিন ফাইনালের ভেন্যু। সেই ভেন্যু বিবেচনায় সবচেয়ে বেশি সুবিধা পাবে গ্রিসের ক্লাব অলিম্পিয়াকোস। নিজে দেশেই ফাইনাল খেলবে তারা। কনফারেন্স লিগের ফাইনাল হবে গ্রিসের রাজধানী এথেন্সের ওপিএপি স্টেডিয়ামে। ইউরোপা লিগের ফাইনাল হবে আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিন আভিভা স্টেডিয়ামে। আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল হবে ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডনের বিখ্যাত ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App