×

খেলা

মেজাজ হারানোর দিনে সাকিবের অনন্য কীর্তি

Icon

প্রকাশ: ০৭ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মেজাজ হারানোর দিনে সাকিবের অনন্য কীর্তি
কাগজ প্রতিবেদক : দেশের ক্রিকেটের পোস্টারবয় খ্যাত সাকিব আল হাসান ক্রিকেট মাঠে ব্যাটে-বলের নৈপুণ্যে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। মাঠের ক্রিকেটে সাকিবের পারফরম্যান্স প্রশংসনীয় হলেও ব্যক্তি সাকিবের আচরণ নিয়ে রয়েছে বিতর্ক, রয়েছে দর্শকদের কাছে এমনকি খোদ সাকিব ভক্তদের কাছেও। নিজের সঙ্গে বিতর্ক না জড়ালে যেন স্বস্তিতে থাকেন না তিনি, তাই একের পর এক উদ্ভট কর্মকাণ্ডে নিজেকে জড়িয়ে আলোচনায় রাখেন সাকিব। সেই ধারাবাহিকতায় এবার নতুন বিতর্কে জড়াল এই তারকা ক্রিকেটারের নাম। গতকাল ফতুল্লায় ডিপিএলে নিজেদের ম্যাচে এক ভক্তের ওপর মেজাজ হারিয়েছেন সাকিব, তাতে তাকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে নেট দুনিয়ায়। তবে মেজাজ হারানোর এমন দিনে নিজেকে রেকর্ড গড়ে ছাড়িয়ে গেছেন টাইগার এ অলরাউন্ডার। বাংলাদেশি বোলার হিসেবে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ৪০০ উইকেটের ক্লাবে নাম লিখিয়েছেন সাকিব আল হাসান। তাতে আব্দুর রাজ্জাক ও মাশরাফি বিন মর্তুজার পরে তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে এ তালিকায় নাম লেখালেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরে ডিপিএলে দুর্দান্ত ফর্মে আছেন সাকিব আল হাসান। আগের দুই ম্যাচের ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছিলেন তিনি। তাতে পাঁচ বছর পর সেঞ্চুরির দেখাও পেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। ডিপিএলে আগের ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের হয়ে সাকিব করেছিলেন ৯ চার ও ৭ ছক্কায় ৭৯ বলে ১০৭ রান। আর গতকাল ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের শেষ রাউন্ডের ম্যাচে বল হাতে নতুন এক অর্জনে নিজেকে জড়িয়ে নিয়েছেন বাঁহাতি স্পিন অলরাউন্ডার। ২ উইকেট নিয়ে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ৪০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন সাকিব। প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের শাহাদাত দিপু ও জাকির হাসানের উইকেট নিয়ে সাকিব পূর্ণ করেন ৪০০ উইকেট। বাংলাদেশের তৃতীয় বোলার হিসেবে সাকিব এই কীর্তি গড়েছেন। তার আগে বাংলাদেশে এই মাইলফলক প্রথম স্পর্শ করেছিলেন স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। দ্বিতীয় বোলার হিসেবে মাশরাফি বিন মর্তুজা লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে চারশ উইকেট পেয়েছিলেন। তাদের পর সাকিব ঢুকলেন এলিট ক্লাবে। গতকাল আগে ফিল্ডিংয়ে নেমে ১০ ওভার বল করে ৪২ রান খরচায় দুই উইকেট তুলে নিয়েছেন সাকিব। যার ফলে এমন কীর্তি গড়েন তিনি। সবার আগে এই মাইলফলক স্পর্শ করেছিলেন আব্দুর রাজ্জাক। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ৪০০ উইকেট স্পর্শ করতে রাজ্জাকের লেগেছিল ২৬৯ ম্যাচ। এছাড়া মাশরাফির লেগেছিল ২৮৭ ম্যাচ। সে হিসেবে সময়টা একটু বেশি লেগেছে সাকিবের। ৪০০ উইকেটের ক্লাবে নাম লেখাতে টাইগার অলরাউন্ডার খেলেছেন ৩০৮ ম্যাচ। যেখানে ওয়ানডে ক্রিকেটে সাকিবের উইকেট ৩১৭টি। বাকি ৮৩ উইকেট সাকিব পেয়েছেন স্বীকৃতি ঘরোয়া প্রতিযোগিতায়। তিনজন ভিন্ন ভেন্যুতে এ রেকর্ড ছুঁয়েছিলেন। রাজ্জাক মিরপুরে, মাশরাফি বিকেএসপিতে ও সাকিব ফতুল্লায়। তবে উইকেট সংখ্যায় মাশরাফি এখনো সবার চেয়ে এগিয়ে। ৩৪৩ ম্যাচে ডানহাতি পেসার পেয়েছেন ৪৬৮ উইকেট। আব্দুর রাজ্জাক ২৮০ ম্যাচে পেয়েছেন ৪১২ উইকেট। তবে ক্যারিয়ারের শেষ পর্যন্ত সাকিব মাশরাফিকে ছাড়িয়ে যেতে পারেন কিনা সেটাই এখন দেখার বিষয়। এদিকে সাকিবের চারশ উইকেটের মাইলফলকের ম্যাচে সবকটি উইকেট হারিয়ে ২৭০ রানে থেমেছে প্রাইম ব্যাংক। জবাব দিতে নেমে ৭১ রানেই গুটিয়ে যায় শেখ জামাল। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে একাই আট উইকেট শিকার করেন রেজাউর রহমান রাজা। এদিকে গতকাল তামিম ইকবালের দল প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে এক বিতর্কে জড়িয়েছেন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ম্যাচের আগে প্রাইম ব্যাংকের কোচ সালাউদ্দিন এবং শেখ জামালের কোচ সোহেল ইসলামের সঙ্গে কথা বলছিলেন সাকিব। এ সময় সেলফি নেয়ার জন্য সাকিবের দিকে এগিয়ে আসে এক ভক্ত। তবে সাকিব ইশারাই না বললেও তাদের আলোচনার মধ্যেই সেলফি নিতে ঢুকে পড়েন সেই ভক্ত। তাতে অনেকটা বাধ্য হয়েই তার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন সাকিব। একপর্যায়ে তার মোবাইল কেড়ে নিয়ে চড় মারতে উদ্যত হন। অবশ্য নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরি হারাননি তিনি। চড় মারতে গিয়েও থেমে যান তারকা অলরাউন্ডার। পরে সেই ভক্তকে অবশ্য মাঠ থেকে বের করে দেয়া হয়। এমন ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে স্টেডিয়ামের নিরাপত্তা নিয়ে। জাতীয় দলের একাধিক তারকা আছেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের খেলায়। তাদের ঠিক সামনে ভক্তদের এমন অবাধ বিচরণ নিয়ে প্রশ্ন আছে। চলতি ডিপিএলেই ফতুল্লার মাঠে দর্শক ঢুকে পড়ার ঘটনা ঘটেছে বেশ কয়েকবার। দর্শকরা জার্সি পরিহিত অবস্থায় এলে মাঠের নিরাপত্তাকর্মীরাও চিন্তায় পড়ে যান তিনি আসলে খেলোয়াড় নাকি ভক্ত।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App