×

খেলা

গ্রুপ পর্বকে চ্যালেঞ্জ ভাবছেন দেশ্যম

Icon

প্রকাশ: ০৩ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

গ্রুপ পর্বকে চ্যালেঞ্জ ভাবছেন দেশ্যম
কাগজ ডেস্ক : এ বছর জুন-জুলাইয়ে জার্মানিতে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উয়েফা ইউরোপীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ১৭তম আসর। এই আসরে স্বাগতিক দেশ জার্মানিসহ মোট ২৪টি দেশ অংশগ্রহণ করবে। ২০১৮ সালে বিশ্বকাপ জয়ের কারণে ইউরোর এবারের আসরেও ফ্রান্সকে ফেবারিট হিসেবে ধরা হচ্ছে। ফ্রান্সের সঙ্গে গ্রুপ-ডিতে আছে নেদারল্যান্ডস, অস্টিয়া এবং পোল্যান্ড। ২০১৮ বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্স আগামী ১৭ জুন অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইউরো মিশন শুরু করবে। চার দিন পর গ্রুপ-ডিতে তাদের প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডস। ২৫ জুন পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ফ্রান্স গ্রুপ পর্ব শেষ করবে। এই গ্রুপকে সহজভাবে না দেখে বরং চ্যালেঞ্জ হিসেবেই দেখছেন দেশ্যম। মোনাকোতে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশ্যম বলেন, ‘এখানে-সেখানে যা বলা হচ্ছে আমি তার সব কিছুর বিরুদ্ধে গিয়ে কথা বলব। আমরা একটি কঠিন গ্রুপে পড়েছি। সবাই হয়তো বলবে ইউরো ২০২৪’র গ্রুপ পর্ব ফ্রান্স সহজেই পার করতে পারবে।’ ৫৫ বছর বয়সি দেশ্যম মনে করেন ইউরোতে খেলতে আসা কোনো দলই সহজ নয়, এখানে কোনো দলকেই ছোট করে দেখার কোনো অবকাশ নেই। বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক কোচ ও অধিনায়ক দেশ্যম বলেন, ‘নেদারল্যান্ডস এখনো বিশ্ব ফুটবলে দাপটের সঙ্গে খেলছে। ২০২৩ সালের মার্চে আমরা যখন তাদের ৪-০ গোলে পরাজিত করেছিলাম তখন তারা একটি ভঙ্গুর দল ছিল। ঐ দলে তাদের বেশ কয়েকজন তারকা খেলোয়াড় অনুপস্থিত ছিল। পোল্যান্ডও দল হিসেবে বেশ শক্তিশালী। অস্ট্রিয়াও বেশ সংঘবদ্ধ দল। সম্প্রতি তারা জার্মানিকে হারিয়েছে। এখানে প্রতিটি দলকেই আলাদাভাবে মেপে দেখতে হবে। প্রথম লক্ষ্য স্থির করতে হবে কীভাবে প্রথম রাউন্ড পার করা যায়। অন্য দেশের মতো আমাদেরও এগিয়ে যাবার যথেষ্ট সম্ভাবনা আছে। কিন্তু শুরুতেই আমাদের সেমিফাইনাল ও সম্ভাব্য ফাইনাল নিয়ে চিন্তা করলে চলবে না।’ গ্রুপ পর্বের ঐ তিন ম্যাচের আগে দেশ্যমের সামনে স্বাভাবিকভাবেই দল নির্বাচন নিয়ে দুশ্চিন্তা শুরু হয়ে গেছে। বড় সব টুর্নামেন্টের আগেই দেশ্যমকে এই দুশ্চিন্তায় পড়তে হয়েছে। এখনো ইউরোর পক্ষ থেকে দলের সংখ্যা বাড়িয়ে ২৩ থেকে ২৬ করা হবে কি না তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসেনি। এ সম্পর্কে দেশ্যম বলেন, ‘যদি ২৬ খেলোয়াড় নিয়ে শেষ পর্যন্ত দল ঘোষণা করতে হয় তবে আমি মনে করি সেটা ফ্রান্স দলের জন্য সুখবর হবে। যে কোনো পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেয়া আমি সব সময় চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখি। যে কোনো সিদ্ধান্তের জন্য আমি প্রস্তুত আছি’। অধিনায়ক হিসেবে দেশ্যম ১৯৯৮ সালে বিশ্বকাপ ও ২০০০ সালে ইউরো শিরোপা জয় করেন। কোচিং ক্যারিয়ারে তিনি মোনাকো, ইউভেন্তাস ও মার্সেইর সফল দায়িত্ব শেষে ২০১২ সালে তিনি দায়িত্ব নেন ফ্রান্স জাতীয় দলের। ২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে ফ্রান্সকে শিরোপা উপহার দেবার পর কোচ হিসেবে ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা এখনো অধরাই রয়েছে দেশ্যমের কাছে। ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে ফাইনালে পরাজিত হবার চার বছর পর সুইজারল্যান্ডের কাছে শেষ ষোলতে পরাজিত হয়ে বিদায় নিতে হয়েছিল। জার্মানিতে ইউরো জয় করতে পারলে একই সঙ্গে কোচ ও খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপ ও ইউরো জয়ের স্বপ্নও পূরণ হবে তার।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App